লেবার কাউন্সিলরের সাথে টেকনাফ সমিতি-ইউএই নেতৃবৃন্দের সৌজন্যে সাক্ষাৎ 

প্রকাশ: ৯ ডিসেম্বর, ২০১৯ ৯:৪৭ : অপরাহ্ণ

প্রেস বিজ্ঞপ্তি :: বৈদেশিক কর্মসংস্থান বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক প্রেক্ষাপটে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বিদেশে কর্মসংস্থান শুধুমাত্র দেশের বেকারত্ব হ্রাসই করে না, একই সাথে বিদেশে কর্মরত প্রবাসীদের প্রেরণকৃত রেমিটেন্স(বৈদেশিক মুদ্রা) দেশের অর্থনীতির চাকাকে সচল রাখছে। রেমিট্যান্স যোদ্ধাদের সার্বিক কল্যাণমূলক কার্যক্রম পরিচালনার লক্ষে সরকার “ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড আইন,২০১৮” এর মাধ্যমে “ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড” একটি সংবিধিবদ্ধ সংস্থা হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করে। যা প্রবাসী বাংলাদেশিদের সার্বিক কল্যাণ নিশ্চিতকরণসহ ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ তহবিল হতে মৃত কর্মীর মরদেহ দেশে  আনয়ন ও দাফন সংক্রান্ত কার্যাবলিসহ তার পরিবার ও বিপদগ্রস্ত প্রবাসী কর্মীদের আর্থিক ও প্রয়োজনে আইনী সহায়তা প্রদান ও তদারকি এবং প্রবাসী কর্মীদের সন্তানদের শিক্ষাবৃত্তি প্রদান ও অন্যান্য কল্যাণ মূলক কাজ তাদের দোরগোড়ায় পৌছাতে ইতিমধ্যে  প্রবাসি কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের পক্ষে ওয়েজ আর্নার বোর্ড মেম্বারশিপ কার্ড প্রদানের মাধ্যমে নিবন্ধন কার্যক্রম শুরু হয়েছে ৷  গতকাল টেকনাফ সমিতি-ইউএই’র সদস্যদের অর্ধ শতাধিক প্রবাসি কল্যাণ বোর্ডের মেম্বারশিপ নিবন্ধন ফরম জমাদান কালে বাংলাদেশ কন্স্যুলেট দুবাই ও উত্তর আমিরাতের কন্স্যুলেটের  লেবার কাউন্সিলর ফাতেমা জোহরা উক্ত কথা বলেন। তিনি আরো বলেন আমিরাতে প্রায় সাত লক্ষ প্রবাসিদের মধ্যে ওয়েজ আর্নার মেম্বারশিপ কার্ড সংগ্রহের পরিমাণ  খুবই নগন্য। যা সরকার কর্তৃক প্রদত্ত সেবা পেতে প্রত্যেক রেমিটেন্স যোদ্ধাকে  উক্ত কার্ড সংগ্রহ করতে হবে। তিনি প্রবাসে জনসচেতনতা বৃদ্ধি ও একযোগে সরকার নির্ধারিত ফি সহ  অর্ধ শতাধিক নিবন্ধন ফরম  জমাদানের জন্য সীমান্ত উপজেলার প্রবাসী টেকনাফ সমিতির প্রতিনিধিদেরকে সাধুবাদ জানান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন  কন্স্যুলেট কর্মকর্তা শাহাদাৎ হোসাইন, মতিয়ার রহমান,  মাওলানা আব্দুস সালাম,  হাফেজ শহীদুল ইসলাম ও রাশেদ উল্লাহ প্রমুখ।


সর্বশেষ সংবাদ