টেকনাফে প্রবল বর্ষণে বসত-বাড়ি ও মানুষ পানি বন্দি

প্রকাশ: ২৬ জুন, ২০১২ ১:২৪ : অপরাহ্ণ

রাস্তা হারিয়ে যাত্রীবাহী বাস বিলে ; মুখোমুখী সংঘর্ষ ও নিয়ন্ত্রন হারিয়ে খাদে- আহত ১৭জন
হুমায়ুন রশিদ...টেকনাফে ভারীবর্ষণে নিম্মাঞ্চল প্লাবিত হওয়ার পাশাপাশি প্রধান সড়ক সহ বিভিন্ন রাস্তা-ঘাট ঢুবে গেছে। প্রধান সড়কে জলাবদ্ধতার কারণে রাস্তা হারিয়ে একটি যাত্রীবাসী বাস বিলে নেমে গেলে ১৭ যাত্রী আহত হয়। প্রশাসনের সর্তক প্রচারনায় লোকজন আতংকে রয়েছে।২৬জুন সকাল হতে মুষলধারে বৃষ্টি এবং গত ৫দিনের টানাবর্ষণে সীমান্ত উপজেলা টেকনাফের হোয়াইক্যং,নীলা,টেকনাফ সদর, বাহারছড়া, সাবরাং ইউনিয়নের প্রত্যন্ত এলাকার নিম্মাঞ্চল , মানুষ আর যানবাহন চলাচলের রাস্তা-ঘাট ডুবে গেছে । পৌরসভার পশ্চিম অলিয়াবাদ প্রকাশ সাইট্যংখিল, কলেজ পাড়া, গোদারবিল,মহেশখালীয়া পাড়াকুলাল পাড়া, জালিয়া পাড়া ও ডেইল পাড়াসহ বহু এলাকার ঘরবাড়ী পানিতে ডুবে গেছে।হাবিবপাড়া,সিকদার পাড়া,নাজিরপাড়া, মুন্ডারডেইল, কাটাবনিয়া, কচুবনিয়া,ড্ংাগর পাড়া, নয়াপাড়ায় রাস্তা-ঘাটের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। নীলার আলীখালী রাস্তামাথা, রঙ্গীখালী লামার পাড়া, চৌধুরীপাড়া, জালিয়াপাড়া, নাটমোরাপাড়া, দরগাহপাড়া,মোরাপাড়া,পশ্চিম সিকদার পাড়া,হোয়াব্রাং, সুলিশপাড়া, মৌলভীবাজার লামার পাড়া, হোয়াইক্যং নাছর পাড়া, মহেশখালীয়া পাড়া,নয়াবাজার, ঝিমংখালী, কুতুবদিয়াপাড়া, রইক্ষ্যং, উলুবনিয়াসহ অনেক জায়গায় বসত-বাড়ি পানিতে ঢুবে গেছে। এদিকে বিকাল ৪টারদিকে টেকনাফ থেকে কক্সবাজারগামী একটি যাত্রীবাহী স্পেশাল সার্ভিস বাস নং-চট্রমেট্রো-জ-১১-১৪৭৯ গাড়ীটি আলীখালী রাস্তার মাথায় নিন্ত্রয়ন হারিয়ে বিলে নেমে গেলে হাফেজ ছৈয়দ আলম,মোঃ হামিদ,আব্দু শুক্কুর,মৌলভী আবু তাহের,মফিজুর রহমান,রহিম উদ্দিন,আব্দুল হক, ইসমাঈল, কমপক্ষে ১৩জন যাত্রী আহত হয়। আহতদের নীলা ও টেকনাফের স্থানীয় ক্লিনিক এবং হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এছাড়া লেদায় বাস কক্সবাজার-ঝ-০৪-০০১০ এবং বিপরীত দিক থেকে আসা ট্রাক-১১-৯৭২২-এর মুখোমুখী সংর্ঘষ হয় এবং জাদিমোরা এলাকায় খাদে পড়ার ঘটনায় চালক-হেলপারসহ ৪জন আহত হয়েছে বলে জানাযায়। অন্যদিকে এদিনে প্রবল বর্ষণ অব্যাহত থাকায় বনবিভাগের নির্দেশনা সত্বে পাহাড়ী পাদদেশে ও নিম্মাঞ্চলে বসবাসকারীদের মধ্যে আতংক দেখা দিয়েছে ।


সর্বশেষ সংবাদ