টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
সাবরাং এর নুর হোসেন চেয়ারম্যানের বিরোদ্ধে ভূতুড়ে মামলায় এজাহারে গড়মিল যে ভাবে হাটহাজারী থেকে সরিয়ে নেয়া হল আল্লামা শফীর হুজুরের স্মৃতিচিহ্ন যাচাই ছাড়া সৌদি থেকে রোহিঙ্গাদের নেওয়া হবে না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী আলীকদমের রবিউল ইসলাম টেকনাফে রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে অস্ত্রসহ আটক ওমরাহ পালনে কাবা ঘর খুলে দিচ্ছে সৌদি শুধু মুসলিম হওয়ায় হোটেল থেকে তাড়িয়ে দেওয়া হলো শিক্ষকদের ইয়াবাসহ টেকনাফ কেরুনতলীর জসিম ড্রাইভার আটক লেদা থেকে ১০ কোটি ৫০ লক্ষ টাকার ইয়াবা উদ্ধার কক্সবাজারে আট কয়লাবিদ্যুৎ কেন্দ্রে বায়ু দূষণ নিয়ে সতর্কতা নুরকে গ্রেফতারের ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই ছেড়ে দেয়া হয়েছে

তিন বছর পার হয়েছে, রোহিঙ্গাদের ফিরে যেতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : সোমবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৮৫০ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

রোহিঙ্গাদের ফিরে যাওয়ার জন্য তুরস্কের সহযোগিতা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, ‘রোহিঙ্গারা বাংলাদেশে আসার পর (বিপুল সংখ্যক) ইতিমধ্যেই তিন বছর পার হয়ে গেছে এবং তাদের অবশ্যই ফিরে যেতে হবে। আমি মনে করি তুরস্ক এ ব্যাপারে ভূমিকা পালন করতে পারে।’

প্রধানমন্ত্রী আজ সোমবার বিকেলে আঙ্কারায় নব নির্মিত বাংলাদেশ চ্যান্সেরি (দূতাবাস) কমপ্লেক্সের ভার্চুয়ালি উদ্বোধনকালে এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনা তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি এবং বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন ও তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুৎ চাভুসগলু তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারার ওই কমপ্লেক্সে উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী চলমান রোহিঙ্গা সংকটকালে সহযোগিতার হাত সম্প্রসারিত করায় তুরস্ক সরকারকে ধন্যবাদ জানান এবং ভবিষ্যতে এই সংকট সমাধানে আরো সহযোগিতার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ তুরস্কের সঙ্গে দু’দেশের পারস্পারিক স্বার্থে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক জোরদারে আগ্রহী। বাংলাদেশ তুরস্কের সঙ্গে বিদ্যমান সম্পর্ককে অত্যন্ত গুরুত্ব দেয়। তাই আমরা দু’দেশের জনগণের স্বার্থে এই সম্পর্ককে আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই।’

এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ ও তুরস্কের সম্পর্কের শিকড় ইতিহাস, বিশ্বাস ও ঐতিহ্য এবং পরস্পারিক আস্থার ভিত্তিতে অনেক গভীরে প্রোথিত। শেখ হাসিনা প্রায় ৫০ বছর আগে ১৯৭৪ সালে দু‘দেশের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপিত হয় বলে উল্লেখ করেন। এ প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, ‘যদিও তুর্কী সেনাপতি ইখতিয়ার উদ্দিন মুহাম্মদ বখতিয়ার খিলজীর ১৩ শতকে বাংলা জয়ের ফলে দু’দেশের মধ্যে সম্পর্ক আরও অনেক আগেই স্থাপিত হয়।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমাদের এই ঐতিহাসিক সম্পর্ক উদযাপন অনুষ্ঠানে, আমি ২০১২ সালের ১৩ এপ্রিল তুরস্কের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ও বর্তমান প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোগানের আমন্ত্রণে আঙ্কারা সফরের কথা উৎফুল্ল চিত্তে স্মরণ করছি।’

আঙ্কারায় বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম আল্লামা সিদ্দিকী অনুষ্ঠানে স্বাগত ভাষণ দেন। এ উপলক্ষে চ্যান্সেরি কমপ্লেক্সের ওপর একটি তথ্যচিত্র প্রদর্শিত হয়। পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস, প্রেস সচিব ইহসানুল করিম, আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ গণভবন প্রান্তে উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT