টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

রাজশাহী থেকে মৌলবাদীদের ‘নিশ্চিহ্নের’ ঘোষণা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : সোমবার, ১ এপ্রিল, ২০১৩
  • ১৪৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

রাজশাহীতে গত কয়েকদিনে পুলিশের ওপর ইসলামী ছাত্রশিবিরকর্মীদের হামলার মধ্যে সোমবার সচিবালয়ে রুদ্ধদ্বার এক বৈঠকের পর তিনি সাংবাদিকদের একথা জানান।

চার ঘণ্টার ওই বৈঠকে নৌমন্ত্রী শাজাহান খান, পরিবেশমন্ত্রী হাছান মাহমুদ, স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু, আইন প্রতিমন্ত্রী কামরুল ইসলামের সঙ্গে আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব-উল আলম হানিফও ছিলেন।

মৌলবাদীদের কীভাবে ‘সমূলে উৎপাটন’ করা হবে- সাংবাদিকরা জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “দেখতে পাবেন। নিশ্চয়ই হবে (উৎপাটন)।”

যুদ্ধাপরাধীদের বিচারকে কেন্দ্র করে পুলিশের ওপর জামায়াত-শিবিরের হামলা ও হরতাল-লংমার্চের প্রাক্কালে সহিংসতার মধ্যে এই বৈঠক হলো।

 

সোমবার সকালে রাজশাহী মহানগরীর শালবাগান এলাকায় এক পুলিশকে রাস্তায় ফেলে পেটায় এবং তার অস্ত্র ছিনিয়ে নিয়ে যায় শিবিরকর্মীরা।আগের দিন রাজশাহী শহরের রানীবাজার মাদ্রাসা মার্কেটের সামনে শিবিরের ছোড়া বোমায় এক পুলিশ সদস্যের হাতের কব্জি উড়ে যায়।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “পুলিশের একজন সদস্যকে যারা বিনা উস্কানিতে এভাবে আক্রমণ করতে পারে, তারা দেশের শত্রু-জাতির শক্র।”

“আমি মনে করি, দেশদ্রোহী মৌলবাদীদের দেশ ও সমাজ থেকে উৎপাটিত না করা পর্যন্ত সাধারণ জনগণের নিরাপত্তা বিধান কঠিন হয়ে দাঁড়াবে।”

আগামী ৬ এপ্রিল হেফাজতে ইসলামের লংমার্চ নিয়ে সংগঠনটির সঙ্গে আলোচনা হয়েছে জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “আমরা একমত হয়েছি যে শান্তিপূর্ণ সমাবেশে বাধা দেয়ার কোনো যুক্তিসঙ্গত কারণ নেই। সমাবেশ শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত করার দায়িত্বের প্রতি সংগঠনটির দৃষ্টি আকর্ষণ করেছি।”

মঙ্গলবার বেলা ১২টায় আইন মন্ত্রণালয়ে হেফাজতে ইসলামের কর্মসূচি নিয়ে সভা করে এ বিষয়ে সরকোরের অবস্থান ও করণীয় সম্পর্কে এবং সমাবেশকারী সংগঠনের প্রত্যাশিত দায়িত্ব সম্পর্কে জানানো হবে।

বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোটের মঙ্গলবারের  হরতাল নিয়েও বৈঠকে আলোচনা হয়েছে বলে জানান মহীউদ্দীন আলমগীর।

 

তিনি বলেন, “বিএনপি-জামায়াত অযৌক্তিকভাবে হরতাল আহ্বান করেছে।”রোববার রাতে খালেদা জিয়ার গুলশানের কার্যালয়ের সামনে বিএনপির ও তাদের সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরাই গুলি ছুড়েছে বলে দাবি করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

তিনি বলেন, “আমাদের কাছে যেসব তথ্য এসেছে তাতে দেখা যায় বিএনপি এবং তাদের সহযোগী ১৮ দল নিজেরাই গোলাগুলি করে হরতালের অনুকুলে জনসমর্থন আনার অপচেষ্টা করেছে।”

দুষ্কৃতকারীদের ধরা এবং তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ পদক্ষেপ নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলেও জানান মন্ত্রী।

বেলা সাড়ে ১২টা থেকে বিকেল সোয়া ৫টা পর্যন্ত মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীদের নিয়ে বৈঠকের পর নিজের দপ্তরে র‌্যাবের মহাপরিচালক মোখলেছুর রহমানের সঙ্গেও একান্তে বৈঠক করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT