টেকনাফে ‘মারোত’ এর ৬১ দিন

প্রকাশ: ২৭ মে, ২০২০ ৮:১৪ : অপরাহ্ণ

হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম, টেকনাফ … দুনিয়া জুড়ে করোনাভাইরাসের প্রভাবে লকডাউনের ৬১তম দিনের মতো ২৫ মে পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিনও টেকনাফে মানসিক রোগিদের তহবিল এর উদ্যোগে মানসিক রোগিদের মধ্যে রান্না করা খাবার এবং ঈদে নতুন কাপড় বিতরণ করে ব্যস্ত সময় পার করেছের মারোত নেতৃবৃন্দরা। ৬১তম দিনের মতো টেকনাফর ১০১ জন মানসিক রোগিদের মধ্যে রান্না করা খাবার ও কাপড় বিতরণ করেছে মানসিক রোগিদের তহবিল (মারোত)। জানা যায়, করোনাভাইরাসের প্রভাবে জনজীবন যখন বিপর্যস্ত এমন এক ক্রান্তিলগ্নে মারোতের সক্রিয় চৌকষ কর্মি বাহিনী কয়েক ভাগে বিভক্ত হয়ে মানসিক রোগিদেরকে প্রাণে বাঁচিয়ে রাখার দৃঢ় প্রত্যয়ে টেকনাফ পৌর ও সদর এলাকায় খাবার বিতরণ করে আসছে। সহায় সম্বলহীন পাগলদের একমাত্র ভরসা মারোত অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখার প্রত্যাশী বলে সংশ্লিষ্ট দায়িত্বশীল সুত্রে জানা গেছে। নেতৃবৃন্দরা সমাজের বিত্তশালীদের এব্যাপারে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন। গত ২৫ মার্চ থেকে করোনার ভয়াবহতা ও লক ডাউনের পরিপ্রেক্ষিতে সংগঠনের প্রধান উপদেষ্ঠা অধ্যাপক সন্তোষ কুমার শীলের নেতৃত্বে মারোতের খাদ্য কর্মসূচীর তহবিল গঠন করা হয়। ইতিমধ্যে মারোতের কার্যক্রমে সন্তুষ্টি প্রকাশ করে বিভিন্ন ব্যক্তি ও শুভাকাংখী তাদের সাথে একাত্মতা ঘোষণা করেছেন।

‘মারোত’ এর সভাপতি আবু সুফিয়ানের নেতৃত্বে জয়েন্ট সেক্রেটারি মোবারক হোসাইন ভুইয়ার সহযোগিতায় টেকনাফের অলিতে গলিতে থাকা মানসিক রোগিদের খাবার ও কাপড় বিতরণ  করা হয়। মেরিন সিটি হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডাঃ নুসরাত ইসলাম, ইঞ্জিনিয়ার মো. আশিকুর রহমান, মারোত উপদেষ্টা সাইফুল হাকিম,  সহ-সভাপতি ঝুন্টু বড়ুয়া, মারোতের সাধারন সম্পাদক রাজু পাল, অর্থ সম্পাদক আজিম উদ্দিন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মিরাস উদ্দিন, আইটি সম্পাদক মোহাম্মদ হোসাইন আমিরী, পিএমএ চেয়ারম্যান শাহ আলম, টেন ষ্টার গ্রুপের  শুভংকর দেবনাথ বাবু, দিদারুল ইসলাম, বিপ্লব হোসেন, মোশাররফ হোসেন, মামুনুর রশীদ, ফয়জার হোসেন, ফারিয়া সভাপতি আবদুর রহমান, সহ-সভাপতি খালেক সর্দার, সাবেক সহ-সভাপতি নুরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, সাবেক সেক্রেটারী  মোহাম্মদ মাহবুব, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক নাচির উল্লাহ, রেজাউল আলম, কামাল হোসেন,  গ্রাম ডাক্তার রুপন শর্মা,  অলক পাল, হোমিওপ্যাথি চিকিৎসক খোকন পাল, ফার্মাসিস্ট অভিজিৎ মজুমদার, মোহাম্মদ একরাম, আবদুল রশিদ, মোহাম্মদ হোসাইন, মোহাম্মদ সেলিম, হারুনর রশীদ, মোহাম্মদ মাজেদ, প্রত্যয়, মুন্না, রিয়া প্রমুখ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

‘মারোত’ এর সভাপতি আবু সুফিয়ান বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ, আমরা অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে পেরে মহান আল্লাহর দরবারে শুকরিয়া আদায় করছি এবং যারা ধারাবাহিক মানবিক তহবিলে আর্থিক অনুদান দিয়ে সাহায্য করেছেন সকলের প্রতি আমরা ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবী সদস্য ভাইদের মাধ্যমে টেকনাফ পৌরসভা ও সদর ইউনিয়নের মোট ১০১ জন অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে সক্ষম হয়েছি। গত ৬১টি দিন তাদের  কাছে গিয়ে তৈরী খাবার পৌঁছে দিয়েছি আলহামদুলিল্লাহ। আগামীতেও আমরা নিয়মিত কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ার ইচ্ছে আছে -ইনশাআল্লাহ। ##


সর্বশেষ সংবাদ