দুই মাসে বজ্রপাতে নিহত ১২৬

প্রকাশ: ৬ জুলাই, ২০১৯ ২:৩৪ : অপরাহ্ণ

টেকনাফ নিউজ ডেস্ক==

ধান কাটার সময় বজ্রপাতে নিহতের ঘটনা সবচেয়ে বেশি ঘটেছে।

চলতি বছরের মে ও জুন মাসে বজ্রপাতে সারাদেশে ১২৬ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। এসময় বজ্রপাতের ঘটনায় আহত হয়েছে আরও ৫৩ জন।

সেভ দ্য সোসাইটি অ্যান্ড থান্ডারস্টর্ম অ্যাওয়ারনেস ফোরামের এক প্রতিবেদনে এতথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বজ্রপাতে মে মাসে ৬০ জন ও জুন মাসে ৬৬ জন নিহত হয়েছে। মে মাসে নিহতদের মধ্যে ২১ জন নারী, ৪৮ জন পুরুষ  ও সাতজন শিশু রয়েছে। জুনে নিহতদের মধ্যে রয়েছে ১২ জন নারী, ৫০ জন পুরুষ  ও চারজন শিশু।

বজ্রপাতে গত দুইমাসে কিশোরগঞ্জে সবচেয়ে বেশি ১৬জন নিহত হয়েছে। এছাড়া সাতক্ষীরা, রাজশাহী, চাপাইনবাবগঞ্জ, সুনামগঞ্জ, নওগাঁ, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর ও টাঙ্গাইলে হতাহতের ঘটনা বেশি ঘটেছে।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, ধান কাটার সময় বজ্রপাতে নিহতের ঘটনা সবচেয়ে বেশি ঘটেছে। এরপর সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে মাছ ধরতে গিয়ে। এছাড়া মাঠে গরু আনতে গিয়ে, টিন ও খড়ের ঘরে অবস্থান ও ঘুমানোর সময় বজ্রপাতে মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।

জানা গেছে, গত দুই মাসে বজ্রপাতে কিশোরগঞ্জে ১৬ জন, হবিগঞ্জে তিনজন, রাজশাহীতে ১০ জন, চাপাইনবাবগঞ্জে নয়জন, পাবনায় ছয়জন, দিনাজপুরে সাতজন, নীলফমারীতে চারজন, শেরপুরে চারজন, নওগাঁয় ছয়জন, সিরাজগঞ্জে পাঁচজন, নারায়ণগঞ্জে পাঁচজন, মৌলভীবাজারে তিনজন, খুলনায় চারজন, সাতক্ষীরায় ১১ জন ও টাঙ্গাইলে চারজনসহ বিভিন্ন জেলায় হতাহতের ঘটনা ঘটেছে


সর্বশেষ সংবাদ