টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
মডেল মসজিদগুলোয় যোগ্য আলেম নিয়োগের পরামর্শ র্যাবের জালে ধরা পড়লেন টেকনাফ সাংবাদিক ফোরামের সদস্য ও ইয়াবা কারবারি বিপুল পরিমাণ টাকা ও ইয়াবা উদ্ধার রোহিঙ্গাদের তথ্য মিয়ানমারে পাচার করছে জাতিসংঘ: এইচআরডব্লিউ প্রশাসনে তিন লাখ ৮০ হাজার পদ শূন্য গোদারবিলের জামালিদা ও নাইট্যংপাড়ার ফয়েজ ইয়াবা ও নগদ টাকাসহ গ্রেপ্তার পরীমনির কান্না অথবা নিখোঁজ ইসলামি বক্তা এসএসসি-এইচএসসির পরীক্ষার সিদ্ধান্ত পরিস্থিতি দেখে : শিক্ষামন্ত্রী টেকনাফে পাহাড় ধ্বসে ৩৩ জনের মর্মান্তিক মৃত্যুর ট্রাজেডি আজ পড়ে আছে বিলাসবহুল বাড়ি,নেই দাবিদার শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ লম্বাবিলে বাস—সিএনজির মুখোমুখী সংঘর্ষে রোহিঙ্গাসহ ২ জন নিহত

মিয়ানমার ফেরত ৯৭ জন বাড়ীর পথে: ১০৩ দালাল শনাক্ত

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, ১৪ অক্টোবর, ২০১৫
  • ১০৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

নেছার আহমদ, কক্সবাজার…

মিয়ানমার থেকে ষষ্ঠ দফায় ফেরত আনা ১০৩ জনের মধ্যে ৯৭ জন এখন বাড়ীর পথে। বুধবার সকালে কক্সবাজার সাংস্কৃতিক কেন্দ্র থেকে স্বপ্ন ভঙ্গ ও প্রতারনার শিকার এ ৯৭ জন বাড়ীর পথে রওনা দেন।
মৃত্যুর দরজা থেকে ফেরত আসা এ ১০৩ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে ১৮ জেলার ১০৩ জন দালালের পরিচয় শনাক্ত করা হয়েছে। তৎমধ্যে কক্সবাজার জেলার ২৮ জন দালাল রয়েছে।
ফেরত আনা ১০৩ জনের মধ্যে অপ্রাপ্ত বয়স্ক ৬ জনকে আদালতের নির্দেশনায় রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি কক্সবাজার জেলা ইউনিটের জিম্মায় অভিভাবকদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে অপ্রাপ্ত বয়স্কদের বিষয়ে নির্দেশনা জানতে কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে হাজির করা হলে বিচারক অরুণ পাল এই আদেশ প্রদান করেন। আদালতের নির্দেশনায় মঙ্গলবার রাতে এ ৬ জনকে নিয়ে রওনা দেয়া হয়।
গত সোমবার মিয়ানমারে এক পতাকা বৈঠক শেষে ঘুমধুম সীমান্ত দিয়ে ১০৩ জনকে ফেরত আনে বাংলাদেশের ২১ জনের প্রতিনিধি দল।
কক্সবাজারের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার ছত্রধর ত্রিপুরা জানান, মিয়ানমার থেকে ১০৩ জনকে ফেরত আনার পর তাদের কক্সবাজার সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে রাখা হয়। পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থার লোকজন তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চালিয়ে ১৮ জেলার ১০৩ জন দালালের পরিচয় শনাক্ত করা হয়েছে। তৎমধ্যে কক্সবাজার জেলার ২৮ জন দালাল রয়েছে। সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে তাদের আইওএম এর সহায়তায় নিজ নিজ জিন্মায় বাড়ী পৌঁছানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। বুধবার সকালে তারা বাড়ীর পথে রওনা দিয়েছে।
পুলিশের এ কর্মকর্তা জানান, ১৮ জেলার স্ব-স্ব থানায় ১০৩ দালালের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হবে। ইতিপুর্বে যেসব দালালের পরিচয় শনাক্ত করে মামলা দায়ের করা হয়েছে তাদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হচ্ছে।
আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম) এর ন্যাশনাল প্রোগ্রাম অফিসার আসিফ মুনীর জানান, ফেরত আনা ১০৩ জনের মধ্যে প্রাপ্ত বয়স্ক ৯৭ জনকে নিজ জিম্মায় বাড়ী পৌছে দেয়ার জন্য ব্যবস্থা করা হয়েছে। এদের বাড়ি পৌঁছানোর জন্য আর্থিক সহায়তার ব্যবস্থা করেছে আইওএম। বুধবার সকালে এ ৯৭ জন বাড়ীর পথে রওনা দিয়েছে। এর পুর্বে অপ্রাপ্ত বয়স্ক ৬ জনকে আদালতের নির্দেশনায় রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি কক্সবাজার জেলা ইউনিটের জিম্মায় অভিভাবকদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।
এর আগে ৮ ও ১৯ জুন, ২২ জুলাই, ১০ ও ২৫ আগষ্ট ৫ দফায় শনাক্ত হওয়া ৬২৬ জন বাংলাদেশীকে ফেরত আনা হয়। গত ২১ মে ২০৮ জন ও ২৯ মে ৭২৭ জন অভিবাসি প্রত্যাশীকে মিয়ানমারের জলসীমা থেকে উদ্ধার করেছিল সে দেশের নৌ বাহিনী। এরপর বাংলাদেশী হিসেবে দাবী করা তালিকা নিয়ে কাজ করে উভয় দেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। ওই তালিকায় শনাক্ত হওয়া বাংলাদেশীদের পর্যায়ক্রমে ফেরত আনা হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় মিয়ানমারের জলসীমা থেকে সাগরে ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার হওয়াদের মধ্যে বাংলাদেশি হিসেবে শনাক্ত হওয়া ৬ষ্ট বারের মতো ১০৩ জন সহ সর্বমোট ফেরত আনা হয় ৭২৯ জনকে।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT