টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
সাবরাং এর নুর হোসেন চেয়ারম্যানের বিরোদ্ধে ভূতুড়ে মামলায় এজাহারে গড়মিল যে ভাবে হাটহাজারী থেকে সরিয়ে নেয়া হল আল্লামা শফীর হুজুরের স্মৃতিচিহ্ন যাচাই ছাড়া সৌদি থেকে রোহিঙ্গাদের নেওয়া হবে না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী আলীকদমের রবিউল ইসলাম টেকনাফে রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে অস্ত্রসহ আটক ওমরাহ পালনে কাবা ঘর খুলে দিচ্ছে সৌদি শুধু মুসলিম হওয়ায় হোটেল থেকে তাড়িয়ে দেওয়া হলো শিক্ষকদের ইয়াবাসহ টেকনাফ কেরুনতলীর জসিম ড্রাইভার আটক লেদা থেকে ১০ কোটি ৫০ লক্ষ টাকার ইয়াবা উদ্ধার কক্সবাজারে আট কয়লাবিদ্যুৎ কেন্দ্রে বায়ু দূষণ নিয়ে সতর্কতা নুরকে গ্রেফতারের ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই ছেড়ে দেয়া হয়েছে

প্রাইভেট কারে মাদক পাচার: টেকনাফের ইব্রাহিমসহ আটক ৪

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ২১৯০ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের লোহাগাড়া উপজেলার চুনতি ফরেস্ট রেঞ্জ অফিসে সামনে অভিযান চালিয়ে ১৫ হাজার পিস ইয়াবাসহ তিনজনকে ও পৃথক অভিযানে লোহাগাড়ার চরম্বা ইউনিয়নের রাজঘাটা এলাকায় অভিযান চালিয়ে ২০ লিটার চোলাই মদসহ একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এসময় ইয়াবা পরিবহনে ব্যবহৃত একটি প্রাইভেট কারও জব্দ করা হয়।

শুক্রবার (১১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে চার মাদক ব্যবসায়ীকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেফতার চার মাদক ব্যবসায়ী হলেন-  টেকনাফ ইসলামাবাদ এলাকার আলী আহমদের ছেলে মো. ইব্রাহিম (২২), সদর উপজেলার ইসলামপুর এলাকার মো. রশিদ আহমদের ছেলে মো. জাহেদ হোসেন (২২), ঢাকা ভাটারা থানাধীন ছোলমাইদ পূর্বপাড়া এলাকার মো. মহির উদ্দিনের ছেলে মো. মনির হোসেন (৩২) ও লোহাগাড়া উপজেলার পশ্চিম কলাউজান এলাকার চাচী রাম কান্তি নাথের ছেলে সজীব কান্তি নাথ (৩০)।

এদের মধ্যে সজীব কান্তি নাথকে ২০ লিটার চোলাই মদসহ চরম্বা ইউনিয়নের রাজঘাটা এলাকা থেকে ও বাকি তিনজনকে চুনতি ফরেস্ট রেঞ্জ অফিসের সামনে থেকে ১৫ হাজার পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার করা হয়।

চট্টগ্রামের পুলিশ সুপার এসএম রশিদুল হক বাংলানিউজকে বলেন, চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের লোহাগাড়া উপজেলার চুনতি ফরেস্ট রেঞ্জ অফিসে সামনে অভিযান চালিয়ে ১৫ হাজার পিস ইয়াবাসহ তিনজনকে ও পৃথক অভিযানে লোহাগাড়ার চরম্বা ইউনিয়নের রাজঘাটা এলাকায় অভিযান চালিয়ে ২০ লিটার চোলাই মদসহ একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ইয়াবা পরিবহনে ব্যবহৃত একটি প্রাইভেট কারও জব্দ করা হয়েছে। পৃথক দুটি মামলা দায়েরের পর তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

তিনি বলেন, পুলিশের চোখ ফাঁকি দিতে কৌশলে প্রাইভেট কারে করে ইয়াবা নিয়ে আসা হচ্ছিল। এসব ইয়াবা ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল।  আমাদের নিয়মিত চেকপোস্ট ও মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT