টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

‘সবার অংশগ্রহণ ছাড়া সার্চ কমিটি মানবে না জনগণ’

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬
  • ৪৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
টেকনাফ নিউজ ডেস্ক **

নতুন নির্বাচন কমিশনের জন্য সার্চ কমিটি বা অন্য কোনো কমিটি গঠনের ক্ষেত্রে ‘জনমতের প্রতিফলন ঘটাতে’ সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বিএনপি।মঙ্গলবার বিকালে এক আলোচনা সভায় এ আহ্বান জানিয়ে দলটির নেতারা বলেন, ‘নিজেদের মতো করে সবকিছু সাজিয়ে নেবেন তা হবে না।’তারা বলেন, ‘সার্চ কমিটি করেন আর যে কমিটিই করেন, জনমতের বাইরে গিয়ে বা সবার অংশগ্রহণ ছাড়া কোনো কমিটি এদেশের মানুষ মেনে নেবে না।’এসময় সকলের কাছে গ্রহণযোগ্য নির্বাচন কমিশন না হলে তা প্রতিহত করতে নেতাকর্মীদের প্রস্তুতি নেয়ারও আহ্বান জানান বিএনপির নেতারা।রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নবম ‘কারামুক্তি দিবস’ উপলক্ষে এ আলোচনা সভার আয়োজন করে ঢাকা মহানগর বিএনপি। গত ১১ সেপ্টেম্বর খালেদা জিয়ার ‘কারামুক্তি দিবস’ উদযাপনের কথা থাকলেও ঈদুল আজহার কারণে তা পিছিয়ে দেয়া হয়।
সভায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘আমরা অবশ্যই নির্বাচন চাই, তবে সেটি গণতান্ত্রিক উপায়ে এবং স্বাধীন নির্বাচন কমিশনের অধীনে হতে হবে। কোনো গৃহপালিত ইসির অধীনে নয়।’ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচন চায় না দাবি করে তিনি বলেন, কারণ তারা জানে, সুষ্ঠু নির্বাচন হলে জনগণের ভোট পাবে না। সবকিছুই তারা করছে, চিরদিন ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য।মির্জা ফখরুল অভিযোগ করেন, তারা (ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ) সুপরিকল্পিতভাবে গণতন্ত্র ধ্বংস করে দিয়েছে। ভিন্ন মোড়কে বাকশাল প্রতিষ্ঠা করতে বিরোধী দলকে নিশ্চিহ্ন করে দেয়া হচ্ছে। মামলা বিচারের পরিণতির দিকে নিয়ে যাচ্ছে।তিনি আরও অভিযোগ করেন, জঙ্গিবাদকে ব্যবহার করে সরকার বিরোধী রাজনৈতিক দলকে ধ্বংস করতে উঠে পড়ে লেগেছে।নির্বাচন কমিশন গঠন প্রসঙ্গে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়শ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘আসলে শেখ হাসিনা একটা মুলা ঝুলিয়েছেন। সেটা হচ্ছে- সার্চ কমিটি ও নির্বাচন কমিশন গঠন। সার্চ কমিটি কে গঠন করবে? রাষ্ট্রপতি। সুপারিশ নেবে কার? প্রধানমন্ত্রীর। তাহলে কাঁঠালে কি আমসত্ত হয়?সব রাজনৈতিক দলের সঙ্গে আলোচনা করে রাজনৈতিক দলের নেতাদের নিয়ে সার্চ কমিটি গঠনের দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, এই সার্চ কমিটি পাঁচজন নির্বাচন কমিশনের সদস্য নির্বাচিত করবে। সেটা রাষ্ট্রপতি অনুমোদন দেবেন। এটা একটা পথ হতে পারে।
সার্চ কমিটির মাধ্যমে নির্বাচন কমিশন গঠনের প্রক্রিয়ার সমালোচনা করে স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, রাজনৈতিক দল, সুশীল সমাজ এবং নির্বাচনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাইকে নির্বাচন কমিশন গঠনের প্রক্রিয়ায় যুক্ত করতে হবে। তা না হলে গঠিত নির্বাচন কমিশন দিয়ে অনুষ্ঠিত কোনো নির্বাচন মানুষ কখনও গ্রহণ করবে না।
ঢাকা মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক ও স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের সভাপতিত্বে এতে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- দলের স্থায়ী কমিটির নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহান, শামসুজ্জামান দুদু, নিতাই রায় চৌধুরী, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবুল খায়ের ভুইয়া, জয়নুল আবদিন ফারুক, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, কেন্দ্রীয় নেতা নূরী আরা সাফা, সরফত আলী সপু, আবদুস সালাম আজাদ, রাজীব আহসান প্রমুখ।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT