টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
বাহারছড়া শামলাপুর নয়াপাড়া গ্রামের “হাইসাওয়া” প্রকল্পের মাধ্যমে সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ ও বার্তা প্রদান প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ঘর উদ্বোধন উপলক্ষে টেকনাফে ইউএনও’র প্রেস ব্রিফ্রিং টেকনাফের ফাহাদ অস্ট্রেলিয়ায় গ্র্যাজুয়েট ডিগ্রী সম্পন্ন করেছে নিখোঁজের ৮ দিন পর বাসায় ফিরলেন ত্ব-হা মিয়ানমারে পিডিএফ-সেনাবাহিনী ব্যাপক সংঘর্ষ ২শ’ বাড়ি সম্পূর্ণ ধ্বংস বিল গেটসের মেয়ের জামাই কে এই মুসলিম তরুণ নাসের রোহিঙ্গাদের এনআইডি কেলেঙ্কারি : নির্বাচন কমিশনের পরিচালকের বিরুদ্ধে দুপুরে মামলা, বিকালে দুদক কর্মকর্তা বদলি সড়কের কাজ শেষ হতে না হতেই উঠে যাচ্ছে কার্পেটিং! আপনি বুদ্ধিমান কি না জেনে নিন ৫ লক্ষণে ৫৫ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশি ভোটার: নিবন্ধিত রোহিঙ্গাও ভোটার! ইসি পরিচালকসহ ১১ জন আসামি

প্রেমের ফাঁদে ফেলে হত্যার আসামী আটক

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ৯ অক্টোবর, ২০১৫
  • ৮৬ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

এস.এম.ছগির আহমদ আজগরী, পেকুয়া= পেকুয়ায় আলোচিত জাফর হত্যার সন্দেহ ভাজন এক আসামীকে আটক করে পুলিশে সৌপর্দ্দ করেছে জনতা। ধৃত আসামীর নাম জসিম উদ্দিন(২৮)। সে উপজেলার রাজাখালী ইউনিয়নের সুন্দরীপাড়া এলাকার আফজল আহমদের পুত্র। জানা যায়, নিহত জাফর আলমের পুত্র তারেকের স্ত্রী কৌশলে তার সাথে প্রেমের ফাঁদে ফেলে ধৃতকে পেকুয়া বাজারে আসতে বলেন। জসিম ওই মহিলার কথায় শুক্রবার বিকাল ৩টায় রিজার্ভ একটি সিএনজি যোগে প্রেমিকা তারেকের স্ত্রীর সাথে দেখা করতে পেকুয়া বাজারে আসে। এসময় আগে থেকে উৎপেতে থাকা জাফর আলমের স্ত্রী মোস্তফা বেগমসহ তার প্রেমিকা শাহিন আক্তারকে দেখে জসিম পালানোর চেষ্টা করে। এসময় স্থানীরা তাকে ধাওয়া করে আটক করতে সক্ষম হয়। তারেকের স্ত্রী শাহিন আক্তার জানান, জাফর জিবীত থাকাকালে জসিম ও এক অজ্ঞাত বৃদ্ধ প্রতিনিয়ত আসা যাওয়া করতো। জাফরের লাশ উদ্ধারের পর থেকে তারা গাঁ ঢাকা দেয়। গতকাল তাকে কৌশলে ফাঁদে ফেলে অবশেষে আটক করা হয়। পরে, পেকুয়া থানায় সংবাদ দিয়ে ধৃতকে পুৃলিশের কাছে সৌপর্দ্দ করে স্থানীয়রা। সূত্র জানা গেছে যে, নিহত জাফর আলমের বড় ছেলে মোঃ তারেক তার পিতার লাশ উদ্ধারের ঘটনায় পেকুয়া থানায় অজ্ঞাত নামা লোকজনের সম্পৃক্ততার কথা জানিয়ে মামলা দায়ের করে। যার মামলা নং-১০/১৫ইং। উল্লেখ্য যে, গত ১৮সেপ্টেম্বর শুক্রবার নিহত জাফরের নিজ বাড়ির পুকুর ঘাটের নিচ থেকে দুপুরে ভাসমান অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত ব্যাক্তি সদর ইউনিয়নের পশ্চিম গোঁয়াখালী উত্তর বটতলিয়া পাড়ার মৃত আব্দু রহমানের পুত্র জাফর আলম(৫৮)। সে পেকুয়া সদর ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য এম. মনজুর আলমের সহোদর ছোট ভাই। পূর্ব শত্রতার জের ধরে তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে সেখানকার পুকুর ঘাটের নিচে ফেলে রাখা হয় বলে নিহত জফর আলমের পরিবারের দাবী। এ বিষয়ে মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা এস.আই বিমল কান্তি দে’র কাছে জানতে চাইলে নিহত জাফরের লাশ উদ্ধারের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে জসিমকে নিহতের পরিবার জনতার সহায়তায় আটক করে পুলিশের সৌপর্দ্দ করার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT