টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :

হ্নীলা বাজারে পথে-ঘাটে অসহনীয় জনদূর্ভোগ ॥ কমিটি বিচার-সালিশ নিয়ে ব্যস্ত

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৪ জুলাই, ২০১৩
  • ১১৫ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

Saddam Pic Nilla 23-07-2013সাদ্দাম  হোসাইন,  হ্নীলা ॥ টেকনাফের হ্নীলা ষ্টেশনস্থ বাজারের পথে-ঘাটে ময়লা-আর্বজনা আর রাতে চুরি-চামারিতে অসহনীয় জনদূর্ভোগের সৃষ্টি হয়েছে। এ সব দেখভাল করার জন্য প্রায় এক’বছর আগে ব্যবসায়ীরা পরিচালনা কমিটি নির্বাচিত করলেও কমিটি সারাণ সামাজিক বিচার-শালিশ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। ‘বাজার কমিটি জানে না তাদের কাজ কি?’ এমন প্রশ্ন এখন বাজার সংশ্লিষ্ট এলাকাবাসীর মুখে মুখে।
সরেজমিন ঘুরে সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, গত ২০১২ সালের ২৪ মে হ্নীলা বাজার পরিচালনা কমিটির নির্বাচন হয়। ব্যবসায়ীরা অনেক আশা নিয়ে তাদের পছন্দের প্রতিনিদি বেঁচে নিয়ে তাদেরকে নির্বাচিত করে। কিন্তু সেই পছন্দের প্রতিনিধিরা তাদের আশার প্রদ্বীপ জ্বালাতে পারেনি। হ্নীলা বাজারের বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চুরি-চামারী, পথে-ঘাটে জনদূর্ভোগ নিরসনের জন্য তাদেরকে নির্বাচিত করেছিল। এ বাজারের এখন নাজুক অবস্থা। অল্প বৃষ্টিতে নালার বর্জ্যগুলো এবড়োথেবড়ো হয়ে পড়ে আছে রাস্তার উপর। বৃষ্টি বাড়ার সাথে সাথে সড়কটিতে পানি জমে একাকার। শিার্থীরা এবং লোকজন ঘর থেকেই বেরোতেই রাস্তার উপর ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা বর্জ্য মাড়িয়ে যেতে হয় স্কুল-মাদ্রাসায় এবং বাজারে। রাস্তার পাশের নালাগুলো র্দীর্ঘ দিন ধরে পরিস্কার না করার ফলে বর্জ্যগুলো বেরিয়ে যাওয়ার কোন পথ না  থাকায় পুরো রাস্তা আবর্জনার স্তপে পরিণত হয়েছে। এতে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়তে  হচ্ছে স্কুল-মাদ্রাসার  ছাত্র-ছাত্রী ও পথচারীদের। কর্তৃপরে চরম গাফিলতির কারণে দূর্ভোগের শিকার  হতে হচ্ছে বলে অভিযোগ শতশত মানুষের।
জানা গেছে, গত ২৫ জুন শবেবরাতে গভীর রাতে হ্নীলা বাসস্টেশনের নিউ মার্কেটে দূর্ধষ চুরির ঘটনা ঘটে। সংঘবদ্ধ চোরের দল কৌশলে মার্কেটে ঢুকে আমান উল্লাহ সওদাগরের মুদির দোকান থেকে মাল বিক্রির ১ লাখ ৩০ হাজার টাকা ও মসজিদের একটি দান বক্স, আল হোসাইন ষ্টোর থেকে ৩টি বডি ¯েপ্র, ২টি সেন্ট, ৫টি জিন্সের প্যান্ট নিয়ে যায় এবং সাদ্দাম ও গারাঁঙ্গিয়া ষ্টোরের তালা কাটলেও ভেতরে তালা থাকায় মালামাল নিতে পারেনি। এরও আগে মোস্তাক সওদাগরের চালের দোকান হতে ৪ লাধিক টাকা এবং নির্মল ধরের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান শাড়ি বিতান হতে ২ লাধিক টাকা, সিকদারের ক্রোকারিজ দোকানে দূধর্ষ  চুরির ঘটনা ঘটেছে। এত কিছু হওয়ার পরও বাজার মাথা নেই। এতে ব্যবসায়ীদের মাঝে ুব্দ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে।
ডা. সাইফুদ্দিন খালেদ জানান, হ্নীলা ষ্টেন বাজারের সড়কের নালাগুলো র্দীর্ঘ দিন ধরে ভরাট হয়ে আছে। এই নালা পরিস্কার না করার ফলে বর্জ্যগুলো বেরিয়ে যাওয়ার কোন পথ না থাকায় পুরো সড়ক আবর্জনার স্তপে পরিণত হয়েছে। ময়লা ফেলার জন্য নেই কোন  ডাষ্টবিন, যে যার মতো যেমন ইচ্ছে রাস্তায় ফেলছে সব ময়লা। একটু বৃষ্টিতে এই সব ময়লার পানি ঢুকে  পড়ছে দোকান-পাটে।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে বেশ কয়েক জন ব্যবসায়ী জানান, এটা একটি জন গুরুত্বপূর্ণ বাজার এবং এই পাশে রয়েছে কয়েকটি শিা প্রতিষ্ঠান। কর্তৃৃপরে অবহেলায় তিগ্রস্ত হচ্ছে এলাকার কয়েক হাজার শিার্থী এবং জনসাধারণ। সামান্য বৃষ্টিতে নাজুক পরিস্থিতির মধ্যে পড়তে  হচ্ছে শিার্থীদের এবং ক্রেতা সাধরণের। এই জনপদের কর্তৃপরে নেই কোন নজরদারী। দেখেও না দেখার ভান করে আছে। তারা সব সময় বিচার-সালিশ নিয়ে ব্যস্ত। যে বিচার-সালিশ মেম্বর-চিয়ারম্যানরা করত তা এখন করছে বাজার পরিচালনা কমিটি। চরম এক অব্যবস্থাপনার স্বীকার এলাকাবাসী ও ব্যবসায়ীরা। এ অবস্থায় আগামী ঈদুল ফিতরের আগে দ্রুত পরিবর্তন ও উন্নয়নের দাবী করেছেন এলাকার সচেতন মহল।
#############################
সাদ্দাম  হোসাইন,
হ্নীলা, টেকনাফ ॥
মোবাইল নং-০১৮২৫-১৬২৮০১

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT