হটলাইন

01787-652629

E-mail: teknafnews@gmail.com

সর্বশেষ সংবাদ

টেকনাফপ্রচ্ছদ

টেকনাফে পৌর কমিউনিটি পুলিশিংয়ের উদ্যোগে মাদক বিরুধী মানববন্ধন ও পথ সভা অনুষ্ঠিত

ফরিদ বাবুল,টেকনাফ***
টেকনাফে পৌর কমিউনিটি পুলিশিংয়ের উদ্যোগে আওয়ামীলীগ,যুবলীগ,ছাত্রলীগ,কৃষকলীগ,জাতীয় শ্রমিকলীগ,সেচ্ছাসেবকলীগ,মহিলা আওয়ামীলীগ,রেন্ট¬এ কার সমবায় সমিতি,মাদক নির্মূল কমিটি ও সহযোগী অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে রবিবার বিকেলে পৌরসভার শাপলা সত্তরে মাদক বিরুধী মানববন্ধন ও পথ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

পৌর কমিউনিটি পুলিশিংয়ের সাধারণ সম্পাদক নুরুল হোসাইন এর সঞ্চালনায় মোহাম্মদ আলম বাহাদুরের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,টেকনাফ উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিংয়ের সভাপতি ও বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল হুদা।
বক্তব্য রাখেন,টেকনাফ উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিংয়ের সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম,উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সোলতান মাহমুদ,সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি সরওয়ার আলম,টেকনাফ উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি কোহিনূর আক্তার।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, পৌর যুবলীগের সভাপতি তোয়াক্কল হোসেন, রেন্ট¬এ কার সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো: রফিক,উপজেলা যুবলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক নুরুল আমিন ,কৃষকলীগের সভাপতি ছৈয়দ আলম সহ বিভিন্ন সংগঠনের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও সদর ইউনিয়নের কমিউনিটি পুলিশিংয়ের সদস্যরা প্রমুখ।

উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিংয়ের সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম বক্তব্যে বলেন, মাদক ও সন্ত্রাস নির্মূল করতে হলে টেকনাফের ওসি প্রদীপ কুমার দাসের কোন বিকল্প নেই। ওসির প্রদীপের বিরুদ্ধে গভীর ভাবে বিভিন্ন ধরণের ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। উক্ত ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে রুখে দাড়াঁতে হবে। আপনারা যারা উপস্থিত হয়েছেন চোখ বন্ধ করে আল্লাহকে হাজির নাজির করে একটু চিন্তা করেন। ওসি প্রদীপ আসার পর থেকে মাদক কি কমেছে, নাকি বেড়েছে। আমার জানামতে অবশ্যই কমেছে।


উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিংয়ের সভাপতি নুরুল হুদা বলেন,এখনও যারা সন্ত্রাসী,মাদক ব্যবসায়ী,খুচরা ইয়াবা ব্যবসায়ী,সেবনকারীরা ব্যবসা করে যাচ্ছেন তাদের উদ্দেশ্যে বলেন এখনো সময় আছে ভাল হয়ে যাও। যদি ভাল পথে ফিরে না আসলে তাহলে তোমাদের পরিণতি হবে ভয়াবহ। আমরা চাই মাদকমুক্ত টেকনাফ। বন্দুকযুদ্ধে যে শতাধিক লোক নিহত হয়েছেন,তার মধ্যে কেউ কি নিরীহ লোক ছিলো কেউ প্রমাণ দিতে পারবেন। তিনি আরো বলেন,মানুষ এখন মাদকের বিরুদ্ধে সোচ্চার। যার ফলে এখানে কোন মাদক ব্যবসায়ীর ঠাঁই হবে না।ওসি প্রদীপ থানায় আসার পর থেকে মাদকের বিরুদ্ধে যে ভূমিকা রেখেছেন তা প্রশংসার দাবিদার।।ওসি প্রদীপের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধরণের ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে। একটি মাপিয়া চক্র চাইতেছে ওসিকে থানা থেকে সরাতে পারলে,এরা আবার এসে মাদক ব্যবসা শুরু করতে পারবেন। ওসি প্রদীপ চলেগেলে আবারও পূনরায় আগের মতোই বেড়ে যাবে। মাদক নির্মূলে ওসি কমিউনিটি পুলিশিং একার পক্ষে সম্ভব হবে না। সবাই যদি ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করি তাহলে মাদক বন্ধ হয়ে যাবে।আমি আপনাদের সব সময় মাদক নির্মূলে সহযোগিতা করে যাবো।মাদক ব্যবসায়ীরা খুবই ভয়ংকর এরা যদি আবার আসতে পারে তাহলে আপনার আমার নিরাপত্তা থাকবে না।যারা খুচরা ইয়াবা ব্যবসায়ী ও সেবনকারী রয়েছেন আপনারা ভাল পথে ফিরে না আসলে পরিনতি ভয়ংকর হবে।

Leave a Response

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.