টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

হোয়াইক্যংয়ে ঘর জালিয়ে দেয়ার বিচার করবে কে?

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৩
  • ৯৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

Teknaf Pic-21-02-13টেকনাফ প্রতিনিধিঃ টেকনাফের হোয়াইক্যংয়ে পূর্ব শত্রুতার জেরধরে ১ অসহায় মানুষের বসত-বাড়ি জ্বালিয়ে দেওয়ার পর উল্টো বাড়ির মালিক কে মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে হয়রানি করার অভিযোগ উঠেছে।গতকাল টেকনাফ থানায়  এব্যাপারে মামলার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানান বাড়ির মালিক অসহায় রহিমা খাতুন।         স্থানিয় জনপ্রতিনিধিও প্রত্যক্ষদর্শি রা সাংবাদিকদের জানান-টেকনাফ উপজেলার কাটাখালী‘র অসহায় রহিমা খাতুন বহুকষ্টে উপার্জিত টাকা দিয়ে কোনরকম মাথাগোজার ঠায় করে নেয়।রহিমা খাতুন ও স্বামী লালমুহাম্মদ এর সাথে দীর্ঘদিনের শত্রুতামী ছিল প্রতিবেশী হারুন গংদের সাথে।নানা হুমকি ধমকির পর গেল ১০ফেব্রুয়ারী অসহায় রহিমা খাতুনের একমাত্র আশ্রস্থল বসতবাড়ীতে নারী সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে পূর্ব শত্রুতার অংশ হিসেবে জনৈক হারুন গং পরিকল্পিত ভাবে আগুন লাগিয়ে দেয়। এতে রহিমা খাতুনের বাড়ির ছাউনি,কম্বল,কাপড় সোপড় নগদ টাকা সহ প্রায় ২ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধিত হয়।স্থানিয় জনতা কোনরকম আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে।পরে গত ১২ফেব্রুয়ারী স্থানীয় মেম্বার ও গণ্যমান্য ব্যক্তি সালিশে বসলে উক্ত হারুন স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি দেয়এবং ক্ষতিপূরন দেয়ার অঙ্গীকার নামা দেয়। এতে বিচারকবৃন্দ ক্ষতি-পূরন নির্ধারন করে পরিশোধের সময়ও দেন। কিন্তু অসাধু হারুন সাধুসেজে অবশেষে উল্টে ভুঁয়া মামলা প্রস্তুতি নেয়।অসহায় রহিমা খাতুনদের বিরুদ্বে মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করে স্থানিয় হেয়াইক্যং পুলিশ ফাড়িতে। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা নাজু চৌধুরী জানান- ত্রাস হারুন গং ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ করেছে। তার শাস্তি হওয়া উচিত।সিরাজ মেম্বারও ফরিদ কোম্পানী জানান,অসাধু হারুন পরের ঘরে আগুন দিয়ে নিজে বাচার চেষ্টা করছে।বসত-বাড়ি জ্বালিয়ে দেওয়ার ঘটনা সত্যিই দুঃখজনক।
উক্ত মামলাবাজ হারুন ক্ষতি-পূরন থেকে পার পাওয়ার জন্য হোয়াইক্যং ফাঁিড়তে বাড়ির মালিক রহিমা বেগম ও স্বাক্ষীদের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করে ক্ষতি-পূরণ দান থেকে বিরত থেকে উল্টো ক্ষতিগ্রস্থদের হয়রানির পন্থা অবলম্বন করে। বর্তমানে বাড়ির ক্ষতিগ্রস্থ মালিক এখন খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছে।স্বচেতন এলাকাবাসীর মতে  কোথাও কি পাবেনা ঘর জালিয়ে দেয়ার জঘন্যতম অপরাধের এই বিচার ?। ####

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT