টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

মহেশাখালীর চরপাড়ায় জলবায়ু বিষয়ক এসএআরপিভি’র মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২৮ মে, ২০১৩
  • ১১২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

মোহাম্মদ সিরাজুল হক সিরাজ=স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এসএআরপিভি মহেশখালী শাখার উদ্দ্যোগে গতকাল ২৮মে বিকাল ৩ ঘটিকায় মহেশখালী উপজেলার পৌরসভার চরপাড়া সরকারি প্রাথমিক জলবায়ু বিষয়ক এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসএআরপিভি সূত্রে জানা যায়, বাংলাদেশ সরকারের পরিবেশ ও বন মন্ত্রাণালয়ের ক্লাইমেট চেঞ্জ ইউনিটের অধীনে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এসএআরপিভি মহেশখালী উপজেলার ছোট মহেশখালী ইউনিয়ন ও মহেশখালী পৌরসভায় প্রতিবন্ধী ও হতদ্ররিদ্র জনগোষ্ঠিদের নিয়ে “উরংধংঃবৎ জরংশ জবফঁপঃরড়হ ঞযৎড়ঁময ঈড়সসঁহরঃু অপঃরড়হ” নামক একটি প্রকল্প বাস্তবায়ন করার লক্ষ্যে ধারাবাহিকভাবে এক মতবিনিময় সভার আয়োজন করে। প্রনব কুমার দে’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সামাজিক ব্যক্তিত্ব ও দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি মাষ্টার জামাল উদ্দিন, বিশেষ অতিথি ছিলেন চরপাড়া জামে মসজিদের সভাপতি ও শিক্ষানুরাগী মাহমুদুল হক, প্রধান শিক্ষিকা ছাবেকুন্নাহার এবং এলাকার স্থানীয় জনগণ। প্রকল্প ইনচার্জ প্রনব কুমার দে তাঁহার বক্তব্যে  প্রকল্পের উদ্দেশ্যে সম্পর্কে বলেন, জলবায়ুর পরিবর্তন বর্তমান বিশ্বের জন অন্যতম বড় হুমকি হিসেবে উপনীত হয়েছে। জলবায়ু পরিবর্তনের সবচেয়ে বড় কারণ বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধি। যার ফলে আবহাওয়া পরিবর্তিত হচ্ছে,সমুদ্রে পৃষ্ঠের পানির উচ্চতা বৃদ্ধি পাচেছ এবং বিশ্ব ক্রমাগত দুর্যোগের সম্মুখীন হচেছ। এছাড়া বৈশ্বিক উষ্ণতা বেড়ে যাওয়ার ফলে বায়ুমন্ডলের তাপমাত্রা বৃদ্ধি প্রধান কারণ গ্রিন হাউস প্রতিক্রিয়া। মানব সৃষ্ট দূষণ এবং বনভূমি উজাড় করার ফলে বায়ুমন্ডলে গ্রিন হাউস গ্যাসের পরিমাণ আশংখাজনকভাবে বেড়ে গেছে, যা কার্বন-ডাই অক্্রাইড, মিথেন ও নাইট্রাস অক্সাইডের সমন্বয়ে গঠিত। কারণ বিকরিত তাপশক্তি পুনরায় বায়ুমন্ডলে ফিরে যাওয়ার পথে বাধাপ্রাপ্ত হচ্ছে,আর ঠিক এভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে পৃথিবী তথা বায়ুমন্ডলের। এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে-পরিবেশ বিপর্যয়ের ফলে এই গ্রহের সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ হিসেবে আবির্ভূত হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধি পাওয়ার ফলে যে সব দেশ সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে,বাংলাদেশ তার মধ্যে অন্যতম- অভিমত পরিবেশ বিজ্ঞানীদের। সাম্প্রতিক সময়ে ঘন ঘন প্রাকৃতিক দুর্যোগের লক্ষণ মূলত জলবায়ু পরিবর্তনের কারণেই হচ্ছে। বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধির ফলে বাংলাদেশর সম্ভাব্য ভয়াবহ পরিণতি সমূহ হল: সমুদ্র পৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধি, মরুকরণ, নিু ভূমিতে প¬াবন, জীববৈচিত্র ধ্বংস, নদনদীর প্রবাহ হ্রাস, পানির লবণাক্ততা বৃদ্ধি, নদী ভাঙন, খরা, সামুদ্রিক ঝড় ও জলোচ্ছ্বাস। এই সুন্দর ধরণীকে রক্ষা করতে হলে এবং আগামী দিনের জন্য বাসযোগ্য করতে হলে আমাদের সবার সচেতন হওয়া দরকার। মানবজাতি একদিকে সভ্যতার চরম শিখরে আরোহণ করেছে, আর অন্যদিকে বিপর্যস্তের সম্মুখীন করছে পৃথিবীকে। যার যার অবস্থান থেকে পরিবেশ বিপর্যয় সর্ম্পকে সচেতন ও কৌশলগতভাবে অবস্থানের মাধ্যমে আমাদের পৃথিবীকে রক্ষা করতে হবে। এতে আপনাদের সহযোগিতা কামনা করছি। মতবিনিময় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন- এসএআরপিভির আখতার ইমাম, নুরুল আলম, আসমাউল হুসনা নিশাত, আবদুল মালেক সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, প্রতিবন্ধী ব্যক্তি ও তাদের অভিভাবক।মহেশখালীতে আইন শৃংখলা সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত
মোহাম্মদ সিরাজুল হক সিরাজ, মহেশখালী (কক্সবাজার)- ২৮মে/২০১৩ইং
মহেশখালীতে আইন শৃংখলা সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ২৮মে সকাল ১১ ঘটিকার সময় মহেশখালী উপজেলা সম্মেলন কক্ষে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আনোয়ারুল নাসির এর সভাপতিত্বে উক্ত অনুষ্ঠান শুরু হয়। পবিত্র কোরআন তেলওয়াতের মধ্য দিয়ে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মহেশখালী উপজেলা চেয়ারম্যান আবু বক্কর ছিদ্দিক। উক্ত সভায় বক্তব্য রাখেন মহেশখালী থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ হাবিবুর রহমান,  উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান এডভোকেট মোস্তাক আহমদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শামীম আরা দুলালী, মহেশখালী উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আনোয়ার পাশা চৌধুরী, মহেশখালী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এম. আজিজুর রহমান, মহেশখালী পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব মকছুদ মিয়া, মাতার বাড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এনামুল হক রুহুল, কুতুবজোম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মৌঃ শফিউল আলম, কালারমারছড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মীর কাসেম, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সালেহ আহমদ, মহেশখালী উপজেলায় বিভিন্ন বিভাগে কর্মরত দায়িত্বশীল অফিসার বৃন্দ, মহেশখালী বিভিন্ন ইউনিয়নের সরকারি সচিব, এনজিও সংস্থার কর্মকর্তা বৃন্দ উপস্থিত বক্তব্য রাখেন। উপস্থিত বক্তারা তাদের বক্তব্যে বলেন, আইনশৃংখলা কোন ধরনের বিঘœ সৃষ্টি না হয় সেদিকে সবাইকে সতর্ক নজর রাখতে হবে। যেন যান মালের দায় দায়িত্ব সরকার একার নয় এতে জনপ্রতিনিধি এবং দেশপ্রেমিক জনগণ সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে। কোন ধরনের প্রতিবন্ধকতা বর্দাস্ত করা হবে না। সভাপতি তার বক্তব্যে বলেন, আমরা সবাই মহেশখালীর উন্নয়ন খাত বৃদ্ধি করি এবং আইন শৃংখলা শান্তিতে বজায় রাখি। প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, যেকোন বিনিময়ে আইন শৃংখলা রক্ষা করতে হবে।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT