টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

৫ মে ঢাকায় হেফাজতে ইসলাম কোনো প্রকার তান্ডব চালায়নি….. ঢাকা মহানগর হেফাজতের কড়া প্রতিবাদ

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, ১৯ জুন, ২০১৩
  • ১৬৬ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

হেফাজতে ইসলাম ঢাকা মহানগর নেতৃবৃন্দ গতকাল মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এর দেয়া ‘হেফাজতের তান্ডবে সাড়ে ২৪ কোটি টাকার ক্ষতি’ বক্তব্যের কড়া প্রতিবাদ ও ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছেন, গত ৫মে ঢাকায় সমাবেশের দিনে হেফাজতে ইসলাম কোনো প্রকার তান্ডব চালায়নি। তারা শান্তিপূর্ণভাবে সমাবেশ শেষ করে নাস্তিক মুরতাদদের সর্বোচ্চ শাস্তিসহ ১৩ দফা দাবির আন্দোলনকে বেগবান করতে চেয়েছিল। কিন্তু দুপুর দুইটা থেকে পুলিশের প্রত্যক্ষ মদদ ও পৃষ্ঠপোষকতায় সরকারি দলের ক্যাডাররা নজীরবিহীন তান্ডব ও ভয়াবহ সহিংসতা চালিয়ে রাজপথে হেফাজত কর্মীদের পিটিয়ে, গুলী করে হত্যা করেছে। পল্টন, বিজয়নগর, দৈনিক বাংলার মোড় ও বায়তুল মোকাররমের আশপাশ এলাকা দখল করে তারা সেদিন ব্যাংক ও বিভিন্ন শিল্পপ্রতিষ্ঠানে লুটপাটের মহড়া চালিয়েছে। নিজেরা পবিত্র কুরআন শরীফে আগুন দিয়ে এর দায়ভার হেফাজতের উপর চাপিয়ে দেয়ার অশুভ চেষ্টা চালিয়েছে। সরকার সত্যকে আড়াল করে শীর্ষনেতৃবৃন্দসহ লক্ষ লক্ষ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করে নির্যাতনের ষ্টীম রোলার চালিয়েছে। মধ্যরাতে সাড়াশী অভিযানের নামে ঘুমন্ত জিকিররত অভুক্ত জনতাকে গণহত্যা করেছে। আর ঘটনাকে ভিন্নদিকে প্রবাহিত করতেই এখন আমাদের অর্থমন্ত্রী ‘তান্ডবের’ কথা বলে ঈমানী আন্দোলন নিয়ে মিথ্যাচার করছেন। আসলে কয়লা ধুইলে যেমন ময়লা দূর হয়না তেমন আওয়ামীলীগ শতবার ইসলামের কথা বললেও তাদের অন্তর থেকে ইসলাম বিদ্বেষ দূর হয়না। সবসময় এই দলটি ইসলাম ও মুসলমানদের শিকড় কাটতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে। নেতৃবন্দ বলেন, কারা সেদিন তান্ডব চালিয়েছিল? পরদিন বিভিন্ন সংবাদপত্রে অস্ত্র হাতে তাদের ছবিসহ সংবাদ ছাপা হয়েছে। মাননীয় অর্থমন্ত্রীর স্মরণ না থাকলে তা যাঁচাই করে দেখতে পারেন। তাহলে হয়তো প্রকৃত তান্ডবকারীদের সনাক্ত করা আপনার জন্য সহজ হবে। নেতৃবৃন্দ প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনার সরকারের কান্ডজ্ঞানহীন মন্ত্রীদের অতিকথন বন্ধ করুন। নইলে আপনাদের আম ও ছালা দু’টোই হারানোর আশঙ্কা রয়েছে। ইতিমধ্যে চার সিটি নির্বাচনে জনগণ আপনাদের প্রতি অনাস্থা জানিয়ে ইসলামী মূল্যবোধের পক্ষে রায় দিয়েছে। হেফাজতের বিরুদ্ধে অপপ্রচার ও নেতাদের উপর নির্যাতন, হয়রানি বন্ধ না হলে আগামীতে আপনাদের আরো করুণ পরিণতি ভোগ করতে হবে। বিবৃতি প্রদানকারীরা হলেন-ঢাকা মহানগর আহ্বায়ক মাওলানা নুর হোসাইন কাসেমী, মাওলানা মুফতী তৈয়্যব হোসাইন, মাওলানা আব্দুর রব ইউসুফী, মাওলানা জাফরুল্লাহ খান, মাওলানা মাহফুজুল হক, মাওলানা আবুল হাসানাত আমিনী, মাওলানা আহলুল্লাহ ওয়াছেল, মাওলানা আবুল কাশেম, মাওলানা শফিক উদ্দিন, মাওলানা জসিম উদ্দিন, মাওলানা যোবায়ের আহমদ, মুক্তিযোদ্ধা মাওলানা শওকত আমীন, মাওলানা সাখাওয়াত হোসাইন, মাওলানা আলতাফ হোসাইন, মাওলানা আনছারুল হক ইমরান প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT