টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

মেসির আরেকটি পুরস্কার – মেসি ৩০০*

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৩০ অক্টোবর, ২০১২
  • ১৫৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

টেকনাফ নিউজ ডেস্ক : তার জীবনে পুরস্কার নতুন কিছু নয়। গত মৌসুমে ইউরোপের লিগগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি গোল করার সুবাদে দ্বিতীয় বারের মতো গোল্ডেন বুট পুরস্কার জিতে নিয়েছেন লিওনেল মেসি।
বার্সেলোনা স্প্যানিশ লা লিগা কিংবা উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা না জিততে পারলেও গত মৌসুমে মেসির গোল-বন্যা ভেঙ্গে দিয়েছিল দু-দুটো রেকর্ড।
প্রথমটি তার সবচেয়ে বড় প্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর লা লিগায় ৪৬ গোলের রেকর্ড। ৫০ গোল করে আগের মৌসুমেই গড়া রোনালদোর কীর্তিকে ম্লান করেও থেমে থাকেননি, ইউরোপের লিগগুলোর মধ্যে জার্মান-কিংবদন্তি জার্ড মুলারের এক মৌসুমে গড়া ৬৭ গোলের রেকর্ডও ভেঙ্গে দিয়েছিলেন। মৌসুম শেষ করেছিলেন বিশ্ব রেকর্ড গড়া ৭৩ গোল নিয়ে।
২০০৯-১০ মৌসুমে প্রথম বারের মতো গোল্ডেন বুট বিজয়ী মেসি আবারো পুরস্কারটি হাতে পেয়ে দারুণ খুশি। সতীর্থদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে গত তিন বারের ফিফা বর্ষসেরা ফুটবলার বলেন, “এটি গোল করার পুরস্কার ঠিকই, তবে সতীর্থদের সাহায্য ছাড়া আমি গোলগুলো করতে পারতাম না।”
শনিবার রায়ো ভালেকানোর বিপক্ষে দুই গোল করে ক্যারিয়ারের গোল-সংখ্যাকে ৩০১-এ নিয়ে যাওয়া মেসি আরো বলেন, “দ্বিতীয় বারের মতো গোল্ডেন বুট জিতে আমি খুবই খুশি। যদিও ব্যক্তিগত ট্রফির জন্য আমি লড়াই করি না। আমি খেলি দলীয় ট্রফি জয়ের লক্ষ্যে।” সর্বকালের অন্যতম সেরা ফুটবলার পেলে অনেক আগে বলেছেন, মেসিকে ‘সর্বকালের সেরা’ হতে গেলে তার মতো এক হাজার গোল করতে হবে! পেলে এক হাজার গোল করতে পেরেছিলেন কি না তা নিয়ে বিতর্ক আছে। কিন্তু একেবারে সবার চোখের সামনে নিজের ৩০০তম গোলটি করে ‘এক হাজার’-এর পথে এগিয়ে গেলেন আর্জেন্টাইন সুপারস্টার লিওনেল মেসি। ভায়েকানোর বিপক্ষে এই মাইলফলক স্পর্শ করার দিনে জোড়া গোল করেছেন ২৫ বছর বয়সী এই ফুটবলার। তার দুই গোলের সুবাদে স্প্যানিশ লা লিগায় বার্সা ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে রায়ো ভায়েকানোকে।
বাঁ পায়ের অনবদ্য শটে একের পর এক রেকর্ড গড়ে যাচ্ছেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক মেসি। ফুটবল ক্যারিয়ারে রায়ো ভায়েকানোর জালে দু’বার বল জড়ানোর মধ্যদিয়ে ৩০১টি গোল করার রেকর্ড পূর্ণ করেছেন তিনি। সবমিলে ৪১৯ ম্যাচ খেলে বার্সার হয়ে ২৭০ এবং আর্জেন্টিনার পক্ষে করেছেন ৩১ গোল। ২০১২ সালেও দারুণ পারফরমেন্স করছেন মেসি। এরই মধ্যে স্প্যানিশ লিগে ১৩টি গোল করেছেন। আর সবধরনের প্রতিযোগিতা মিলে এক মৌসুমে জালে বল জড়িয়েছেন ৭৩ বার। ব্রাজিলের পেলে ও জার্মানির গার্ড মুলারের থেকে পিছিয়ে আছেন তিনি। ১৯৫৯ সালে ক্লাব সান্তোসের হয়ে এক মৌসুমে ৭৫টি গোল করেন ব্রাজিলের কিংবদন্তী ফুটবলার পেলে। আর বায়ার্ন মিউনিখের হয়ে ১৯৭২ সালে ৮৫টি গোল করেন মুলার। মেসির জ্বলে ওঠার দিনে গোল পেয়েছেন ভিয়া, ফ্যাব্রিগাস ও জাভি।
নিজেদের মাঠে প্রথমার্ধে দুরন্ত বার্সাকে দারুণভাবে সামলেছে ভায়েকানো। এই অর্ধে একটি গোল করে সফরকারীরা। ২০ মিনিটে ফ্যাব্রিগাসের পাস থেকে গোল করেন ফরোয়ার্ড ডেভিড ভিয়া। বিরতির পর ক্ষুধার্ত বার্সাকে আর আটকাতে পারেনি স্বাগতিকরা। এই অর্ধে গুনে গুনে তাদের জালে চারবার বল পাঠিয়েছে বার্সা। দু’টি গোল করেন তিনবার ফিফা ব্যালন ডি’ওরের পুরস্কার জেতা মেসি। এছাড়া একটি করে গোল করেন জাভি ও ফ্যাব্রিগাস। এ জয়ে ৯ ম্যাচে ২৫ পয়েন্ট নিয়ে তালিকায় সবার ওপরে রয়েছে তিতো ভিলানোভার দল বার্সা।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT