টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
১২-১৩ এপ্রিল দূরপাল্লার বাস চলবে না : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী টেকনাফে সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে বিকাল ৫.০০ টার পর একাধিক দোকান ও শপিংমল খোলা রাখায় জরিমানা চেয়ারম্যান -মেম্বারদের চলতি মেয়াদ আরও তিন মাস বাড়ছে স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থাপনায় ৬৪ জেলার দায়িত্বে ৬৪ সচিব মেয়ের বিয়ের যৌতুকের টাকা জোগাড় করতে না পেরে বাবার আত্মহত্যা মিয়ানমারে গুলিতে আরও ১০ জন নিহত যুক্তরাষ্ট্রে বিশেষ স্বীকৃতি পাচ্ছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অপহরণ করে মুক্তিপণ, র‌্যাবের ৪ সদস্য পুলিশের হাতে গ্রেফতার ১৪ এপ্রিল থেকে সারা দেশে সর্বাত্মক লকডাউন লকডাউন অকার্যকর, এখন করণীয় কী? ভয় জাগাচ্ছে করোনার

টেকনাফ ভূমি অফিসে চলতি অর্থ বছরে ২৭ লাখ ১৬ হাজার টাকার ভূমি উন্নয়ন কর আদায়

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৭ জুলাই, ২০১২
  • ২০০ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

আশেক উল্লাহ ফারুকী, টেকনাফঃ  টেকনাফ উপজেলার ৬ ইউনিয়ন ও এক পৌরসভার ১৩ মৌজার ব্যক্তি মালিকানাধীন জমি থেকে চলতি অর্থ বছর উপজেলা ও ইউনিয়ন ভূমি অফিস রাজস্ব আদায়ের নতুন রেকর্ড সৃষ্টি করেছে। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নির্দেশে ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তাদের প্রশাসনিক দক্ষ্যতার কারণে এ বছর লক্ষ্যমাত্রা অতিক্রম করে সরকারী কোষাগারে বিপুল পরিমান রাজস্বের অর্থ জমা পড়েছে। এসব কর্মকর্তারা নিয়ম মেনে কাজ করে আগামী অর্থ বছরে আরও বেশী পরিমাণ রাজস্ব আদায়ের র্টাগেট দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। টেকনাফ উপজেলা ভূমি অফিসের প্রধান সহকারী কাজল কান্তি দাশ জানান- উপজেলা ২৮ জুন রাজস্ব সভার প্রতিবেদন মতে ২০১১-২০১২ সালে উপজেলার ৬ ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার ১৩টিমৌজার ব্যক্তিমালিকানাধীন জমি থেকে ভূমি উন্নয়ন কর (রাজস্ব) খাতে ২৭ লাখ ১৬ হাজার ১৩০ টাকা আদায় করা হয়েছে। গত বছর রাজস্ব সভার দাবী ছিল বকেয়া ও হাল সন মিলিয়ে ২৭ লাখ ১৬ হাজার ১৩০ টাকা রাজস্ব আদায়ের। আরোপিত লক্ষ্য মাত্রা অতিক্রম করে ২৭ লাখ ১৬ হাজার ১৩০ টাকা আদায় হয়েছে। যাহা আদায়ের পরিমাণ শতাংশ। উপজেলার হ্নীলা, বাহারছড়া, টেকনাফ সদর ইউনিয়ন ভূমি অফিসের কর্মকর্তারা সরকারের বিপুল পরিমান রাজস্ব আদায়ের দক্ষ্যতার সাথে প্রশাসনিক দায়িত্ব পালন করেছেন। টেকনাফের সবোর্চ্চ ভূমি কর আদায়কারী টেকনাফ সদর ভূমি কর্মকর্তা মোঃ হেলাল উদ্দিন জানান- কর্মকর্তাগণ নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে অর্পিত দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি ভূমি মালিকদের সাথে ভূমি কর গুরুত্ব এবং পরিনাম সম্পর্কে সমখ্য ধারণা দিতে পারলেই ভূমি কর আদায় করা যায়। টেকনাফ উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান- ভূমি কর পরিশোধে প্রত্যেক এলাকার জনসচেতনতা বাড়াতে হবে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা এতে এগিয়ে আসলে প্রতি বছর বিপুল পরিমাণ ভূমি কর আদায় করা সম্ভব হবে।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT