টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
টেকনাফে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের গুলিতে সিএনজি চালক খুন তালিকা দিন, আমি তাঁদের নিয়ে জেলে চলে যাব: একজন পুলিশও পাঠাতে হবে না: বাবুনগরী টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের উদ্যোগে মানসিক রোগিদের মধ্যে খাবার বিতরণ বাংলাদেশে নারীর গড় আয়ু ৭৫, পুরুষের ৭১: ইউএনএফপিএ ফেনসিডিল বিক্রির অভিযোগে ৩ পুলিশ কর্মকর্তা প্রত্যাহার দেশের ৮০ ভাগ পুরুষ স্ত্রীর নির্যাতনের শিকার’ এ বছর সর্বনিম্ন ফিতরা ৭০ টাকা, সর্বোচ্চ ২৩১০ হেফাজতের বর্তমান কমিটি ভেঙে দিতে পারে: মামলায় গ্রেফতার ৪৭০ জন মৃত্যু রহস্য : তিমি দুটি স্বামী – স্ত্রী : শোকে স্ত্রী তিমির আত্মহত্যাঃ ধারণা বিজ্ঞানীর দেশে নতুন করে দরিদ্র হয়েছে ২ কোটি ৪৫ লাখ মানুষ

টেকনাফে কাষ্টম কর্মকর্তার যোগসাজসে পন্য ছাড়িয়ে নেওয়ার অভিযোগ

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৯ জুলাই, ২০১৩
  • ১০৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

সাইফুল ইসলাম চৌধুরী, টেকনাফ :::কাষ্টম কর্মকর্তার যোগসাজসে ভূয়া নামে ১৪ ল টাকার পন্য ছাড়িয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে-  বিজিবির জব্দকৃত ১৪ ল টাকার কসমেটিক যাবতীয় পন্য কাষ্টম থেকে ভূয়া নাম ব্যবহার করে এক ব্যক্তি ছাড়িয়ে নিতে ব্যাপক তৎপরতা শুরু করেছে বলে এমন অভিযোগ উঠেছে। মিয়ানমার এক ব্যবসায়ীর মালামাল টেকনাফ সীমান্ত থেকে পাচারে সজীব স্টোর নামক একটি ব্যবসা প্রতিষ্টানের নাম ব্যবহার করে নিজের মাল ভূয়া সেজে কৌশলে টেকনাফের উদেশ্যে বেশ কিছু ফেয়ার এন্ড লাভলী নিয়ে আসছিল । গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টেকনাফ হোয়াইক্যং চেকপোষ্টে বিজিবির সদস্যরা বাসটি তল্লাশী চালিয়ে দেখতে পায় ২”শ ফেয়ার এন্ড লাভলী কাটনের ভিতরে অতিরিক্ত ফেয়ার এন্ড লাভলী ভর্তি করে মিয়ানমারের নাগরিক। তখন বিজিবি চ্যলেঞ্জ  করে- যে প্যাকেটে ৭২পিচ ফেয়ার এন্ড লাভলী থাকার কথা, সে প্যাকেটে ৩’শ ও তার চেয়ে বেশি ফেয়ার এন্ড লাভলী ভর্তি করে কাটন করা হয়েছে । তাই অতিরিক্ত ১৮ হাজার পিচ ফেয়ার এন্ড লাভলী জব্দ করে মামলা দেয় বিজিবি । যার মূল্য ১৪ ল টাকারও বেশি । অভিযান করা কোম্পানি কমান্ডার সিরাজুল ইসলাম জানায়- যেসব কাটনে ৭২পিচ ফেয়ার এন্ড লাভলী থাকার কথা,সে সব কাটনে ৩ ’শ এর বেশি ফেয়ার এন্ড লাভলী ভর্তি করে । তাই কাগজের বাইরের অতিরিক্ত ১৮ হাজার ফেয়ার এন্ড লাভলী জব্দ করে কাষ্টমে জমা  দেওয়া হয়েছে । এদিকে একটি সূত্রে জানা গেছে- কাষ্টমে জমাকৃত পন্য সজীব তার পিতা বক্কর সওদাগরকে ওই পন্যের মালিক দেখিয়ে কাষ্টম থেকে ৫ ল টাকায় কন্ট্রাক করে নিয়ে নেওয়ার জোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে । অপর দিকে প্রশ্ন উঠেছে এসব পন্য গুলো কাষ্টমে জমা দেওয়া হয়েছে প্রায় মাস হয়ে গেছে । কিন্তু কি কারনে এতদিন ধরে নিলামে দিচ্ছেনা তা ব্যাপক প্রশ্ন দেখা দিয়েছে । উল্লেখ্য,সজীব স্টোর ক্রোকারিজের দোকান। এতে ফেয়ার এন্ড লাভলী বিক্রির কোন প্রশ্ন আসে না। এ ব্যাপারে তদন্ত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে সচেতন মহল জোর দাবী জানিয়েছেন।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT