রোহিঙ্গা শিবির গুলোতে দিন দিন অপরাধেরমাত্রা বৃদ্ধি

প্রকাশ: ৩০ জুন, ২০১৯ ১২:০৭ : পূর্বাহ্ণ

জাহাঙ্গীর আলম, টেকনাফ:: উখিয়া-টেকনাফে অবস্থিত রোহিঙ্গা শিবির গুলোতে অপরাধেরমাত্রা বেড়েই চলছে। রোহিঙ্গা শিবিরে যা হচ্ছে যেমন,ইয়াবা ব্যবসা,মানবপাচার,নিরহ মানুষকে জিম্মি করে মুক্তিপণ, নিজেদের আদিপাত্য নিয়ে খুন কারাপি,স্বর্ণ চোরাচালান সহ সশস্ত্র গ্রুপ সক্রিয় ভাবে রয়েছে।
মানবিক দিক বিবেচনা করে রোহিঙ্গাদেরকে বাংলাদেশ আশ্রয় দেওয়া হলেও দিন দিন তাদের অপরাধের কারণে সমাজ ও স্থানীয় জনগোষ্ঠী বিভিন্ন দিক থেকে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে এতে লাভবান হচ্ছে বিভিন্ন এনজিও সংস্থা।
পাহাড়ি জনপদ যেমন ধ্বংস হয়েছে।স্থানীয় জনগোষ্ঠীর জমিজমা বাড়িঘর রোহিঙ্গা শিবিরে সাথে মিশে গেছে।
রোহিঙ্গা শিবিরে পাশাপাশি স্থানীয়রা বিভিন্ন দিক থেকে অনিরাপদে।
ক্যাম্পে কর্মরত বিভিন্ন এনজিও সংস্থা গুলো শত শত রোহিঙ্গাদের কে চাকরির সুযোগ করে দিয়ে নিজেদের সার্থ রক্ষা করে স্থানীয়দের বঞ্চিত করছে।তবে রোহিঙ্গা শিবির গুলোতে সরকারের বিভিন্ন বাহিনীর সদস্যরা সজাগ দৃষ্টি রাখলেও তাদের কে ফাঁকি দিয়ে রোহিঙ্গারা অপকর্মে লিপ্ত।
রোহিঙ্গা ক্যাম্প গুলোতে পুলিশ বিভিন্ন সময় অভিযান পরিচালনা করে মাদক,মানবপাচার মামলার আসামি সহ স্বর্ণ চোরাচালান ও হত্যা মামলার আসামি আটক করে থাকেন।
স্থানীয়দের অভিযোগ,মানবিক দিক বিবেচনায় রোহিঙ্গারা আমাদের দেশে আশ্রয় পাই।কিন্তু তাদের কারণে আমাদের অফুরন্ত ক্ষতি হয়েছে।উখিয়া-টেকনাফে আমাদের চাইতে রোহিঙ্গারা সংখ্যায় বেশি। তাই তাদের ক্ষমতার দাপট বেড়েই চলছে রোহিঙ্গারা মিয়ানমার গিয়ে মাদক এনে ক্যাম্প গুলো সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পাচার করে দিতেছে। এসব বিষয় প্রশাসনের কঠোর সজাগ দৃষ্টি রাখার আহবান জানান।##


সর্বশেষ সংবাদ