টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

টেকনাফে ট্রলার ডুবিতে মৃত্যুর ঘটনায় ২১ নিরীহ ব্যাক্তিকে আসামী করে হত্যা মামলা !

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : রবিবার, ১২ মে, ২০১৩
  • ১৪৫ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

রমজান উদ্দিন পটল,টেকনাফ ককসবাজার সংবাদদাতা :  টেকনাফে সমুদ্র পথে আদম পাচারকালে ট্রলার ডুবিতে ১ ব্যাক্তির মর্মান্তিক মৃত্যুর ঘটনায় বিরুধী দলীয় নেতাকর্মী ও এলাকার আধিপত্য নিয়ে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়া নিরীহ ব্যাক্তিদের আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করায় সাধারণ মানুষের মধ্যে ক্ষোভ ও তোলপাড়ের সৃষ্টি হয়। এছাড়া হেফাজতে ইসলামের ৫মে ঢাকা অবরোধের ঘটনায় রবি সার্কেলের সরকার বিরোধী অপপ্রচারনা ও রাজপথে বিপুল সংখ্যক হেফাজত কর্মী নিহত হয় র্মমে সর্বত্র ছড়িয়ে পড়া গুজব নিয়ে টেকনাফে ব্যাপক বাকবিতন্ডা –মারামারির ঘটনা ঘটেছে। অবরোধ নিয়ে গুজবের বিষয়টি সাধারণ লোজনের মধ্যে আলোচনাকালে অপ্রীতিকর ঘটনার বিষয়টি দলীয় পর্যায়ে এনে একটি মহল নানন অপতৎপরতা শুরু করে। ক্ষমতাসীন দল সমর্থিত গুটি কয়েক ব্যাক্তিরা স্থানীয় লোকজনদের হয়রানীর অপচেষ্টা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ নিয়ে এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে নানান প্রতিক্রিয়া ও  ব্যাপক আলোচনা সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে। এসব ঘটনায় এলাকায় ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগের ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন হচ্ছে বলে সাধারণ লোকজন মত প্রকাশ করেছেন।
স্থানীয় সুত্রে জানাযায়-টেকনাফের সাবরাং উপকূল দিয়ে অবৈধভাবে সমুদ্রপথে মালয়েশিয়া যাত্রাকালে গত ৬ এপ্রিল সাগরে ট্রলার ডুবে উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের উনছিপ্রাং এলাকার কবির আহমদেও পুত্র আবুল কালাম মারা যায়। ঘটনার ১০দিনপর ১৬ এপ্রিল মৃত আবুল কালামের স্ত্রী মোবাস্সরা বেগমকে ফুসলিয়ে স্থানীয় অসাধু ব্যাক্তিরা অনুদান দেয়ার কথা বলে থানায় নিয়ে যায় এবং অনুদান পত্র ও সাধারণ ডায়েরীর নামে একটি লিখিত কাগজে মোবাশশরা বেগমের সাক্ষর নিয়ে উপজেলার বিভিন্ন এলাকার রাজনৈতিক নেতাকর্মী ও স্থানীয় নিরীহ ব্যাক্তিসহ ২১জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। অসহায় গৃহবধু স্বয়ং মামলায় বিরুধী দলীয় নেতাকর্মী ও নিরীহ ব্যাক্তিদের আসামী দেয়া সম্পর্কে অজ্ঞতা প্রকাশ করে মামলা দায়েরের বিষয়টি অস্বীকার করেন। মামলার সম্পর্কে জানতে চাইলে উক্ত গৃহবধু  বলেন- আমার স্বামী ট্রলার ডুবিতে মারা যায়। আমি এ বিষয়ে হত্যা মামলা দায়ের করিনি। আমাকে এলাকার স্থানীয় কিছু ব্যাক্তি আনুদান দেয়ার কথা বলে থানায় নিয়ে যায়। এ ঘটনাটি টেকনাফের রাজনীতি ও সাধারণ মহলে আলোচনা সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে। সরকারী দলের নামে অসাধু ব্যাক্তিদের এসব অপকর্ম নিয়ে দুর্নাম বাড়ছে। যে কারণে এলাকায় আ:লীগের জনপ্রিয়তা ক্ষুন্ন হচ্ছে বলে অনেকে মনে করেন। এদিকে হেফাজতে ই্সলামের ঢাকা অবরোধের ঘটনায় রবি সার্কেলের মাধ্যমে মোবাইলে মোবাইলে অপপ্রচার ছড়িয়ে পড়া অপপ্রচার নিয়ে গত ৮ মে বিকাল ৫টায় উপজেলার হোয়াইক্যংউিনিয়নের কানজর পাড়া এলাকায় চায়ের দোকানে আলোচনাকালে ২ যুবকের বাড়াবাড়ির এক পর্যায়ে মারামারির ঘটনা ঘটেছে বলে জানাগেছে। নুরুল আমিন ও দিলদার হোছনের মধ্যে হাতাহাতি মারামারির ঘটনাটি রাজনীতিতে চালিয়ে দিয়ে রাষ্ট্র বিরুধী অপপ্রচারর অযুহাত তুলে স্থাণীয় বাজার কমিটির সেক্রেটারী অসহায় পঙ্গু ব্যবসায়ী সিকান্দার, দিলদার হোছাইন, স্থানীয় শিক্ষকসহ রিীহ ব্যাক্তিদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করার ঘটনা নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে ক্ষোভ ব্যাপক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। ##########

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT