হটলাইন

01787-652629

E-mail: teknafnews@gmail.com

সর্বশেষ সংবাদ

টেকনাফপ্রচ্ছদস্বাস্থ্য

টেকনাফ হাসপাতালে একযোগে ১২ জন নার্স যোগদান

হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম, টেকনাফ … টেকনাফ উপজেলা ৫০ শয্যা হাসপাতালে সরকারীভাবে নিয়োগপ্রাপ্ত একযোগে ১২ জন সিনিয়র স্টাফ নার্স (এসএসএন) যোগদান করেছেন বলে জানা গেছে। তম্মধ্যে মাত্র ১ জন পুরুষ, ১১ জন নারী। এতে অধিকাংশই অবিবাহিত। যা টেকনাফ হাসপাতালের ইতিহাসে বিরল ও প্রথম ঘটনা। টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডাঃ সুমন বড়–য়া একযোগে নতুন যোগদানকৃত ১২ জন সিনিয়র স্টাফ নার্সকে (এসএসএন) ফুল দিয়ে বরণ করেন। আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডাঃ এনামুল হক, মেডিকেল অফিসার ডাঃ প্রণয় রুদ্র, প্রধান সহকারী দেবতোষ দেব এসময় উপস্থিত ছিলেন।
সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে, টেকনাফ উপজেলা ৫০ শয্যা হাসপাতালে একযোগে নতুন যোগদানকৃত ১২ জন সিনিয়র স্টাফ নার্সরা হলেন কিশোরগঞ্জের জেরিন কাসেম ন্যান্সী, মোমেনশাহীর (ময়মনসিংহ) ফাতেমা খাতুন, গামজিন জেমস রাংসা, ফাতেমা বেগম, কিশোরগঞ্জের দিলোয়ারা বেগম, নাহিয়া জন্নাতুন আইরিন, ইয়াসমিন আক্তার, রাজশাহীর আরিফা খাতুন, মাইকেল সরকার, মুসা ইতি খাতুন, সুনামগঞ্জের পাপড়ী দাজেল, রাঙ্গামাটির লক্ষী দেবী চাকমা।
১২ জন সিনিয়র স্টাফ নার্সদের মধ্যে ১১ জনকে টেকনাফ উপজেলা ৫০ শয্যা হাসপাতালে এবং রাঙ্গামাটির লক্ষী দেবী চাকমাকে সেন্টমার্টিনদ্বীপ ১০ শয্যা হাসপাতালে পোস্টিং দেয়া হয়েছে।
নার্সগণ যোগদান করার পর হাসপাতাল কতৃপক্ষ তাঁদের বরণ উপলক্ষ্যে এক সংক্ষীপ্ত সভার আয়োজন করেন। প্রত্যেক নার্সকে ফুল দিয়ে বরণ করে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডাঃ সুমন বড়–য়া নার্সদের দায়িত্ব ও কর্তব্য সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে অবহিত করেন। আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডাঃ এনামুল হক, মেডিকেল অফিসার ডাঃ প্রণয় রুদ্র এসময় নার্সদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন। কর্মরত নার্স এবং অন্যান্য স্টাফগণ এসময় উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, টেকনাফ হাসপাতালে নার্স সংকট বিষয়টি দীর্ঘ সময়ের অন্যতম সমস্যা। নার্সদের পদগুলো দীর্ঘ বছর ধরে শুন্য ছিল। সরকারীভাবে পোস্টিং দেয়া মুষ্টিমেয় কয়েকজন এবং বেসরকারীভাবে প্রদত্ত দুয়েকজন মিলে এতদিন কোনভাবে দায়িত্ব পালন করে আসছিল। সরকারীভাবে নিয়োগপ্রাপ্ত ১২ জন সিনিয়র স্টাফ নার্স (এসএসএন) একযোগে যোগদান করার পর নার্স সংকট অনেক অংশে লাঘব হয়েছে। ##

Leave a Response

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.