টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :

টেকনাফে ছবিযুক্ত ভোটার তালিকা হালনাগাদে ১,৬৮২ ফরম বাতিল

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৮ নভেম্বর, ২০১২
  • ১৭১ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

  হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম, টেকনাফ/ 

রোহিঙ্গা অধ্যুষিত উপজেলা হওয়ায় অত্যন্ত কঠোরতা ও ব্যাপক আলোচনা সমালোচনার মাধ্যমে টেকনাফে ছবিযুক্ত ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রমের প্রাথমিক কাজ সম্পন্ন হয়েছে। এতে বিশেষ কমিটির যাছাই বাছাইয়ে ১ হাজার ৬৮২ টি ফরম বাতিল করা হয়েছে। তাদেরকে আপিল করার সুযোগ দেয়া হবে। তাছাড়া ২৬৫ জন ভোটার রেজিষ্ট্রেশন সেন্টারে ছবি তোলার জন্য উপস্থিত হয়নি। সংশ্লিষ্ট দায়িত্বশীল সুত্রে এ তথ্য জানা গেছে। জানা যায়, ৭ অক্টোবর থেকে ২০ নভেম্বর পর্যন্ত টেকনাফ উপজেলার ৬টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভায় একযোগে ছবিযুক্ত ভোটার হালনাগাদ কার্যক্রম চলে। এতে প্রাথমিকভাবে ১৩ হাজার ২৮৮ ব্যক্তি ছবিযুক্ত ভোটার তালিকায় অন্তর্ভূক্তির জন্য ফরম পূরন করেন। যার শতকরা হার ১১ দশমিক ৪৩ শতাংশ। তম্মধ্যে কমিশনের গঠিত বিশেষ কমিটি কর্তৃক ১ হাজার ৬৮২ টি ফরম বাতিল হয়। যার শতকরা হার ১ দশমিক ৪৫ শতাংশ।  ১১ হাজার ৬০৬ টি ফরম গৃহীত হয়। যার শতকরা হার ৯ দশমিক ৯৯ শতাংশ। টেকনাফ সদর ইউনিয়নে পূরণকৃত ফরম সংখ্যা ২২১৫, গৃহীত ফরম সংখ্যা ১৮২৭, বাতিলকৃত ফরম সংখ্যা ৩৮৮, রেজিষ্ট্রেশনকৃত ভোটার সংখ্যা ১৭৮৭ ও রেজিষ্ট্রেশন কেন্দ্রে অনুপস্থিতির সংখ্যা  ৪০ জন। হোয়াইক্যং ইউনিয়নে পূরণকৃত ফরম সংখ্যা ২৫১১, গৃহীত ফরম সংখ্যা ২২৭৪, বাতিলকৃত ফরম সংখ্যা ২৩৭, রেজিষ্ট্রেশনকৃত ভোটার সংখ্যা ২২১৪ ও রেজিষ্ট্রেশন কেন্দ্রে অনুপস্থিতির সংখ্যা ৬০ জন। হ্নীলা ইউনিয়নে পূরণকৃত ফরম সংখ্যা ২৪১৬, গৃহীত ফরম সংখ্যা ২২১০, বাতিলকৃত ফরম সংখ্যা ২০৬, রেজিষ্ট্রেশনকৃত ভোটার সংখ্যা ২১৪৮ ও রেজিষ্ট্রেশন কেন্দ্রে অনুপস্থিতির সংখ্যা  ৬২ জন। বাহারছড়া ইউনিয়নে পূরণকৃত ফরম সংখ্যা ১৭১৮, গৃহীত ফরম সংখ্যা ১৫৬০, বাতিলকৃত ফরম সংখ্যা ১৫৮, রেজিষ্ট্রেশনকৃত ভোটার সংখ্যা ১৫৩৮ ও রেজিষ্ট্রেশন কেন্দ্রে অনুপস্থিতির সংখ্যা  ২২ জন। সাবরাং ইউনিয়নে পূরণকৃত ফরম সংখ্যা ২৬৬২, গৃহীত ফরম সংখ্যা ২৩১৪, বাতিলকৃত ফরম সংখ্যা ৩৪৮, রেজিষ্ট্রেশনকৃত ভোটার সংখ্যা ২২৫৭ ও রেজিষ্ট্রেশন কেন্দ্রে অনুপস্থিতির সংখ্যা  ৫৭ জন। সেন্টমার্টিনদ্বীপ ইউনিয়নে পূরণকৃত ফরম সংখ্যা ৩৫৭, গৃহীত ফরম সংখ্যা ৩৩২, বাতিলকৃত ফরম সংখ্যা ২৫, রেজিষ্ট্রেশনকৃত ভোটার সংখ্যা ৩২৯ ও রেজিষ্ট্রেশন কেন্দ্রে অনুপস্থিতির সংখ্যা  ৩ জন ও টেকনাফ পৌরসভায় পূরণকৃত ফরম সংখ্যা ১৪০৯, গৃহীত ফরম সংখ্যা ১০৮৯, বাতিলকৃত ফরম সংখ্যা ৩২০, রেজিষ্ট্রেশনকৃত ভোটার সংখ্যা ১০৬৮ ও রেজিষ্ট্রেশন কেন্দ্রে অনুপস্থিতির সংখ্যা  ২১ জন। উল্লেখ্য বর্তমানে টেকনাফ উপজেলায় মোট ভোটার সংখ্যা ১ লক্ষ ১৬ হাজার ১৭৭ জন। তম্মধ্যে টেকনাফ সদরে ২০,৭৩৮ জন, হোয়াইক্যংয়ে ২২,৯৪৮ জন, হ্নীলায় ২০,০৫৪ জন, বাহারছড়ায় ১৪,৭০২ জন, সাবরাংয়ে ২৪,২০৮ জন, স্টেমার্টিনদ্বীপে ২,৪১৫ জন ও পৌরসভায় ১১,১১২ জন। টেকনাফ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা সাইয়েদ মোঃ আনোয়ার খালেদ এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, হালনাগাদ কার্যক্রম শেষে ১১,৩৪১ জনের ছবিযুক্ত ভোটার অন্তর্ভূক্তির চুড়ান্ত তালিকা নির্বাচন কমিশনে প্রেরন করা হয়েছে। বিশেষ কমিটি কর্তৃক বাতিলকৃত ১,৬৮২ টি ফরম বিষয়ে তিনি আরো বলেন, তারা আপিলের সুযোগ পাবেন। গ্রামাঞ্চলের সাধারণ মানুষ স্বাক্ষ্য প্রমাণসহ কক্সবাজার জেলা শহরে গিয়ে হয়রানীর শিকার হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, তাদের স্বার্থ বিবেচনা করে আপিল শুনানি এবং সিদ্ধান্ত গ্রহন টেকনাফ উপজেলায় সম্পন্ন করার চিন্তা ভাবনা চলছে। এদিকে কঠোরতা সত্বেও  বিশেষ কমিটি কর্তৃক এত বেশী পরিমাণ ফরম বাতিল হওয়ায় সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিসহ সচেতন মহলে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। এমনিতেই টেকনাফ উপজেলায় পর্যাপ্ত পরিমাণ ফরম সরবরাহ দেয়া হয়নি। উপরন্তু রোহিঙ্গা অধ্যূষিত উপজেলা হিসেবে জুড়ে দেয়া হয়েছিল বিশেষ ফরম। তাছাড়া কিভাবে ফরম পূরণ করা হবে এবং কি কি কাগজপত্র সংযুক্ত করতে হবে তা প্রশিক্ষনের মাধ্যমে তথ্য সংগ্রহকারী ও সুপারভাইজারদের জানিয়ে দেয়া হয়েছিল। এতকিছুর পরেও দেড় হাজারের অধিক ফরম বাতিল হওয়া অস্বাভাবিক। প্রাথমিকভাবে কাজ শেষ হলেও বহুমূখী অনিয়মের কথা শেষ হচ্ছেনা। ভোটার হওয়ার যোগ্য শতশত নারী-পুরুষ প্রত্যেক ইউনিয়ন থেকেই বাদ পড়েছে। আবার ভূয়া কাগজ পত্রের মাধ্যমে কিছু কিছু রোহিঙ্গাও তালিকাভূক্ত হয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। চাহিত যাবতীয় কাগজ পত্র দেয়ার পরও ভোটার তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন এমন ঘটনাও কম নয়। স্ক্যানিং মেশিনের  বদৌলতে ভূয়া কাগজ পত্র তৈরি, অনাত্মীয় ব্যক্তিকে আত্মীয় সাজানো ইত্যাদি মূখরোচক আলোচনা এখন সবার মূখে মুখে। বিশেষ ফরমের গ্যাড়াকলে পড়ে অনেক নিরীহ ও প্রকৃত ভোটার হওয়ার যোগ্য ব্যক্তিও বাদ পড়েছে হালনাগাদ ছবিযুক্ত ভোটার তালিকা থেকে। ফরম সংকটের কারণে উল্লেখ যোগ্য সংখক নারী পুরুষ তালিকাভূক্ত হতে না পারায় খোদ বর্তমান সরকার দলীয় এমপি আলহাজ্ব আবদুর রহমান বদি তীব্র অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। অবশ্যই এ প্রসঙ্গে টেকনাফ উপজেলা নির্বাচন অফিসার সাইয়েদ মোহাম্মদ আনোয়ার খালেদ বলেন, এটা চলমান প্রক্রিয়া। ভোটার হওয়ার যোগ্য প্রকৃত বাংলাদেশী একজনও বাদ যাবেনা। কিন্তু সচেতন মহলের প্রশ্ন এতবেশী ফরম বাতিলের জন্য দায়ী কে? 

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

One response to “টেকনাফে ছবিযুক্ত ভোটার তালিকা হালনাগাদে ১,৬৮২ ফরম বাতিল”

  1. Amir hossain says:

    Taknaf upzilai badpora votar der abar halnagd chai.

Leave a Reply to Amir hossain Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT