টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

টেকনাফের শাহপরীরদ্বীপ ৫৪৫ মিটার দৈর্ঘ জেটিটি কোন উপকারে আসছেনা

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৪ জুন, ২০১৩
  • ২৭৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

www.Teknafnews.com (2)টেকনাফ নিউজ ডেস্ক…সড়ক সমস্যার কারণে কয়েক কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত কক্সবাজারের টেকনাফের শাহপরীরদ্বীপ জেটিটি কোন উপকারে আসছেনা। এতে এলাকার সর্বসাধারণের পাশাপাশি দেশী-বিদেশী পর্যটক শিক্ষার্থী, ভিআইপি, ভিভিআইপি এবং ভ্রমণ পিপাসুরা যাতায়াত সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। তাছাড়া রাসৱার কারণে যাতায়াত সমস্যায় উক্ত জনপদে আইন শৃংখলার উন্নতি হচ্ছে না। অথচ এ সড়কের সমস্যা সমধান করা গেলে এ জেটিটি পর্যটনের নতুন দ্বার খোলেদিত। আরো এক দ্বাপ এগিয়ে যেত পর্যটন শিল্প।
জানা যায়-বিগত জোট সরকার আমলে সেন্টমার্টিনদ্বীপে পর্যটকদের যাতায়াত সুবিধার জন্য প্রধানমন্ত্রীর অগ্রাধিকার প্রকল্পের আওতায় টেকনাফের শাহপরীরদ্বীপ এবং সেন্টমার্টিনদ্বীপে দু’টি জেটি নির্মাণ কাজ শুরু হয়ে অনেক দেরীতে হলেও গত তত্তাবধায়ক সরকার আমলে শেষ্‌ হয়। শাহপরীরদ্বীপ জেটি চালু হওয়ার কিছুদিন যেতে না যেতেই নব নির্মিত জেটি দু’টি ভাঙ্গণ, ফাটলসহ বিভিন্ন ত্রুটি দেখা দেয়। যার ধারাবাহিকতা এখনও অব্যাহত রয়েছে। টেকনাফ থেকে সেন্টমার্টিনদ্বীপের দূরত্ব ২৮ কিলোমিটার। আবার টেকনাফ থেকে শাহপরীরদ্বীপের দূরত্ব ১৩ কিলোমিটার। স’ানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর টেকনাফ এলজিইডির তদারকিতে প্রায় ৬ কোটি টাকা ব্যয়ে উক্ত জেটি ২টির নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করা হয়েছিল। সর্বসাধারণের দাবীর প্রেক্ষিতে এবং দেশী-বিদেশী পর্যটকদের সুবিধার্থে তৎকালীন সরকার জনগুরুত্বপূর্ণ বিবেচনা করে বিপুল অর্থ ব্যয় সত্বেও এই প্রকল্প হাতে নিয়েছিল। টেকনাফের শাহপরীরদ্বীপ জেটিটি ৫৪৫ মিটার দৈর্ঘ, এবং সেন্টমার্টিনদ্বীপের জেটিটি ১৭৯ মিটার দৈর্ঘ বলে টেকনাফ এলজিইডি সূত্রে জানা যায়। সমপ্রতি কক্সবাজার থেকে শাহপরীরদ্বীপ পর্যনৱ সরাসরি ষ্পেশাল মিনিবাস চালু হয়েছে। এতেও পর্যটকদের স্বল্প সময়ে শাহপরীরদ্বীপ থেকে সেন্টমার্টিনদ্বীপে যাবার সুযোগ হয়েছে। পর্যটন মৌসুমে সেন্টমার্টিনদ্বীপগামী পর্যটকবাহী জাহাজ চালু থাকে ৬/৭ টি। ৩টি জাহাজ দমদমিয়াস’ নিজস্ব তৈরী ঝুঁকিপূর্ণ কাঠের জেটি দিয়ে এবং বাকীগুলো টেকনাফের কেরুনতলী স’ল বন্দরের জেটি দিয়ে চলাচল করে যা টেকনাফ শহর থেকে ৬/৭ কিলোমিটার আগে। এতে টেকনাফ দেখারও সুযোগ হয়না পর্যটকদের। এসব জাহাজ সকাল সাড়ে ১০ টায় টেকনাফ থেকে ছেড়ে যায় আবার সেন্টমার্টিনদ্বীপ থেকে টেকনাফের উদ্দেশ্যে ছাড়ে বিকাল ৪টায়। টেকনাফ থেকে সেন্টমার্টিনদ্বীপে পৌঁছতে সময় লাগে দুই থেকে আড়াই ঘন্টা। সেন্টমার্টিনদ্বীপে পৌঁছে একটু ফ্রেশ হয়ে খাওয়া-দাওয়া করতে করতে জাহাজ ছাড়ার সময় হয়ে যায়। রাতে দ্বীপে না থাকলে দ্বীপে ঘুরে দেখার সুযোগ পাওয়া যায়না। টেকনাফ উন্নয়ন কমিটির সভাপতি সাংবাদিক আব্দুল্লাহ মনির বলেন,টেকনাফ থেকে শাহপরীরদ্বীপ পর্যনৱ মাত্র ১৩ কিলোমিটার সড়কের প্রায় অর্ধেক ভাল আছে। বাকী অর্ধেকাংশের উন্নয়ন কোন ব্যাপার নয়। সড়কটির উন্নয়ন করে পর্যটকবাহী জাহাজগুলো শাহপরীরদ্বীপে কয়েক কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত জেটি থেকে ছাড়ার ব্যবস’া নেয়া হলে দেশী-বিদেশী পর্যটকরা দেড় থেকে দুই ঘন্টা,বেশী টেকনাফ দেখার সুযোগ পাবে। সেই সাথে জাহাজ ভাড়া কমিয়ে যাওয়ায় আর্থিক সাশ্রয় হওয়ার পাশাপাশি দেশী-বিদেশী পর্যটক, শিক্ষার্থীরা বাংলাদেশের সর্বশেষ প্রাপ্ত ঐতিহাসিক জনপদ শাহপরীরদ্বীপ দেখার সুযোগ পাবে। বর্তমানে প্রায় সাড়ে ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত শাহপরীরদ্বীপ জেটিটি কোন উপকারে আসছেনা। তবে স’ানীয় নারী- পুরুষ সকাল-বিকাল মুক্ত হওয়ায় বেড়াতে জেটিতে যায়। গৃহবধুরা অবসরে উন্মুক্ত হাওয়া খেতে যায়। শাহপরীরদ্বীপ আওয়ামীলীগের আহবায়ক আলহাজ্ব রশিদ আহমেদ জানান-শাহপরীরদ্বীপ বাংলাদেশের একটি ঐতিহাসিক জনপদ। বাংলাদেশ ভূ-খন্ডের সর্বশেষ প্রানৱর। পাশাপাশি প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি ও এই শাহপরীরদ্বীপ। কিন’ সড়কের সমস্যার কারণে পর্যটকরা শাহপরীরদ্বীপ দেখার সুযোগ পায়না। সাবরাং ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব হামিদুর রহমান জানান- টেকনাফ থেকে শাহপরীরদ্বীপ পর্যনৱ সড়কটির উন্নয়ন করা হলে পর্যটকদের জন্য সেন্টমার্টিনদ্বীপের দূরত্ব ১৫ কিলোমিটার কমে যাবে। এতে পর্যটকরা দ্বীপে বেড়ানোর সময় বেশী পাবে এবং তুলনামূলক জাহাজের ভাড়াও কমে যাবে। সেন্টমার্টিনদ্বীপ ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মাওঃ ফিরোজ আহমদ খান ও দ্বীপের আওয়ামীলীগ নেতা নুর আহমদ মেম্বার দেশী-বিদেশী পর্যটক-শিক্ষার্থীদের সুবিধার্থে টেকনাফ থেকে শাহপরীরদ্বীপ পর্যনৱ সড়ক সংস্কার করে পর্যটকবাহী জাহাজগুলো শাহপরীরদ্বীপ জেটি থেকে ছাড়ার ব্যবস’া নিতে সরকারের প্রতি দাবী জানিয়েছেন।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT