টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

রিকেনের চমকের ২০ সেকেন্ড

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : রবিবার, ২৬ মে, ২০১৩
  • ২২৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

স্পোর্টস ডেস্ক: এবারের চ্যাম্পিয়ন্স লীগ শিরোপা জার্মানিতে যাচ্ছে নিশ্চিত হয়েছিল আগেই। এ ট্রফি মিউনিখ নাকি ডর্টমুন্ডে গেল দর্শক তাও দেখে ফেলেছেন গত রাতের ফাইনালে।
ইউরোপ সেরা ক্লাব আসরে ফাইনাল খেলার স্মৃতি বায়ার্নের কাছে সুলভ থাকলেও ডর্টমুণ্ডের এ স্বাদ নেয়া ছিল আগে মাত্র একবার। তবে এ ক্ষেত্রে শতভাগ সাফল্যও ডর্টমুন্ডের। প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ফাইনাল খেলেই শিরোপা হাতে তোলে এ জার্মানি ক্লাব জায়ান্ট।
চ্যাম্পিয়ন্স লীগে বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের একমাত্র শিরোপা ১৯৯৬-৯৭’র মওসুমে। আর সেবারের শিরোপায় ডর্টমুন্ডে অন্যতম নামটি জার্মান স্ট্রাইকার লার্স রিকেনের। খেলার ৭০ মিনিট পর্যন্ত ফাইনালে সুযোগ ছিলনা ডর্টমুন্ড তারকার। তবে রিকেন জানাচ্ছেন, বেঞ্চে বসে থাকাটা তার জন্য শাপেবর হয়েছিল। টানা ৭০ মিনিট বেঞ্চে বসে এ স্ট্রাইকার উদ্ধার করেন ইতালির অন্যতম সফল গোলরক্ষক অ্যাঞ্জেলো পিরুজ্জির সেদিনের দুর্বলতা। স্বদেশী ভেন্যু মিউনিখের মাঠে বসেছিল সেবারের চ্যাম্পিয়ন্স লীগ ফাইনাল। আর খেলা শেষের ২০ মিনিট আগে সুযোগ পেয়ে মাঠে নামার ২০ সেকেন্ডের মধ্যেই গোল পান রিকেন। এই গোলের আগে ২-১এ পিছিয়ে থাকা জুভেন্টাস লাগাতার আক্রমণে তোপের মুখে রেখেছিল ডর্টমুন্ড ডিফেন্সকে। কিন্তু রিকেনের গোল তখন ব্যবধানটা ৩-১এ নিয়ে গেলে উদ্যম হারায় জুভরা আর ডর্টমুন্ডেরও নিশ্চিত হয় প্রথম চ্যাম্পিয়ন্স লীগ গৌরব। সেবারের ফাইনালে প্রথমার্ধ্যে রিডলের দুই গোলে এগিয়ে যায় ডর্টমুন্ডই। তবে বিরতির পর আলেসান্দ্রো দেল পিয়েরো একগোল ফেরত দিলে খেলায় উদ্যমে ফেরে জুভেন্টাস। কিন্তু পরে জুভদের উদ্যমে রিকেন পানি ঢেলে দেন আচমকা গোলে। এবারের ফাইনালের আগে সেই স্মৃতি আরেকবার তাজা হয় রিকেনের। জানাচ্ছেন ২০ সেকেন্ডেই গোল পাওয়ার রহস্যটাও- ফাইনালে একাদশে জায়গা পাচ্ছিলাম না । সাইড বেঞ্চে বসে উদ্বিগ্ন অপেক্ষায় কাটছিল টানা ৭০ মিনিট। তবে এসময়টা আমি লক্ষ্য করলাম পিরুজ্জি গোলপোস্ট ছেড়ে বেরিয়ে পড়ছে বারবার। ৭১ মিনিটে খেলায় ডাক পেলাম আমি। ‘পিরুজ্জি গোল লানইন ছেড়ে বেরিয়ে যায়’ মাঠে যেতে যেতে এমন লাইন বারবার আওড়ে যেতে লাগলাম মনে মনে। আর খেলায় নেমে ২০ সেকেন্ডের মধ্যেই পিরুজ্জি এমনটি করলেন আবার। আমিও দূর থেকেই শট হাঁকালাম জুভেন্টাস গোলবার লক্ষ্য করে। সব ঠিক ঠিক হয়ে গেল!bbbbb

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT