টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

রোববার পার্বত্য তিন জেলায় পিবিসিপির সকাল-সন্ধ্যা হরতাল

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শনিবার, ১ জুন, ২০১৩
  • ১৪০ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

বাংলানিউজ…রোববার (২ জুন) পার্বত্য তিন জেলায় (খাগড়াছড়ি, বান্দরবান ও রাঙ্গামটি) সকাল-সন্ধ্যা হরতালের ডাক দিয়েছে পার্বত্য বাঙালি ছাত্র পরিষদ (পিবিসিপি)।

পার্বত্য চট্টগ্রাম ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তি কমিশন পার্বত্য চট্টগ্রাম ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তি কমিশন (ল্যান্ড কমিশন) সংশোধনী আইন মন্ত্রী সভায় অনুমোদনের প্রতিবাদে ও তা বাতিলের দাবিতে এ হরতালের ডাক দিয়েছে সংগঠনটি। বাংলানিউজের ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্টদের পাঠানো সংবাদ:

খাগড়াছড়ি: শনিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এই কর্মসূচির কথা জানান পিবিসিপি জেলা আহ্বায়ক আব্দুল মজিদ।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, পার্বত্য চট্টগ্রামে মোট জনগোষ্ঠির মধ্যে অর্ধেকই বাঙালি। বাঙালিদের বঞ্চিত করে শুধুমাত্র আদিবাসীদের জন্য ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তি কমিশন (সংশোধনী) আইন ২০১৩ পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে একতরফাভাবে অনুমোদন করা হলে পার্বত্যাঞ্চলে আবারও অশান্তি সৃষ্টি হবে। এখানকার বাঙালিরা রক্তের বিনিময় হলেও তাদের ভূমি নিয়ে কোনো ষড়যন্ত্র সহ্য করবে না।

পিবিসিপির পক্ষ থেকে অবিলম্বে এ খসড়া অনুমোদন প্রত্যাহারের জন্য কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানানো হয়। এতে অন্যথায় সংগঠনটি হরতালসহ কঠোর আন্দোলনের ডাক দেবে বলেও হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়।

সংগঠনটির নেতারা স্বতঃস্ফূর্তভাবে এ কর্মসূচি পালনের জন্য জেলার সব যানবাহন মালিক, শ্রমিক, ব্যবসায়ীসহ সবার সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করেছেন।

বান্দরবান: সকালে বান্দরবান প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ হরতাল কর্মসূচি ঘোষণা করে পিবিসিপি।

এসময় সংগঠনের নেতারা বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার জনসংহতি সমিতির সঙ্গে ‘কালো’ চুক্তি করে পার্বত্য জেলায় বসবাসরত বাঙালিদের ভূমি, শিক্ষা, চাকরি ও ভোটাধিকার বঞ্চিত করে দ্বিতীয় শ্রেণীর নাগরিকে পরিণত করেছে।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনটির সভাপতি মো. কামরান ফারুক। এসময় তার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল কাইয়ুম ও যুগ্ম-সম্পাদক মো. আব্দুর রহিম।

রাঙামাটি: এদিকে, একই দাবিতে রোববার রাঙামাটিতে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ডেকেছে ‘‘সম অধিকার আন্দোলন’’ নামে একটি বাঙালি সংগঠন।

এই সংগঠনের সভাপতি পেয়ার আহম্মেদ খাঁন জানান, পার্বত্য চট্টগ্রাম ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তি কমিশন সংশোধনী আইন যা মন্ত্রী সভায় অনুমোদন দেওয়া হয়েছে, তা বাস্তবায়িত হলে আমরা ভূমি অধিকার থেকে বঞ্চিত হবো। এ আইন দ্রুত প্রত্যাহারের দাবিতে আমরা হরতাল ডেকেছি। আমাদের এ দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে’’।

এর আগে ৩০ মে একই দাবিতে পার্বত্য তিন জেলায় হরতাল পালন করে এ সংগঠন।

উল্লেখ্য, এ বছরের ২৭ মে সোমবার মন্ত্রী পরিষদের সভায় পার্বত্য চট্টগ্রাম ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তি কমিশন আইন সংশোধনীর এই খসড়া প্রস্তাবটি নীতিগতভাবে অনুমোদন দেওয়া হয়।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT