টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
টেকনাফে ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা ও যানজট নিরসনে অভিযান বিশ্বের শীর্ষ দুর্নীতিগ্রস্ত দেশগুলোর তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ১২তম চসিক মেয়র নির্বাচিত হলেন রেজাউল করিম চৌধুরী এবার তৃতীয় দফায় প্রায় তিন হাজার রোহিঙ্গা যাচ্ছে ভাসানচরে ফাইনাল খেলা ৩১ জানুয়ারি টেকনাফে কুকুরকে টিকাদান বিষয়ক সভা টেকনাফ হাসপাতাল পরিদর্শনে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ডিজি : ইনফ্লুয়েঞ্জা কর্ণার, বঙ্গবন্ধু গার্ডেন ও কিডস্ কর্ণার উদ্বোধন লম্বরীর আহমদ কবির ১ লাখ ২২ হাজার ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার কক্সবাজার সদর হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ডে আটকা পড়েছেন অনেক রোগী চট্টগ্রামে মোটামুটি শান্তিপূর্ণ ভোট হয়েছে : ওবায়দুল কাদের

টেকনাফ স্থল বন্দরে ৪ মাসে সাড়ে ৯ কোটি টাকা রাজস্ব ঘাটতি

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শনিবার, ৩ নভেম্বর, ২০১২
  • ১১৬ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

হাফেজ মুহামম্মদ কাশেম, টেকনাফ / টেকনাফ স্থল বন্দর দিয়ে চলতি অর্থ বছরের প্রথম ৪ মাসে (জুলাই, আগষ্ট, সেপ্টেম্বর,অক্টোবর) ৬৮ কোটি ৩৯ লাখ ১৭ হাজার ৬৪৩ টাকা মূল্যের পণ্য মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে আমদানী এবং ২ কোটি ৫৭ লাখ ৩৯ হাজার ৪৯ টাকা মূল্যের বাংলাদেশী পণ্য মিয়ানমারে রপ্তানী হয়েছে। সে হিসাবে গত ৪ মাসে টেকনাফ স্থল বন্দর দিয়ে ৭০ কোটি ৯৬ লাখ ৫৬ হাজার ৬৯২ টাকা মূল্যের পণ্য আমদানী ও রপ্তানী হয়েছে। এই ৪ মাসে বিল অব ইনপোর্ট সংখ্যা ৪০৬টি এবং বিল অব এক্সপোর্ট সংখ্যা ১২২টি। পণ্য আমদানী খাতে সরকার উক্ত ৪ মাসে সব মিলে রাজস্ব আয় করেছে ১৬ কোটি ৪৪ লাখ ৮৮ হাজার ১৫২ টাকা। এদিকে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) টেকনাফ স্থলবন্দর কাস্টম্সকে ২০১২-২০১৩ অর্থবছরের জন্য বার্ষিক রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে দিয়েছে ৬৫ কোটি টাকা। সেহিসাবে মাসিক রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা হচ্ছে ৫ কোটি ৪১ লাখ ৬৬ হাজার ৬৬৭ টাকা। মাসিক লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী বিগত ৪ মাসে রাজস্ব আয় করার কথা ছিল ২১ কোটি ৬৬ লাখ ৬৬ হাজার ৬৬৮ টাকা। কিন্তু   ৪ মাসে রাজস্ব আয় হয়েছে শুধু কাস্টম্স খাতে ১২ কোটি ২৪ লাখ ৪৬ হাজার ৫৪৯ টাকা। নতুন অর্থ বছরের প্রথম ৪ মাসেই রাজস্ব ঘাটতির পরিমাণ ৯কোটি ৪২ লাখ ২০ হাজার ১১৯ টাকা। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে- গত ৪ মাসে মাসওয়ারী সব মিলিয়ে রাজস্ব আয় ও রপ্তানী পণ্যের খতিয়ান হচ্ছে- জুলাই মাসে ১০৮টি বিল অব এন্ট্রির মাধ্যমে ৪ কোটি ১২লাখ ৮০৪ টাকা রাজস্ব আয় এবং রপ্তানী হয়েছে- ১৫টি বিল অব এক্সপোর্টের মাধ্যমে ১৮ লাখ ১৮ হাজার ৩১০টাকা মূল্যের পণ্য। আগষ্ট মাসে ৫৩টি বিল অব এন্ট্রির মাধ্যমে ৮ কোটি ৬৫ লাখ ৯৬ হাজার ৭৬৬ টাকা রাজস্ব আয় এবং রপ্তানী হয়েছে- ১৮টি বিল অব এক্সপোর্টের মাধ্যমে ৩৮ লাখ ৭ হাজার ৫২৮ টাকা মূল্যের পণ্য। সেপ্টেম্বর মাসে ১৪০টি বিল অব এন্ট্রির মাধ্যমে ৫ কোটি ৬৮ লাখ ১৩ হাজার ৪৯ টাকা রাজস্ব আয় এবং রপ্তানী হয়েছে- ৫৪ টি বিল অব এক্সপোর্টের মাধ্যমে ১কোটি ২১ লাখ ৪৫ হাজার ৭১৮ টাকা মূল্যের পণ্য। অক্টোবর মাসে ১০৫টি বিল অব এন্ট্রির মাধ্যমে ৪ কোটি ৫ লাখ ১২ হাজার ৯১৫ টাকা রাজস্ব আয় এবং ৩৫টি চালানে ৭৯ লাখ ৬৭ হাজার ৪৯৩ টাকা মুল্যের বাংলাদেশী পণ্য মিয়ানমারে রপ্তাণী হয়েছে । টেকনাফ স্থল বন্দর সরেজমিন পরিদর্শন এবং সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে জানা গেছে এসব তথ্য । মিয়ানমারের আরকান রাজ্যে রোহিঙ্গা মুসলিম-রাখাইন জাতিগত সংঘাত, টেকনাফ স্থল বন্দরে ব্যবসায়ী তথা আমদানীকারক-রপ্তাণীকারকদের আধিপাত্য বিস্তার, ইয়াবা ব্যবসার আগ্রাসন, ব্যবসায়ীদের বহুমূখী হয়রানী, বিরাজমান নানাবিধ সমস্যার কারণে রাজস্ব আয়ে ধ্বস নেমেছে বলে জানা গেছে । টেকনাফ স্থল বন্দরের জিএম মাকসুদুর রহমান বলেন- সরকারী ও কোম্পানীর যাবতীয় নিয়ম-কানুন অনুসরন করে বন্দর ব্যবহারকারীদের উন্নত সেবা দেয়ার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি । টেকনাফ স্থল বন্দরের কাস্টমস সুপার কাজী আবুল হোসেন বলেন- সরকারী রাজস্ব বৃদ্ধির জন্য যা যা করা দরকার তা অব্যাহত রয়েছে । ###########

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT