টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

হ্নীলায় দু-পক্ষের ফাঁকা গুলি বর্ষণ ও সংঘর্ষে আহত ৬

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬
  • ৭৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম, টেকনাফ = টেকনাফের ‎হ্নীলায় মদ খেয়ে মাতলামী করাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে উভয়পক্ষের ৬জন আহত হয়েছে। এ সময় ফাঁকা গুলি বর্ষণ করে ভীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ১৯ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাত সাড়ে ১০ টার দিকে ‎হ্নীলা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডস্থ পশ্চিম পানখালী এলাকায় ঘটেছে এঘটনা।
উভয়পক্ষের সাথে কথা বলে জানা গেছে, ৪নং ওয়ার্ড বাসিন্দা আবদুস সোবহান মাষ্টার ও সাবেক মেম্বার কবির আহমদের ছেলের মধ্যে এঘটনাটি ঘটেছে। এতে উভয়পক্ষের মধ্যে অন্তত ৬ জন আহত হয়েছে। ‎তথ্যানুসন্ধানে জানা যায়, হ্নীলা পশ্চিম পানখালীস্থ ঈদগাহ মাঠ সংলগ্ন ব্রীজের উপর কবির আহমদের ছেলে ওসমান (২৬) ও পার্শ্ববর্তী মৌঃ লুৎফর রহমানের ছেলে নাঈমুল ইসলাম (১৭) অবস্থানকালে আবদুস সোবহান মাষ্টারের ছেলে ইকবাল (২৫) মটর সাইকেল নিয়ে মদ্যপ অবস্থায় তাদের কাছে গিয়ে অতর্কিতভাবে গালিগালাজ শুরু করে। একপর্যায়ে ওসমান এবং নাঈমকে লাথি, ঘোষি, কিল মেরে ফেলে দেয়। পরে ওসমান বাড়িতে তার ভাইদের খরব দিলে ভাইয়েরা জড়ো হয়ে ওসমানকে উদ্ধারের জন্য গিয়ে আসলে ওসমানকে মাটিতে পড়ে থাকতে দেখে তারা উত্তেজিত হয়ে ইকবালকেও মারধর করে। পরে ইকবাল দৌঁড়ে এসে বাড়ি থেকে অপরাপর ভাইদের খবর দিয়ে দলবদ্ধভাবে স্বশস্ত্রাবস্থায় কবির মেম্বারের রিক্সার গ্যারেজ এলাকায় গিয়ে ৩/৪ রাউন্ড ফাঁকা গুলি বর্ষণ করে ভীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি করে গ্যারেজ ও দোকানে ভাংচুর চালায়। এতে ৫টি অটু রিক্সা ও দোকানের বেশ কিছু আসবাবপত্র ভাংচুর এবং মালামাল লুটপাট হয় বলে অভিযোগ কবির আহমদ মেম্বার পক্ষের। এছাড়া এঘটনায় আবদুস সোবহান মাষ্টার পক্ষের ইকবাল ও আবছার আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে আহত হয় এবং কবির আহমদ মেম্বার পক্ষের ওসমান, রেহেনা বেগম, মুহাম্মদ রিফাত ও নাঈমুল ইসলাম আহত হয়েছে বলে জানা যায়। আহতরা স্থানীয় হাসপাতাল সহ জেলা ও উপজেলার বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এদিকে ঘটনাটি যদিওবা দুই পক্ষের মধ্যে ঘটলেও কবির আহমদ মেম্বার পক্ষের নুরুল ইসলাম ও আবদুস সোবহান মাষ্টার পক্ষের আবছার উভয়পক্ষকে থামাকে আপ্রাণ চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়। অন্যদিকে ফাঁকা গুলি বর্ষণের ঘটনাটি জনসম্মুখে হলেও পক্ষদ্বয় একে অপরকে দায় চাপাচ্ছে। তবে এ ব্যাপারে প্রত্যক্ষদর্শীরাই ভাল জানবেন বলে কথা উঠেছে। ঘটনার প্রায় শেষ পর্যায়ে টেকনাফ থানা পুলিশের এসআই আলমগীর ও এসআই রিপন বড়–য়ার নেতৃত্বে পৃথক পুলিশ দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি মেম্বার হোসাইন আহমদ বলেন, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আবদুস সোবহান মাষ্টারের ছেলেরা প্রকাশ্যে ফাঁকা গুলি বর্ষণ করে ভীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এইচ.কে আনোয়ার বলেন, ঘটনাটি অত্যন্ত দুঃখ জনক। তবে উভয়পক্ষকে মামলা হামলায় না গিয়ে স্থানীয়ভাবে সমাধানে এগিয়ে আসতে আহ্বান জানান তিনি। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত টেকনাফ থানায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে। ##

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT