টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

শাহ্পরীর দ্বীপের বেড়িবাঁধ নির্মাণে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ১০৬ কোটি টাকার প্রকল্পটি সেনাবাহিনীর মাধ্যমে এই শুষ্ক মৌসুমেই বাস্তবায়ন করার জোর দাবি

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : রবিবার, ২ অক্টোবর, ২০১৬
  • ৪৮০ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

আব্দুল বাসেদ::: শাহ্ পরীর দ্বীপের বেড়িবাঁধ নির্মাণের জন্য প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ১০৬ কোটি টাকার প্রকল্পটি সেনাবাহিনীর মাধ্যমে এই শুষ্ক মৌসুমেই বাস্তবায়ন করার জোর দাবি জানাচ্ছি। বাংলাদেশের স্থলভূখন্ডের সর্বদক্ষিণে অবস্থিত কক্সবাজার জেলার অন্তর্গত টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের ৭,৮ ও ৯ নং ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত ৪০ হাজার মানুষের জনবসতি নিয়ে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যময় এলাকার নামটি শাহ্ পরীর দ্বীপ। স্থলসীমার মূল ভূখন্ড থেকে সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন হয়ে যোগাযোগের একমাত্র নির্ভরযোগ্য পথ মূল সড়কটির দীর্ঘ প্রায় চার কিলোমিটার পর্যন্ত সড়ক সাগরের জোয়ারের খড়াল গ্রাসে লন্ডভন্ড হয়ে এখন নৌপথে পরিণত হয়েছে আজ প্রায় পাঁচ বছরের মতো হয়ে গেছে।তাও আবার শুধু জোয়ারের সময় নৌপথ থাকে, ভাটার সময় যেন এক কাঁদামাটির ধ্বংশ স্তুপে পরিণত হয়ে যায়।বেড়িবাঁধ ভাঙ্গনের এই সময়গুলোতে এলাকার কত হাজার মানুষের ঘরবাড়ি,ভিটেমাটি হারিয়ে ওদাস্তু হয়ে খেয়ে না খেয়ে পথে বসেছে সেই দুঃখ-কষ্ট-যন্ত্রনার কথা বলে শেষ করা যাবেনা।সব ধরনের কষ্ট সহ্য করে শাহ্ পরীর দ্বীপের ৪০ হাজার মানুষ বসবাস করেছে দীর্ঘ পাঁচ পাঁচটি বছর।সবার মধ্যে আশা ছিল কোনো একদিন বেড়িবাঁধ হবে। আমরা আবারও নতুন করে আগের মতো করে বসবাস করতে পারব।এলাকাবাসীর দীর্ঘদিনের প্রতিক্ষার আশার আলো দেখা দিয়েছিল, গত ১৬ই আগস্ট একনেকের সভায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী বঙ্গকন্যা শেখ হাসিনা কর্তৃক বেড়িবাঁধ নির্মাণের জন্য ১০৬ কোটি টাকার প্রকল্পের অনুমোদনের মাধ্যমে।প্রকল্পটি অনুমোদনের পর থেকে শাহ্ পরীর দ্বীপের ভাঙ্গাকবলিত ৪০ হাজার মানুষের মাঝে যে প্রাণের উচ্ছাস সৃষ্টি হয়েছে তা বলার অপেক্ষা রাখেনা।চারিদিকে সকলের মুখে মুখে শুধুই আনন্দের উচ্ছাস,”আমাদের বেড়িবাঁধ হবে, আমরা আবারও নতুন করে সুখে শান্তিতে বসবাস করব।” কিন্তু প্রকল্প অনুমোদনের দুই মাস গত হয়ে গেলেও প্রকল্পটি বাস্তবায়নের তেমন কোনো আশা জাগানো খবর পাওয়া যাচ্ছেনা।তবে এরই মধ্যে বিভিন্নভাবে শুনা যায় সেই দুর্নীতিবাজ টিকাদারেরা বিভিন্ন মাধ্যম নিয়ে দৌড়ঝাঁপ শুরু করে দিয়েছে।প্রকল্পটির টেন্ডার হাতিয়ে নেওয়ার জন্য।সরকারের উচ্চ পর্যায়ের নীতিনির্ধারণী বিভাগের কর্মকর্তাদের বিভিন্ন চলে-বলে-কৌশলে আকৃষ্ট করতে মরিয়া হয়ে পড়েছে। প্রিয় নেতৃবৃন্দ,সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সরকারি কর্মকর্তা ও প্রকল্পটির বাস্তবায়নাধীন নীতিনির্ধারণী বিভাগের কাছে আকূল আবেদন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক শাহ্ পরীর দ্বীপের বেড়িবাঁধ নির্মাণের জন্য অনুমোদিত ১০৬ কোটি টাকার প্রকল্পটি কোনো দুর্নীতিবাজ টিকাদারকে না দিয়ে দেশের দেশপ্রেমিক সেনাবাহিনীর মাধ্যমে দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য বিনীতভাবে অনুরোধ করছি।শাহ্ পরীর দ্বীপের ভাঙ্গাকবলিত এই বিধ্যস্ত বেড়িবাঁধটি টেঁকশয় স্থায়ীভাবে নির্মানের জন্য এবং সরকারি টাকা যথাযথভাবে ব্যবহারের জন্য সেনাবাহিনী ছাড়া বিকল্প নেই।হে মহামান্য প্রকল্প বাস্তবায়নের সরকারি নীতিনির্ধারণী বিভাগের কর্মকর্তাবৃন্দ, কোনো টিকাদার যাতে শাহ্ পরীর দ্বীপের ৪০ হাজার মানুষের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে না পারে সেই জন্য এই প্রকল্পটি সেনাবাহিনীর মাধ্যমে বাস্তবায়নের কোনো বিকল্প নেই।অসহায় ভাঙ্গাকবলিত শাহ্ পরীর দ্বীপের ৪০ হাজার মানুষের একটাই প্রাণের দাবি অনুমোদিত প্রকল্পটি সরকারি আইনের মারপ্যাঁচে আটকিয়ে না রেখে এই বছরের শুষ্ক মৌসুমেই সেনাবাহিনীর মাধ্যমে বাস্তবায়ন করা হোক।সেনাবাহিনী ছাড়া কোনো টিকাদার বা টিকাদারি প্রতিষ্ঠান এই প্রকল্পের বাস্তবায়ন করতে পারবেনা।একমাত্র সেনাবাহিনীই পারবে এই প্রকল্পের সঠিকভাব যথাযথ বাস্তবায়ন করতে। পরিশেষে প্রকল্প বাস্তবায়নের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়ের মাননীয় কর্মকর্তা, উখিয়া-টেকনাফের মাটি ও মানুষের প্রাণপ্রিয় নেতা,প্রকল্পটি অনুমোদনে যার অবদানই সবচেয়ে বেশি মাননীয় সংসদীয় প্রতিনিধি জননন্দিত জননেতা জনাব আলহাজ্ব আব্দুর রহমান বদি এমপি এবং সাবরাং ইউনিয়ন পরিষদের নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান তারুণ্যের প্রতিক জননেতা জনাব নুর হোসেন চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্ট সকল নেতৃবৃন্দের প্রতি আকূল আবেদন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী দেশরত্ন বঙ্গকন্যা শেখ হাসিনা কর্তৃক অনুমোদিত প্রকল্পটি দেশপ্রেমিক সেনাবাহিনীর মাধ্যমে যতদ্রুত সম্ভব বাস্তবায়নের জন্য সরকারি আইনানুগ সকল প্রকার জঠিলতা শেষ করতে যে সব আনুষ্ঠানিকতার পরিসমাপ্তি করতে হয় সবকিছু করে বাস্তবায়ন করার জন্য আকূল আবেদন জানাচ্ছি।উখিয়া-টেকনাফের মাননীয় সংসদ সদস্য জননেতা জনাব আলহাজ্ব আব্দুর রহমান বদি এমপি মহোদয় একমাত্র আপনার সু-দৃষ্টি ও আন্তরিকতাই পারবে সেনাবাহিনীর মাধ্যমে প্রকল্পটি বাস্তবায়নের মাধ্যমে শাহ্ পরীর দ্বীপের ৪০ হাজার মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করতে। শাহ্ পরীর দ্বীপের ভাঙ্গাকবলিত বেড়িবাঁধ নির্মাণের জন্য অনুমোদিত ১০৬ কোটি টাকার প্রকল্পটি সেনাবাহিনীর মাধ্যমে দ্রুত বাস্তবায়ন করা হউক। আব্দুল বাসেদ ছাত্র, টেকনাফ ডিগ্রী কলেজ স্নাতক ৩য় বর্ষ। সভাপতি, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ শাহ্ পরীর দ্বীপ সাংগঠনিক ইউনিয়ন শাখা। মোবাইল নং ০১৯১৯-২৮১০৭৭

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT