টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
মেয়াদ শেষ হলেও অব্যবহৃত মোবাইল ডাটা ফেরতের নির্দেশ মন্ত্রীর টেকনাফ পৌরসভার এক গ্রামেই ক্যাম্প পালানো ১৮৩ রোহিঙ্গা স্থানীয়দের সঙ্গে মিলেমিশে বসবাস করছে মায়ের গর্ভে ১৩ সপ্তাহ্ বয়সী শিশুর নড়াচড়া হারিয়াখালী থেকে ১ কোটি ৮০ লক্ষ টাকার ইয়াবা উদ্ধার টেকনাফে তথ্যকেন্দ্রের সহযোগিতায় মীনা দলের সদস্যদের নিয়ে ই-লার্নিং প্রশিক্ষণ সম্পন্ন হ্নীলায় শিক্ষকের বিরুদ্ধে আশ্রয় নেওয়া লোকদেরকে বের করে দেওয়ার গুরুতর অভিযোগ টেকনাফের দক্ষিণ ডেইলপাড়া এলাকা হতে ২ জন গ্রেফতার এসএসসির অ্যাসাইনমেন্ট নিয়ে জরুরি নির্দেশনা মাউশির টেকনাফে’ ষষ্ঠ শ্রেনীর এক শিক্ষার্থী ধর্ষনের শিকার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গুলি করে একজনকে অপহরণ

র্যাবের জালে ধরা পড়লেন টেকনাফ সাংবাদিক ফোরামের সদস্য ও ইয়াবা কারবারি বিপুল পরিমাণ টাকা ও ইয়াবা উদ্ধার

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, ১৬ জুন, ২০২১
  • ১৪৪৬ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

মোঃ আজিজ উল্লাহ,টেকনাফ: টেকনাফে র‌্যাব—১৫ এর সদস্যরা অভিযান চালিয়ে ইয়াবা ও নগদ টাকাসহ নারী—পুরুষ দুই মাদক কারবারীকে আটক করেছে। জব্দকৃত নগদ টাকা ও ইয়াবাসহ আটক নারী—পুরুষকে সংশ্লিষ্ট আইনের মামলায় টেকনাফ মডেল থানায় সোর্পদ করা হয়েছে।


র‌্যাব—১৫ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) সিনিয়র এএসপি আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী জানান, মাদকদ্রব্য বহনের গোপন সংবাদ পেয়ে ১৫ জুন (মঙ্গলবার) বিকাল পৌনে ৩টার দিকে র‌্যাব—১৫ এর চৌকষ একটি আভিযানিক দল টেকনাফ সদরের দক্ষিণ লেঙ্গুরবিলের মাঠপাড়া মোড়ে জাহিদ হোছনের দোকানের সামনে পাকা রাস্তার উপর অভিযানে যায়। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় করে নাইট্যংপাড়ার মোঃ হাফেজ আহমদের পুত্র মোঃ ফয়েজুল ইসলাম (২৬) এবং উত্তর গোদারবিলের শাহ নেওয়াজের স্ত্রী জামালিদা আক্তারকে (২৫) একটি শপিং ব্যাগসহ আটক করে।

স্থানীয় সূত্রে জানান, মাদককারবারী টেকনাফ সাংবাদিক ফোরামের অন্যতম সদস্য। তাকে শপিং ব্যাগটি তল্লাশী করে ২০ হাজার ১০ পিস ইয়াবা, কিছু নগদ টাকা ও আইডি কার্ড পাওয়া যায়।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, টেকনাফ সাংবাদিক ফোরামের উপদেষ্টা ও সদস্যসহ অনেকের নাম স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের মাদক তালিকার পাশাপাশি কক্সবাজার জেলা গোয়েন্দা পুলিশের করা ১ হাজার ১৫১ জনের তালিকায় অনেকের নাম রয়েছে। মন্তব্যের কলামে তাদের নামের পাশে সাংবাদিক হিসেবে লেখা আছে। এরপরও জেলা ও আঞ্চলিক এবং জাতীয় পত্রিকা মাদক তালিকাভুক্ত কিভাবে সাংবাদিকতার মহান এ পেশার পরিচয়পত্র পেয়ে সেটাই প্রশ্নবিদ্ধ। পাশাপাশি অনেকের নিকট আত্মীয় স্বজনকে রক্ষা করার জন্য ডাল হিসেবে সাংবাদিকতাকে ব্যবহার করা হচ্ছে। এমনকি, আত্মসমর্পণকারী ইয়াবা কারবারিদের মধ্যে অনেকের ভাই ও রয়েছে। এসব তালিকাভুক্ত ইয়াবা সাংবাদিকেরা জেলার বিভিন্ন আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর তথ্য আদান প্রদানের গ্রুপের মধ্যে সংযুক্ত থেকে বিভিন্ন ধরনের গোপনীয়তা ফাঁস করছে। তাদের বিরুদ্ধে এখনই ব্যবস্থা নেওয়া খুবই জরুরী। 

বিভিন্ন ধরনের সভা-সমাবেশে প্রশাসনের কর্মকর্তারা তালিকাভুক্ত ইয়াবা কারবারিদের সামাজিকভাবে বয়কট করার কথা বললেও তালিকাভুক্ত ইয়াবা সাংবাদিকদের বিষযে ভিন্নরূপ দেখা দিয়েছে।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT