টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

হরতালের সমর্থনে জেলার বিভিন্ন জায়গায় জামায়াতের পিকেটিং ও মিছিল-সমাবেশ

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : সোমবার, ১০ জুন, ২০১৩
  • ১০৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

বার্তা পরিবেশক….গণগ্রেফতার ও গণনির্যাতনের প্রতিবাদ, গ্রেফতারকৃত নেতা-কর্মীদের মুক্তি ও মহেশখালী-কুতুবদিয়ার সংসদ সদস্য জননেতা হামিদুর রহমান আজাদসহ কেন্দ্রীয় নেতাদের বিরুদ্ধে ট্রাইবুনালের দেয়া রায় প্রত্যাহারের দাবীতে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ঘোষিত সোমবার সকাল সন্ধা হরতালের সমর্থনে জেলার বিভিন্ন জায়গায় পিকেটিং ও মিছিল সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
জেলা জামায়াতের বিবৃতিঃ
সোমবার সকাল সন্ধা এবং রোববার আধা বেলা স্বতস্ফুর্ত হরতাল পালন করায় জেলাবাসীকে অভিনন্দন জানিয়ে বিবৃতি প্রদান করেছেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও কক্সবাজার জেলা আমীর মুহাম্মদ শাহজাহান, নায়েবে আমীর মাওলানা মোস্তাফিজুর রহমান, সেক্রেটারী জি.এম রহিমুল্লাহ, কক্সবাজার শহরের ভারপ্রাপ্ত আমীর এড়ভোকেট জাফরুল্লাহ ইসলামাবাদী  ও সেক্রেটারী আলহাজ্ব সাইদুল অলম। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, সরকার একদলীয় নির্বাচন করার জন্য জনগনের দৃষ্ঠিকে ভিন্নদিকে প্রবাহিত করার লক্ষে জামায়াত-শিবির নেতৃবৃন্দকে গ্রেফতার করে র্নিযাতন করা হচেছ। আওয়ামীলীগ আদালতকে ব্যবহার করে নির্বাচনী বৈতরণী পার হতে চায়, কিন্তু জনগন সে সুযোগ দেবেনা। মহেশখালী-কুতুবদিয়ার সাংসদ হামিদুর রহমান আজাদসহ সকল কেন্দ্রীয় নেতার বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং গ্রেফতারকৃত নেতা-কর্মীদেরকে অবিলম্বে মুক্তি প্রদান করতে হবে। গণগ্রেফতার ও গণনির্যাতন বন্ধ করে সহনশীলতার পথে আসার জন্য সরকারের প্রতি উদাত্ত আহবান জানান।
কক্সবাজার শহরঃ
জামায়াতে ইসলামী ঘোষিত সোমবার সকাল সন্ধা হরতালের সর্মথনে শহরের বিভিন্ন জায়গায় পিকেটিং ও মিছিল-সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। পৌরসভার বাজারঘাটা, টার্মিনাল, বাংলাবাজার ও খরুলিয়ায় পিকেটিং এবং মিছিল হয়। সমাবেশে নেতৃবৃন্দ জামায়াত শিবিরের নেতা-কর্মীদের উপর গনগ্রেফতার ও নির্যাতন বন্ধ করার জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান। এবং স্বত¯ফুর্ত হরতাল পালনে সহযোগীতা করার জন্য শহরবাসীর প্রতি ধন্যবাদ জানান।
চকরিয়াঃ
জামায়াত ঘোষিত দেশব্যাপী হরতাল পালনের অংশ হিসাবে চকরিয়ার বিভিন্ন  জায়গায় পিকেটিং ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। চকরিয়া পৌরসভা ও মাতামহুরীর ইসলাম নগরে পিকেটিংকালে মিছিল সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ছাত্রনেতা শাহেদ রাজু, হাসান মনিরি,  এমরান হোসাইন, শহীদুল ইসলাম, মুবিনুল হক, জসিম উদ্দিন প্রমুখ।
পেকুয়াঃ
হরতালের সর্মথনে পেকুয়ার বিভিন্ন জায়গায় পিকেটিং ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। পেকুয়া কবির আহমদ সওদাগর বাজার ও বাগগুজারায় স্থানীয় জামায়াত-শিবির কর্মীরা পিকেটিং ও মিছিল করে।
উখিয়াঃ
হরতালের সর্মথনে উখিয়ার বিভিন্ন জায়গায় পিকেটিং ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। রাজাপালং এর হিজলিয়ায় এক বিক্ষোভ মিছিল  ষ্ঠেসনে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলোত্তর সমাবেশে বক্তব্য রাখেন উপজেলা জামায়াত নেতা মাওলানা আব্দুররহিম, সোলতান আহমদ, ছাত্রনেতা আব্দুর রহীম, মুহাম্মদ সেলিম, তানবীর, আলমগীর, রিদুয়ান ও কামাল প্রমুখ। সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, সরকার জামায়াতের উপর গণগ্রেফতার ও গণনির্যাতন চালাচ্ছে। সরকারের সীমাহীন র্ব্যথতাকে আড়াল করার জন্য বিরুধীদলের উপর দমন-পীড়নের পথ বেছে নিয়েছে। গ্রেফতার নির্যাতন করেও সরকারের শেষ রক্ষা হবেনা। নেতৃবৃন্দ স্বতস্ফুর্ত হরতাল পালনের জন্য পরিবহন মালীক-শ্রমিক, দোকান মালীক-শ্রমিকসহ সর্বস্তরের ছাত্রজনতার প্রতি ধন্যবাদ জানান।
মহেশখালীঃ
বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ঘোষিত দেশব্যাপী হরতাল পালনের অংশ হিসাবে মহেশখালীর বিভিন্ন  জায়গায় পিকেটিং ও         মিছিল সমাবেশ  অনুষ্ঠিত হয়। মহেশখালী পৌরসভা, হোয়ানক, শাপলাপুর, কালারমারছড়ার আধারঘোনা ও চাইল্লাতলিতে মিছিলোত্বও সমাবেশে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় জামায়াত ও ছাত্রশিবির নেতৃবৃন্দ। বক্তারা স্থানীয় সংসদ সদস্য হামিদুর রহমান আজাদের বিরুদ্ধে ট্রাইবুনালের রায় ও সকল মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের জন্য আহবান জানান।

আবু হেনা মোস্তফা কামাল
প্রচার সেক্রেটারী
বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী
কক্সবাজার জেলা।

সংবাদ প্রেরক…বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির মহেশখালী উপজেলা দক্ষিণ শিবিরের সভাপতি এম. ওমর আলীর নেতৃত্বে সেক্রেটারী আব্দুর রহিমের পরিচালনায় গতকাল বিকাল ৫ ঘটিকায় মহেশখালী গোরকঘাটা জনতাবাজারের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে নতুন বাজার গিয়ে বিক্ষোভ মিছিল সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়। জামায়াত ইসলামীর কেন্দ্রীয় ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারী মৌলানা রফিকুল ইসলাম খান, কেন্দীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য রাজ পথে আন্দোলনের আপোষহীন জননেতা মহেশখালী কুতুবদিয়ার গণ মানুষের প্রিয় নেতা জাতীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এ.এইচ.এম হামিদুর রহমান আযাদ এমপি ও সাবেক শিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি ঢাকা মহানগরী জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারী মোঃ সেলিম উদ্দিন এর বিরুদ্ধে ট্রাইবুন্যাল-২ এর হয়রানী মূলক মিথ্যা মামলা ও হুলিয়া প্রত্যাহারের দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে আরো উপস্থিত ছিলেন পৌর শিবির সভাপতি জসিম উদ্দিন,  ছাত্রনেতা নুরুল আলম, আরিফ উল্লাহ, সাজেদুল হক সুমন, দেলোয়ার, আবুল কাশেম প্রমুখ। শিবির সভাপতি বলেন হামিদুর রহমান আযাদের ৩ মাস সাজা হওয়ার পরও মহেশখালী-কুতুবদিয়ায় তার জনপ্রিয়তা আরো বেড়ে গেছে। তিনি সংসদ সদস্যপদ হারাচ্ছে না। সংবিধানিক আইন অনুযায়ী ২ বছর সাজা হলে সংসদ সদস্য পদ হারায়। তিনি বলেন আরো বলেন, অবিলম্বে হামিদ আযাদ এমপির মামলা প্রত্যাহার করা না হলে ছাত্র জনতাকে সাথে নিয়ে কঠোর কর্মসূচির মাধ্যমে দ্বীপাঞ্চল মহেশখালীকে অচল করে দেওয়া হবে।
সংবাদ প্রেরক ঃ
এম. ওমর আলী
সভাপতি
বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির,
মহেশখালী উপজেলা দক্ষিণ
মোবাইল ঃ ০১৮১১৬৭৩৬৭০

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT