টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

পাহাড়ি-বাঙালি নেতৃবৃন্দের সাথে মহাজোট সরকারের তিন মন্ত্রীর বৈঠক আজ ….

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : সোমবার, ৮ জুলাই, ২০১৩
  • ১১২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

শহিদুল ইসলাম মানিক,রাঙামাটি  ***
পার্বত্য ভূমি কমিশন কমিশন আইন নিয়ে সৃষ্ট জটিলতা নিয়ে কথা বলতে সরকারের প্রতিনিধিদল আগামীকাল সোমবার রাঙামাটি আসছেন। তবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নয় এবার স্বরাষ্ট্রপ্রতিমন্ত্রী আসছেন। জেলা প্রশাসন থেকে পাঠানো এক বার্তায় জানানো হয়, প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী, স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু এমপি ও পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার এমপি সোমবার রাঙামাটি ও খাগড়াছড়ি জেলায় সফর করবেন।

প্রেরিত কর্মসূচি অনুযায়ী তাঁরা সকাল ন’টায় হেলিকপ্টারযোগে রাঙামাটি পৌঁছুবেন।  সকাল সাড়ে নয়টায় প্রথমেই সরকারি কর্মকর্তাদের সাথে মত বিনিময় এবং সাড়ে ১০টায় স্থানীয় সরকার প্রতিনিধি ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় শেষে তারা জেলাপ্রশাসক কার্যালয়ে আসবেন। সেখানে বাঙালি নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় করা হবে সকাল সোয়া ১১টায়। এর পর তাঁরা পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ কার্যালয়ে যাবেন এবং আঞ্চলিক পরিষদ চেয়ারম্যান ও সদস্যদের সাথে মতবিনিময় করবেন।

দুপুর আড়াইটায় তারা খাগড়াছড়ির উদ্দেশ্যে রাঙামাটি ত্যাগ করবেন। খাগড়াছড়িতেও সরকারি কর্মকর্তা, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, বাঙালি নেতৃবৃন্দ ও পাহাড়ি নেতৃবৃন্দের সাথে পৃথক পৃথক বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে বলে কর্মসূচিতে জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি সরকার পার্বত্য ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তি কমিশন আইনে সংশোধনী আনার জন্য জাতীয় সংসদে একটি বিল উত্থাপন করে। এই বিল মন্ত্রীপরিষদ সভায় নীতিগত অনুমোদন পাওয়ার পর থেকেই পার্বত্য এলাকার বাঙালি নেতৃবৃন্দ এই সংশোধনী বাতিল বা পুণর্বিবেচনার দাবিতে আন্দোলন করে আসছে। তাদের বক্তব্য, সংসদে উত্থাপিত আঙ্গিকে এই আইন সংশোধন করা হলে পার্বত্য এলাকার বাঙালিরা ভূমিহারা হবার আশঙ্কা রয়েছে। এছাড়া সংশোধনীতে কমিশন চেয়ারম্যানের ক্ষমতা হ্রাস করা ও কোরাম হওয়ার বিষয়ে আনীত সংশোধনীর কারনে কমিশনের সকল সিদ্ধান্ত পাহাড়িদের পক্ষে চলে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকছে। তাদের মতে এতে পার্বত্য ভূমির উপর সরকারের কর্তৃত্বও হুমকির মুখে পড়বে।

এদিকে সংশোধনীর উপর আপত্তি জানিয়েছেন সন্তু লারমা নিজেও। তিনি এক সংবাদ সম্মেলনে আনীত ‘সংশোধনীতে তাদের চাওয়া পাওয়ার প্রতিফলন ঘটেনি’ উল্লেখ করে সেখানে আরো পাঁচটি বিষয় সংযোজন বিয়োজনের দাবি জানিয়েছেন। সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, সরকারের সঙ্গে তাদের ১৩টি সংশোধনী আনার বিষয়ে ঐকমত্য হলেও ১০টি প্রস্তাব গ্রহণ করা হয়েছে।

সন্তু লারমা স্পষ্ট করে এও বলেছেন, তাদের দাবির প্রতিফলন না হলে ভূমি কমিশন নিয়ে এতদিনের অচলাবস্থায় কোনো পরিবর্তন হবেনা।

পাহাড়ি বাঙালি উভয় পক্ষের এমন অভিযোগ পাল্টা অভিযোগের প্রেক্ষাপটে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীসহ প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা গত ২৫ জুন রাঙামাটি সফর করার কথা ছিল। কিন্তু বিরূপ আবহাওয়ার কারণে সে সফর শেষ মুহুর্তে বাতিল করা হয়। অবশেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আসছেন। তবে অনিশ্চয়তা, উদ্বেগ ও নাটকিয়তার মাঝখানে মন্ত্রীর ওজন কমে যাওয়ায় হতাশা প্রকাশ করেছেন বাঙালি নেতৃবৃন্দ।

এবারের সফরে সরকারের তিন মন্ত্রী উভয় পক্ষের নেতৃবৃন্দকে কি ধরণের আশ্বাস দিতে পারেন সেদিকে তাকিয়ে পাহাড়ের মানুষ।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT