টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :

মহেশখালীতে মাদ্রাসা পড়য়া ছাত্রীকে ইভটিজিংয়ে বাধা দেওয়াতে বখাটের বসতবাড়ীতে হামলা

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : রবিবার, ৭ জুলাই, ২০১৩
  • ১১০ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

মোহাম্মদ সিরাজুল হক সিরাজ *** মহেশখালীতে মাদ্রাসা পড়–য়া ছাত্রীকে ইভটিজিংয়ে বাধা দেওয়াতে ঐ ছাত্রীর বাড়ী ঘর ভাংচুর করেছে স্থানীয় বখাটে যুবকরা। পৌরসভাস্থ গোরকঘাটা চরপাড়া মৃত আব্দুল গফুরের স্ত্রী আক্তার বেগম তার স্বামীর মৃত্যুর পর থেকে প্রায় ৪ বছর যাবত তার ৩টি ছেলে ও ২টি মেয়ে সন্তান নিয়ে মানুষের বাসা বাড়ীতে কাজ কর্ম করিয়া লালন পালন করিয়া আসিতেছিল। এদিকে তার মেয়ে নাহিদ পারভিন (১৩) দক্ষিণ নলবিলা তৈয়বিয়া দাখিল মাদ্রাসায় ৫ম শ্রেণীতে নিয়মিত পড়াশোনা করে আসছিল। পৌরসভাস্থ স্থানীয় চরপাড়ার বখাট যুবক ছলিমুল্লাহর পুত্র শেফায়ত উল্লাহ (২৫) মাদ্রাসায় আসা যাওয়াকালীন সময়ে অবৈধ ধরনের কথাবার্তা বলিয়া নাহিদা পারভিনকে উক্ত্যক্ত করিয়া আসিতেছিল। নাহিদা পারভিন বখাট শেফায়ত উল্লাহর উক্তাক্ত যন্ত্রনা সহ্য করিতে না পারিয়া নাহিদার মা আক্তার বেগমকে ঘটনা সম্বন্ধে জানায়। নাহিদার মা আক্তার বেগম এ বিষয়ে শেফায়ত উল্লাহর পিতা ছলিমুল্লাহ ও শেফায়ত উল্লাহর পরিবারের সবাইকে জানায় এবং তার মেয়ে নাহিদাকে উক্তাক্ত না করার অনুরোধ জানায়। এতে শেফায়ত উল্লাহ ক্ষিপ্ত হয়ে রাত্রি কালীন সময়ে নাহিদার বাড়ীতে গিয়ে অশালীনা গালিগালাজ ও ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে। এ ব্যাপরে এলাকাবাসী, পাড়ালিয়া লোকজনকে নাহিদা পারভিনের মা আক্তার বেগম জানায়। এতে শেফায়ত উল্লাহ ক্ষিপ্ত হয়ে তার পরিবারের লোকজন ও সাঙ্গপাঙ্গ সহ ৭ জুলাই সকাল ১০ টায় অতর্কিতভাবে নাহিদা পারভিনের বাড়ীতে নাহিদাকে অপহরণ করিয়া নিয়ে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাড়ীঘর ভাংচুর, মারধর, রক্তাক্ত আহত ও নারীর শ্লীলতা হানি করে। পরবর্তিতে বখাটেরা চলে যাওয়ার সময় বাড়ীতে থাকা আলমিরা ভাঙ্গিয়া ৩০ হাজার টাকা লুট করিয়া নিয়া যায়। এলাকাবাসীরা মমুর্ষ অবস্থায় নাহিদা পারভিন, তার মা ও ভাইবোনদের উদ্ধার করে মহেশখালী হাসপাতালে চিকিৎসার ব্যবস্থা করে। এর পর নাহিদার মা আক্তার বেগম বাদী হয়ে মহেশখালী থানায় ৭ জনের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। এদিকে মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ হাবিবুর রহমান থেকে জানতে চাইলে তিনি জানান, লিখিত অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। মোহাম্মদ সিরাজুল হক সিরাজ ::::মহেশখালীতে মাদ্রাসা পড়–য়া ছাত্রীকে ইভটিজিংয়ে বাধা দেওয়াতে ঐ ছাত্রীর বাড়ী ঘর ভাংচুর করেছে স্থানীয় বখাটে যুবকরা। পৌরসভাস্থ গোরকঘাটা চরপাড়া মৃত আব্দুল গফুরের স্ত্রী আক্তার বেগম তার স্বামীর মৃত্যুর পর থেকে প্রায় ৪ বছর যাবত তার ৩টি ছেলে ও ২টি মেয়ে সন্তান নিয়ে মানুষের বাসা বাড়ীতে কাজ কর্ম করিয়া লালন পালন করিয়া আসিতেছিল। এদিকে তার মেয়ে নাহিদ পারভিন (১৩) দক্ষিণ নলবিলা তৈয়বিয়া দাখিল মাদ্রাসায় ৫ম শ্রেণীতে নিয়মিত পড়াশোনা করে আসছিল। পৌরসভাস্থ স্থানীয় চরপাড়ার বখাট যুবক ছলিমুল্লাহর পুত্র শেফায়ত উল্লাহ (২৫) মাদ্রাসায় আসা যাওয়াকালীন সময়ে অবৈধ ধরনের কথাবার্তা বলিয়া নাহিদা পারভিনকে উক্ত্যক্ত করিয়া আসিতেছিল। নাহিদা পারভিন বখাট শেমহেশখালীতে মাদ্রাসা পড়–য়া ছাত্রীকে ইভটিজিংয়ে বাধা দেওয়াতে বখাটের বসতবাড়ীতে হামলা মোহাম্মদ সিরাজুল হক সিরাজ ::::মহেশখালীতে মাদ্রাসা পড়–য়া ছাত্রীকে ইভটিজিংয়ে বাধা দেওয়াতে ঐ ছাত্রীর বাড়ী ঘর ভাংচুর করেছে স্থানীয় বখাটে যুবকরা। পৌরসভাস্থ গোরকঘাটা চরপাড়া মৃত আব্দুল গফুরের স্ত্রী আক্তার বেগম তার স্বামীর মৃত্যুর পর থেকে প্রায় ৪ বছর যাবত তার ৩টি ছেলে ও ২টি মেয়ে সন্তান নিয়ে মানুষের বাসা বাড়ীতে কাজ কর্ম করিয়া লালন পালন করিয়া আসিতেছিল। এদিকে তার মেয়ে নাহিদ পারভিন (১৩) দক্ষিণ নলবিলা তৈয়বিয়া দাখিল মাদ্রাসায় ৫ম শ্রেণীতে নিয়মিত পড়াশোনা করে আসছিল। পৌরসভাস্থ স্থানীয় চরপাড়ার বখাট যুবক ছলিমুল্লাহর পুত্র শেফায়ত উল্লাহ (২৫) মাদ্রাসায় আসা যাওয়াকালীন সময়ে অবৈধ ধরনের কথাবার্তা বলিয়া নাহিদা পারভিনকে উক্ত্যক্ত করিয়া আসিতেছিল। নাহিদা পারভিন বখাট শেফায়ত উল্লাহর উক্তাক্ত যন্ত্রনা সহ্য করিতে না পারিয়া নাহিদার মা আক্তার বেগমকে ঘটনা সম্বন্ধে জানায়। নাহিদার মা আক্তার বেগম এ বিষয়ে শেফায়ত উল্লাহর পিতা ছলিমুল্লাহ ও শেফায়ত উল্লাহর পরিবারের সবাইকে জানায় এবং তার মেয়ে নাহিদাকে উক্তাক্ত না করার অনুরোধ জানায়। এতে শেফায়ত উল্লাহ ক্ষিপ্ত হয়ে রাত্রি কালীন সময়ে নাহিদার বাড়ীতে গিয়ে অশালীনা গালিগালাজ ও ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে। এ ব্যাপরে এলাকাবাসী, পাড়ালিয়া লোকজনকে নাহিদা পারভিনের মা আক্তার বেগম জানায়। এতে শেফায়ত উল্লাহ ক্ষিপ্ত হয়ে তার পরিবারের লোকজন ও সাঙ্গপাঙ্গ সহ ৭ জুলাই সকাল ১০ টায় অতর্কিতভাবে নাহিদা পারভিনের বাড়ীতে নাহিদাকে অপহরণ করিয়া নিয়ে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাড়ীঘর ভাংচুর, মারধর, রক্তাক্ত আহত ও নারীর শ্লীলতা হানি করে। পরবর্তিতে বখাটেরা চলে যাওয়ার সময় বাড়ীতে থাকা আলমিরা ভাঙ্গিয়া ৩০ হাজার টাকা লুট করিয়া নিয়া যায়। এলাকাবাসীরা মমুর্ষ অবস্থায় নাহিদা পারভিন, তার মা ও ভাইবোনদের উদ্ধার করে মহেশখালী হাসপাতালে চিকিৎসার ব্যবস্থা করে। এর পর নাহিদার মা আক্তার বেগম বাদী হয়ে মহেশখালী থানায় ৭ জনের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। এদিকে মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ হাবিবুর রহমান থেকে জানতে চাইলে তিনি জানান, লিখিত অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ফায়ত উল্লাহর উক্তাক্ত যন্ত্রনা সহ্য করিতে না পারিয়া নাহিদার মা আক্তার বেগমকে ঘটনা সম্বন্ধে জানায়। নাহিদার মা আক্তার বেগম এ বিষয়ে শেফায়ত উল্লাহর পিতা ছলিমুল্লাহ ও শেফায়ত উল্লাহর পরিবারের সবাইকে জানায় এবং তার মেয়ে নাহিদাকে উক্তাক্ত না করার অনুরোধ জানায়। এতে শেফায়ত উল্লাহ ক্ষিপ্ত হয়ে রাত্রি কালীন সময়ে নাহিদার বাড়ীতে গিয়ে অশালীনা গালিগালাজ ও ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে। এ ব্যাপরে এলাকাবাসী, পাড়ালিয়া লোকজনকে নাহিদা পারভিনের মা আক্তার বেগম জানায়। এতে শেফায়ত উল্লাহ ক্ষিপ্ত হয়ে তার পরিবারের লোকজন ও সাঙ্গপাঙ্গ সহ ৭ জুলাই সকাল ১০ টায় অতর্কিতভাবে নাহিদা পারভিনের বাড়ীতে নাহিদাকে অপহরণ করিয়া নিয়ে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাড়ীঘর ভাংচুর, মারধর, রক্তাক্ত আহত ও নারীর শ্লীলতা হানি করে। পরবর্তিতে বখাটেরা চলে যাওয়ার সময় বাড়ীতে থাকা আলমিরা ভাঙ্গিয়া ৩০ হাজার টাকা লুট করিয়া নিয়া যায়। এলাকাবাসীরা মমুর্ষ অবস্থায় নাহিদা পারভিন, তার মা ও ভাইবোনদের উদ্ধার করে মহেশখালী হাসপাতালে চিকিৎসার ব্যবস্থা করে। এর পর নাহিদার মা আক্তার বেগম বাদী হয়ে মহেশখালী থানায় ৭ জনের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। এদিকে মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ হাবিবুর রহমান থেকে জানতে চাইলে তিনি জানান, লিখিত অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT