টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

পর্যটকদের সেবায় ট্যুরিস্ট পুলিশ

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬
  • ১৫১ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

সুজাউদ্দিন রুবেল :::
পর্যটন মৌসুমের শুরুতে পর্যটকদের সেবায় নানা ধরণের কার্যক্রম হাতে নিয়েছে ট্যুরিস্ট পুলিশ কক্সবাজার জোন। এসব কার্যক্রমের ফলে পর্যটকদের কাছে প্রশংসিত হচ্ছে কক্সবাজারের ট্যুরিস্ট পুলিশ। আর পর্যটন সংশ্লিষ্টদের আশা, পর্যটকদের নিরাপত্তার পাশাপাশি ট্যুরিস্ট পুলিশ পর্যটকদের সেবায় যেভাবে এগিয়ে এসেছে, তার জন্য আগামীতে কক্সবাজারে পর্যটকের আগমন আরো বাড়বে।
ঈদুল আজহার ছুটির পর থেকেই বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত শহর কক্সবাজারে প্রতিদিন ছুটে আসছেন হাজার হাজার পর্যটক। তাদের পদচারণায় মুখরিত থাকছে সৈকতের কলাতলী, সী-ইন ও লাবণী পয়েন্ট। কিন্তু পর্যটন শহর কক্সবাজারে গত কয়েকদিন ধরে পড়ছে প্রচন্ড গরম। আর এ গরমে বালিয়াড়ি দিয়ে পায়ে হেঁটে সৈকতে নামতে কষ্ট হচ্ছে পর্যটকদের। তাই পর্যটকদের সেবায় এগিয়ে এসেছে ট্যুরিস্ট পুলিশ।
গতকাল শনিবার থেকে সৈকতের মূল পয়েন্ট লাবণীর বালিয়াড়িতে পানি ছিটিয়ে শুরু করেছে ‘ওয়াকওয়ে’। পর্যটকদের উত্তপ্ত বালি থেকে রক্ষা করতে সকাল ৫টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত পানি ছিটিয়ে এ ‘ওয়াকওয়ে’ কার্যক্রম চালু থাকছে।
ট্যুরিস্ট পুলিশ কক্সবাজার জোনের সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার হোসাইন মোহাম্মদ রায়হান কাজেমি গতকাল শনিবার পর্যটকদের সেবামূলক এ কার্যক্রমে ছবি তার ফেইসবুকে পেইজে দেন। সেখানে তিনি লিখেন, ‘‘পর্যটকের সেবায় আমরা সর্বদা নিবেদিত। পর্যটকদের প্রচ- গরমে উত্তপ্ত বালিতে হেঁটে সমুদ্র সৈকতে যেতে কষ্ট দূর করতে কক্সবাজার ট্যুরিষ্ট পুলিশের পক্ষ থেকে লাবনী পয়েন্টে পানি ছিটিয়ে ওয়াকওয়ে তৈরি। সকাল ৫ টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত পানি ছিটানো হয়। আপনাদের সেবায় আমরা সর্বদা প্রস্তুত।’’
এব্যাপারে রায়হান কাজেমির সাথে আলাপ হলে তিনি বলেন, পর্যটকদের সেবায় আমরা সর্বদা প্রস্তুত। আমরা চাই আগত পর্যটকরা যাতে স্বাচ্ছন্দে কক্সবাজার ভ্রমনে করে নিরাপদে ফিরে যেতে পারেন। সেজন্য পর্যটকদের সেবায় সব ধরণের কার্যক্রম হাতে নেয়া হচ্ছে।
তিনি বলেন, ইতিমধ্যে সৈকতে পর্যটকদের সেবায় নানা ধরণের কার্যক্রম চলছে। তারমধ্যে সৈকত এলাকা হকার মুক্ত করা, সৈকতের কিটকট, বিচবাইক, জেড স্কি’র ভাড়া নির্ধারণ, সৈকতের মার্কেটগুলোতে চলাফেরার জন্য রাস্তা দখলমুক্ত করা, সৈকতের ৩টি পয়েন্টে মাইকিং, সেবামূলক লিফলেট বিতরণ, সৈকতের লাবণী পয়েন্টে পর্যটকদের যাতায়াতের জন্য ওয়াকওয়ে তৈরি এবং প্রতিটি হোটেলে ট্যুরিস্ট পুলিশের পর্যটকদের জন্য সেবামূলক লিফলেট বিতরণ করা।
তিনি আরো বলেন, ট্যুরিস্ট পুলিশের সেবা আরো বাড়ানো হচ্ছে। আগামী কিছুদিনের মধ্যে সৈকতের কলাতলী পয়েন্টে ওয়াকওয়ে তৈরি, হিমছড়ি, ইনানী ও টেকনাফ বিচে মাইকিং করা হবে। পর্যটকদের সেবা ট্যুরিস্ট পুলিশ নানা ধরণের উদ্যোগ গ্রহণ করছে। এতে সকলের সহযোগিতা কামনা করছি।
এতে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে বেড়াতে আসা পর্যটকদের ধারণা পাল্টে যাচ্ছে। কক্সবাজারে বেড়াতে এসে ট্যুরিস্ট পুলিশের নিরাপত্তা প্রদানের পাশাপাশি নানা ধরণের সেবা পেয়ে খুবই খুশি পর্যটকরা।
ঢাকা থেকে আগত পর্যটক তিথি বলেন, কক্সবাজার সৈকতের অনেক কিছু পরিবর্তন হচ্ছে। এটি কিন্তু পর্যটন শিল্পের জন্য ইতিবাচক। নিরাপত্তা প্রদানের পাশাপাশি হকারদের উৎপাত থেকে রক্ষা, স্বাচ্ছন্দে সৈকতে ঘুরে বেড়ানো ও মাইকিং করে সেবা প্রদান আসলে ট্যুরিস্ট পুলিশ প্রশংসার দাবি রাখছে। সৈকতে বেড়াতে এসে ট্যুরিস্ট পুলিশের কাছে এসব সেবা পেয়ে সত্যিই আমরা খুশি।
হারুন, নিয়ামত ও খুশি বলেন, গতবছর কক্সবাজার সৈকতে বেড়াতে এসেছিলাম। ওইসময় গরমের মধ্যে উত্তপ্ত বালি দিয়ে সৈকতে যেতে খুবই কষ্ট হয়েছে। কিন্তু এখন ট্যুরিস্ট পুলিশ দেখলাম বালিয়াড়িতে পানি ছিটিয়ে হাটার ব্যবস্থা করে দিয়েছে। এটা একটা খুবই ভালো উদ্যোগ।
পর্যটক দম্পতি সোহেল ও হৃদিতা বলেন, কক্সবাজার সৈকতে ট্যুরিস্ট পুলিশের ভূমিকা লক্ষ্যণীয়। এতে কক্সবাজারে এসে পুলিশের প্রতি ধারণাও পাল্টে যাচ্ছে। তাদের নিরাপত্তা প্রদান, ব্যবহার ও সেবা পেয়ে খুবই ভালো লাগছে।
হোটেল মালিক সমিতির সহ সভাপতি মো. সাখাওয়াত হোসাইন বলেন, সৈকতে ট্যুরিস্ট পুলিশ কিছুটা হলেও নিয়ম-শৃঙ্খলা ফিরিয়ে এনেছে। এতে পর্যটকদের পাশাপাশি আমরাও খুশি। পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ী ও ট্যুরিস্ট পুলিশ যদি সমন্বয় করে পর্যটকদের সেবায় কাজ করে তাহলে দিনদিন কক্সবাজারে দেশি-বিদেশি পর্যটকের আগমন বাড়বে।
ট্যুরিস্ট পুলিশের দেয়া তথ্য মতে, ঈদুল আজহার ছুটিতে সৈকতে ১৬ জন শিশুকে উদ্ধার করে অভিভাবকের কাছে হস্তান্তর, একজন ইভটিজার ও একজন ছিনতাইকারি আটক, একজন ভাসমান ভিকটিম উদ্ধার করা হয়েছে।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT