টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

৩০০ সংসদীয় আসনে সীমানা পরিবর্তন চূড়ান্ত যে সব আসন

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, ৩ জুলাই, ২০১৩
  • ২৭৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

 

 

fsdfsdনিজস্ব প্রতিবেদক :- আগামী দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সংসদীয় এলাকার সীমানা পরিবর্তন চূড়ান্ত করেছে নির্বাচন কমিশন। ৩০০ আসনের মধ্যে ৫৩টি আসনে পরিবর্তন আনা হয়েছে। এর মধ্যে কোনো কোনো আসনে আংশিক এবং কোনো কোন আসনে বড় ধরনের পরিবর্তন আনা হয়েছে। বুধবার প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিব উদ্দিন আহমদ এ বিষয়ে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, ভৌগলিক অখণ্ডতা, প্রশাসনিক সুবিধা, ভোটার সংখ্যা ইত্যাদি বিষয় বিবেচনায় নিয়ে এ পরিবর্তন এনেছেন এবং ইতিমধ্যে ৩০০ আসনের গেজেটও প্রকাশ করা হয়েছে। সুতরাং নির্বাচন কমিশন যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তাই চূড়ান্ত। নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, সীমানা পরিবর্তনের খসড়ায় ৮৯টি সংসদীয় আসনের সীমানা পরির্বতনের প্রস্তাব করা হলেও সেখান থেকে ৫৩টি আসনের সীমানা পরিবর্তন চূড়ান্ত করা হয়। বাকি আসনের সীমানা অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে। ***যেসব সংসদীয় আসনে পরিবর্তন আনা হয়েছে সেগুলো হচ্ছে রংপুর-১ ও ৩, কুড়িগ্রাম-২, ৩ ও ৪, বগুড়া-১ ও ৫, যশোর-৩, ৪, ৫ ও ৬, খুলনা-১ ও ৬, পটুয়াখালী-১, ২ ও ৩, পিরোজপুর- ১, ২ ও ৩, জামালপুর-২ ও ৩, ময়মনসিংহ-২, ৩ ও ৪, নেত্রকোনা-২ ও ৫, ঢাকা-১৪ ও ১৯, গাজীপুর-২ ও ৩, নরসিংদী-১,২, ৩ ও ৫, নারায়ণগঞ্জ-৩ ও ৪, সুনামগঞ্জ ৪ ও ৫, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১, ২ ও ৩, কুমিল্লা-৬, ৭, ৮ ও ১০, চাঁদপুর-১ ও ২, চট্টগ্রাম-৫, ৬, ৮, ১৩, ১৪ ও ১৫।  ঢাকা : ২০০৮ সালের জাতীয় নির্বাচনে ঢাকা-১৪ আসনের অন্তর্ভুক্ত ছিল ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৭, ৮, ৯, ১০, ১১ ও ১২ নম্বর ওয়ার্ড। তবে এবার এই আসনে কিছুটা পরিবর্তন এনে ওই ওয়ার্ডগুলোর সঙ্গে সাভার উপজেলার কাউন্দিয়া ইউনিয়নকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। ঢাকা-১৯ আসনের অন্তর্ভুক্ত ছিল আমিনবাজার, তেতুলঝোড়া ও ভাকুর্তা। এবার এ আসনে কিছুটা পরিবর্তন এনে কাউন্দিয়ার একাংশকেও এ আসনে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।গাজীপুর : ২০০৮ সালের জাতীয় নির্বাচনে পূবাইল, বাড়িয়া, কাশিমপুর, কোনাবাড়ি, বাসন, কাউলতিয়া ও মির্জাপুর বাদে সদর উপজেলার বাকি অংশ ছিল গাজীপুর-২ আসনের অন্তর্ভুক্ত। এবার গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ১৯ থেকে ৩৮ নম্বর ওয়ার্ড, ৪৩ থেকে ৫৭ নম্বর ওয়ার্ড এবং গাজীপুর ক্যান্টনমেন্ট এলাকাকে গাজীপুর-২ আসনের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।  গাজীপুর-৩ আসনে ছিল শ্রীপুর উপজেলা এবং গাজীপুর সদর উপজেলার কাউলতিয়া ও মির্জাপুর। কিন্তু এবার এ আসনে কিছুটা পরিবর্তন এনে শ্রীপুর উপজেলা, গাজীপুর সদর উপজেলার মির্জাপুর, ভাওয়ালগড় ও পিরুজালি ইউনিয়নকে এ আসনের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। চট্টগ্রাম : সংখ্যার দিক দিয়ে সবচেয়ে বেশি পরিবর্তন আনা হয়েছে চট্টগ্রামের আসনগুলোয়। যেমন ২০০৮ সালের নির্বাচনে চট্টগ্রাম-৫ আসনের অন্তর্ভুক্ত ছিল গড়দুয়ারা ইউনিয়ন ছাড়া হাটহাজারি উপজেলা এবং চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ১ ও ২ নম্বর ওয়ার্ড। এবার সিটি করপোরেশনের ১ ও ২ নম্বর ওয়ার্ডসহ পুরো হাটহাজারী উপজেলাকেই এ আসনের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।চট্টগ্রাম-৬ আসনেও কিছুটা পরিবর্তন আনা হয়েছে। আগে রাউজান

এবং হাটহাজারি উপজেলার গড়দুয়ারা ইউনিয়নকে নিয়ে এ আসন ছিল। তবে এবার কেবল রাউজান উপজেলাকে চট্টগ্রাম-৬ আসন করা হয়েছে। চট্টগ্রাম-৮ আসনেও সামান্য পরিবর্তন আনা হয়েছে। এখন এ আসনে রয়েছে শ্রীপুর-খরনদ্বীপ ইউনিয়ন ছাড়া বোয়ালখালী থানা এবং চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ৩, ৪, ৫, ৬ ও ৭ নম্বর ওয়ার্ড। চট্টগ্রাম-১৩ আসনে আগের এলাকার সঙ্গে এবার কর্ণফুলী থানাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। ফলে এ আসনে এখন থাকছে আনোয়ারা উপজেলা এবং পটিয়া উপজেলার চরপাথরঘাটা, চরলক্ষ্মা, জুলধা, বড়উঠান, শিকলবাহা ইউনিয়ন এবং কর্ণফুলী থানা। সামান্য পরিবর্তনের পরে চট্টগ্রাম-১৪ আসনে এখন থাকছে চন্দনাইশ উপজেলা এবং সাতকানিয়া উপজেলার কেওচিয়া, কালিয়াইশ, বাজালিয়া, ধর্মপুর, পুরানগড় ও খাগরিয়া ইউনিয়ন। চট্টগ্রাম-১৫ আসনেও কিছুটা পরিবর্তন আনা হয়েছে। ফলে এ আসনে এখন রয়েছে লোহাগড়া উপজেলা এবং কেওচিয়া, কালিয়াইশ, বাজালিয়া, ধর্মপুর, পুরানগড় ও খাগরিয়া বাদে সাতকানিয়া উপজেলা ।রংপুর: রংপুর-১ আসনে বড় ধরনের পরিবর্তন আনা হয়েছে। ২০০৮ সালের নির্বাচনে এ আসনের অন্তর্ভুক্ত ছিল গংগাচড়া উপজেলা এবং রংপুর সদর উপজেলার হরিতেবপুর, উত্তম ও পরশুরাম ইউনিয়ন। কিন্তু এবার শুধু গংগাচড়া উপজেলা নিয়ে গঠিত হয়েছে রংপুর-১ আসন।রংপুর-৩ আসনেও পরিবর্তন আনা হয়েছে। ২০০৮ সালে নির্বাচনে হরিদেবপুর, উত্তম ও পরশুরাম ইউনিয়ন ব্যতীত রংপুর সদর উপেজলার বাকি অংশ এ আসনের অন্তর্ভুক্ত ছিল। কিন্তু এবার রংপুর সিরি করপোরেশনভুক্ত এলাকাকে এই আসনের আওতায় আনা হয়েছে। কুড়িগ্রাম:কুড়িগ্রাম-২ আসনেও বড় পরিবর্তন এসেছে। আগে এই আসনের অন্তর্ভুক্ত ছিল কুড়িগ্রাম সদর, ফুলবাড়ি উপজেলা এবং রাজারহাট উপজেলার রাজারহাট, ছিনাই ও চাকিরপশার ইউনিয়ন। কিন্তু এবার কুড়িগ্রাম সদর, রাজারহাট উপজেলা এবং ফুলবাড়ি উপজেলাকে এ আসনের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। কুড়িগ্রাম-৩ আসনেও পরিবর্তন এসেছে। পরিবর্তনের পরে এখন সাহেবের আলগা ইউনিয়ন বাদে পুরো উলিপুর উপজেলা এবং অষ্টমীরচর ও নয়ারহাট বাদে পুরো চিলমারী উপজেলাকে এ আসনের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। বগুড়া:বগুড়া-১ আসনে আগে ছিল সারিয়াকান্দি উপজেলা, সোনাতলা উপজেলা এবং ভান্ডারবাড়ি ও গোসাইবাড়ি বাদে ধুনট উপজেলা। কিন্তু এখন কেবল সারিয়াকান্দি ও সোনাতলা উপজেলা এ আসনের অন্তর্ভুক্ত হয়েছে।  বগুড়া-৫ আসনে এখন থাকছে শেরপুর ও ধুনট উপজেলা। আগে ধুনট উপজেলার সব ইউনিয়ন এ আসনের অন্তর্ভুক্ত ছিল না। যশোর:যশোর-৩ আসনের বেশ বড় পরিবর্তন এসেছ। ২০০৮ সালের নির্বাচনে এ আসনের অন্তর্ভুক্ত ছিল ফতেপুর, ইছালী, কচুয়া, নরেন্দ্রপুর ও বসুন্দিয়া বাদে যশোর সদর উপজেলা। তবে এবার বসুদিয়া ইউনিয়ন বাদে পুরো যশোর সদর উপজেলাকে এ আসনের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। পরিবর্তনের ফলে যশোর-৪ আসনে এখন থাকছে বাঘারপাড়া উপজেলা, অভয়নগর উপজেলা এবং যশোর সদর উপজেলার বসুদিয়া ইউনিয়ন। যশোর-৫ আসনের অন্তর্ভুক্ত এখন কেবল মনিরামপুর উপজেলা। আর কেশবপুর উপজেলা নিয়ে গঠন করা হয়েছে যশোর-৬ আসন। খুলনা: খুলনা-১ আসনে কিছুটা পরিবর্তন এনে এখন বটিয়াঘাটা এবং দাকোপ উপজেলাকে এ আসনে রাখা হয়েছে। খুলনা-৬ আসনে রয়েছে কয়রা ও পাইকগাছা উপজেলা। পটুয়াখালী:পটুয়াখালী-১ আসনের বেশ বড় পরিবর্তন আনা হয়েছে। আগে এ আসনে ছিল আউলিয়াপুর, লোহালিয়া ও কমলাপুর বাদে সদর উপজেলার বাকি অংশ এবং মির্জাপুর ও দুমকী উপজেলা। তবে এবার পটুয়াখালী সদর, মির্জাগঞ্জ ও দুমকী উপজেলার পুরোটা নিয়ে গঠন করা হয়েছে এ আসন। পটুয়াখালী-২ আসনেও কিছুটা পরিবর্তন আনা হয়েছে এবং এখন কেবল বাউফল উপজেলা নিয়ে গঠিত হয়েছে পটুয়াখালী-২ আসন। পটুয়াখালী-৩ আসনে রয়েছে দশমিনা ও গলাচিপা উপজেলা। পিরোজপুর: পিরোজপুর-১ আসনে পরিবর্তন এসেছে। আগে এ আসনের অন্তর্ভুক্ত ছিল পিরোজপুর সদর উপজেলা, নাজিরপুর ও জিয়ানগর উপজেলা। তবে এবার পিরোজরপুর সদর ও নাজিরপুরের সাথে যোগ করা হয়েছে নেছারাবাদ উপজেলা। বাদ পড়েছে জিয়ানগর। পিরোজপুর-২ আসনে যুক্ত হয়েছে জিয়ানগর। ফলে এ আসনে থাকছে কাউখালী, ভান্ডারিয়া ও জিয়ানগর উপজেলা। পিরোজপুর-৩ আসনে আগে ভান্ডারিয়া উপজেলার কিছু অংশ থাকলেও এবার কেবল মঠবাড়িয়া উপজেলা নিয়ে গঠন করা হয়েছে এ আসন। জামালপুর: জামালপুর-২ আসনে পরিবর্তন এনে কেবল ইসলামপুর উপজেলাকে রাখা হয়েছে এ আসনে। জামালপুর-৩ আসনে থাকছে মারাদগঞ্জ ও মেলান্দহ উপজেলা। ময়মনসিংহ: ময়মনসিংহ-৩ আসনে বেশ বড় পরিবর্তন আনা হয়েছে। এখন কেবল গৌরীপুর উপজেলা রয়েছে এ আসনে। বাদ পড়েছে ফুলপুর ও সদর উপজেলার বেশ কিছু এলাকা। ময়মনসিংহ-৪ আসনের বেশ বড় পরিবর্তন এনে কেবল ময়মনসিংহ সদর উপজেলাকে রাখা হয়েছে এ আসনে। নেত্রকোনা: নেত্রকোনা-২ আসনে কিছুটা পরিবর্তন এসেছে। এ আসনের অন্তর্ভুক্ত এখন সদর ও বারহাট্টা উপজেলা। নেত্রকোনা-৫ আসনে থাকছে কেবল পূর্বধলা উপজেলা। নরসিংদী: পরিবর্তনের পরে নরসিংদী-১ আসনের অন্তর্ভুক্ত এখন আমদিয়া, পাঁচদোনা ও মেহেরপাড়া ইউনিয়ন বাদে সদর উপজেলার বাকি এলাকা। নরসিংদী-২ আসনে থাকছে পলাশ উপজেলা এবং সদর উপজেলার আমদিয়া, পাচদোনা ও মেহেরপাড়া ইউনিয়ন। নরসিংদী-৩ আসনে রয়েছে কেবল শিবপুর উপজেলা। আর নরসিংদী-৫ আসনে থাকছে কেবল রায়পুরা উপজেলা। নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনে কিছুটা পরিবর্তন এসেছে। ফলে এখন কেবল সোনারগাঁও উপজেলা থাকছে এ আসনে। নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের থাকছে ফতুল্লা ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানা। সুনামগঞ্জ: সুনামগঞ্জ-৪ আসনে পরিবর্তনের পরে এখন থাকছে সদর ও বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা। সুনামগঞ্জ-৫ আসনে রয়েছে ছাতক ও দোয়ারাবাজার উপজেলা। ব্রাহ্মণবাড়িয়া: ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ আসনে এখন রয়েছে কেবল নাসিরনগর উপজেলা। ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনে রয়েছে সরাইল ও আশুগঞ্জ উপজেলা। আর ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ আসনে থাকছে সদর ও বিজয়নগর উপজেলা। কুমিল্লা: কুমিল্লা-৬ আসনে পরিবর্তন এসেছে। এখন এ আসনে থাকছে কেবল কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা।  কুমিল্লা-৭ আসনে রয়েছে কেবল চান্দিনা উপজেলা, কুমিল্লা-৮ আসনে রয়েছে বরুড়া উপজেলা, কুমিল্লা-১০ আসনে রয়েছে সদর দণি ও নাংগলকোট উপজেলা। চাঁদপুর: চাঁদপুর-১ আসনেও পরিবর্তন আনা হয়েছে। এখন কেবল কচুয়া উপজেলা থাকছে এ আসনে। চাঁদপুর-২ আসনে থাকছে মতলব (উত্তর) ও মতল (দণি) উপজেলা।

 

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT