টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

ফিরার অনিশ্চয়তার দিকে ৫৯ বাংলাদেশি

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, ১৪ অক্টোবর, ২০১৫
  • ১২১ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

কক্সবাজার প্রতিনিধি…

 স্বপ্নভঙ্গ ও প্রতারণার তালিকায় নিজের নাম যুক্ত করে অবশেষে সাত মাস পর ঘরে ফিরেছেন মিয়ানমার ফেরত ১০৩ বাংলাদেশি।  আদালতের নির্দেশে রেড ক্রিসেন্টের জিম্মায় রাখা ছয় শিশুকে ইতিমধ্যেই স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। অপর ৯৭ জনকে বুধবার দুপুরে নিজ জিম্মায় ছেড়ে দেয় পুলিশ।
এদিকে আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা মিয়ানমারে আর কোনো বাংলাদেশি নেই বলে জানালেও ফেরত আসা বাংলাদেশিরা বলছে, মিয়ানমারে আরো ৫৯ বাংলাদেশি রয়েছে।
সাগর পথে মালয়েশিয়া যাওয়ার সময় মিয়ানমারের জলসীমা থেকে সাগরে ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার হয় গত ২১ মে ২০৮ জন এবং ২৯ মে আরো ৭২৭ জন অভিবাসী প্রত্যাশীদের উদ্ধার করে দেশটির নৌবাহিনী। উদ্ধার হওয়া এসব অভিবাসন প্রত্যাশীদের মিয়ানমার প্রথম থেকে বাংলাদেশি নাগরিক বলে দাবি জানিয়ে আসছিল।
এদের মধ্যে বাংলাদেশি হিসেবে শনাক্তদের ৮ জুন, ১৯ জুন, ২২ জুলাই, ১০ আগষ্ট ও ২৫ আগস্ট পাঁচ দফায় দেশে ফেরত আনা হয় ৬২৬ জনকে। ষষ্ঠ দফায় আনা ১০৩ জনসহ এ পর্যন্ত দেশে ফেরত আনা হয়েছে ৭২৯ জনকে।
আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার দেওয়া তথ্য মতে, মিয়ানমারে আর কোন বাংলাদেশি অভিবাসী নেই। কিন্তু এরপরও ছেলে এবং ভাইয়ের জন্য কক্সবাজার সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে ঘুরছেন শহরের মধ্যম কুতুবদিয়া পাড়ার ছফুরা খাতুন ও রামু উপজেলার গর্জনিয়া এলাকার কলিম উল্লাহ। এসব স্বজনরা বলছেন তাদের সন্তান মালয়েশিয়া গিয়ে নিখোঁজ রয়েছে।

ছফুরা খাতুন বলেন, ‘দালালের হাত ধরে তিন বছর আগে আমার ছেলে রমজান আলী টেকনাফ সমুদ্র পথ দিয়ে মালয়েশিয়ায় যায়। এখনো পর্যন্ত তার কোন খোঁজ খবর পাওয়া যায়নি।’ এ ব্যাপারে থানায় ও বিজিবিকে জানানো হয়েছে দেড় বছর আগে। কিন্তু তার কোন খবর নেয়। তাই বা বার ছেলের সন্ধানে কক্সবাজার সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে চলে আসি। কিন্তু এবারও আমার ছেলেকে পাওয়া গেল না।’কলিম উল্লাহ বলেন, ‘ভাই দুদু মিয়াকে পাওয়া যায় কিনা এ জন্য কক্সবাজার সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে আসি। কিন্তু এবারও পাওয়া গেল না।’ এদিকে নিখোঁজদের সম্পর্কে কোন তথ্য নেই জেলা প্রশাসনের কাছে। মিয়ানমার থেকে ফেরত আনার প্রক্রিয়া শেষ ও এ ঘটনায় জড়িত ১০৩ দালাল শনাক্ত করেছে পুলিশ।

কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের অতিরিক্তি জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আবদুস সোবহান বলেন, ষষ্ঠ দফায় মিয়ানমার ফেরত ১০৩ বাংলাদেশিকে ঘরে পৌঁছানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। এনিয়ে মোট ৭২৯ জন বাংলাদেশিকে মিয়ানমার ফেরত আনা হয়েছে। তবে সমুদ্রপথে মালয়েশিয়া যাওয়ার সময় কত নিখোঁজ রয়েছে তার কোন তথ্য নেই।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT