টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
টেকনাফে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের গুলিতে সিএনজি চালক খুন তালিকা দিন, আমি তাঁদের নিয়ে জেলে চলে যাব: একজন পুলিশও পাঠাতে হবে না: বাবুনগরী টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের উদ্যোগে মানসিক রোগিদের মধ্যে খাবার বিতরণ বাংলাদেশে নারীর গড় আয়ু ৭৫, পুরুষের ৭১: ইউএনএফপিএ ফেনসিডিল বিক্রির অভিযোগে ৩ পুলিশ কর্মকর্তা প্রত্যাহার দেশের ৮০ ভাগ পুরুষ স্ত্রীর নির্যাতনের শিকার’ এ বছর সর্বনিম্ন ফিতরা ৭০ টাকা, সর্বোচ্চ ২৩১০ হেফাজতের বর্তমান কমিটি ভেঙে দিতে পারে: মামলায় গ্রেফতার ৪৭০ জন মৃত্যু রহস্য : তিমি দুটি স্বামী – স্ত্রী : শোকে স্ত্রী তিমির আত্মহত্যাঃ ধারণা বিজ্ঞানীর দেশে নতুন করে দরিদ্র হয়েছে ২ কোটি ৪৫ লাখ মানুষ

টেকনাফে আমনের পাশাপাশি লবণাক্ত সহিঞ্চু ধানের বাম্পার ফলন

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৬ ডিসেম্বর, ২০১২
  • ১৬০ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম, টেকনাফঃ…………..teknaf pic-26.12 আমনের পাশাপাশি এবছর টেকনাফ উপজেলায় ‘লবণাক্ততা সহিঞ্চু’ জাতের ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। এবারে টেকনাফ উপজেলায় ১০ হাজার ২০০ হেক্টর জমিতে আমন চাষাবাদ হয়েছে। তম্মধ্যে ১ হাজার ৩৩৫ হেক্টর জমিতে ৩টি জাতের লবণাক্ত সহিঞ্চু রোপা আমন এবং ৯ হাজার ৪৮৭ হেক্টর জমিতে ১২টি জাতের উচ্চ ফলনশীল(উফশী) ও ৪টি স্থানীয় জাতের চাষাবাদ হয়েছিল। বর্তমানে টেকনাফের ঘরে ঘরে চলছে নবান্নের উৎসব। লবণাক্ততা সহিঞ্চু ৩টি জাতের মধ্যে রয়েছে ব্রীধান-৪০ জাত ২৯৩ হেক্টর, ব্রীধান-৪১ জাত ৯২২ হেক্টর ও টেকনাফ উপজেলায় এবারেই প্রথম বিনা-৭ জাত ১২০ হেক্টর। উচ্চ ফলনশীল(উফশী) ১২টি জাতের মধ্যে ছিল- বিআর-৩, বিআর-১০, বিআর-১১, বিআর-২৩, ব্রীধান-৩৩, ব্রীধান-৩২, ব্রীধান-৩৩, ব্রীধান-৩৮, ব্রীধান-৩৯, ব্রীধান-৪০, ব্রীধান-৪১, ব্রীধান-৪৯, বিনা-৭। স্থানীয় ৪টি জাত হচ্ছে- লুমব্র“, বিন্নী, লাল পাজাম, কালাম পাজাম। সংশ্লিষ্ট সুত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। টেকনাফ উপজেলা কৃষি অফিস সুত্রে জানা যায়- আমন মৌসুমে টেকনাফ উপজেলায় লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল ২৬ হাজার ৮৯৫ মেট্রিক টন চাউল। উৎপাদন হয়েছে ২৬ হাজার ৯৮৮ মেট্রিক টন চাউল। লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৯৩ মেট্রিক টন বেশি উৎপাদন হয়েছে। টেকনাফ উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মোঃ আব্দুল লতিফ জানান- টেকনাফ উপজেলায় গত কয়েক বছর ধরে লবণাক্ত সহনশীল জাতের ধান চাষাবাদ হয়ে আসলেও এবছর পরীক্ষামূলক ভাবে উচ্চ ফলনশীল(উফশী) বিনা-৭ জাতের ১২০ হেক্টর জমিতে চাষাবাদ করা হয়েছিল। এতে আশাতীত ফলন হয়েছে। তাছাড়া লবণাক্ততা সহিঞ্চু উচ্চ ফলনশীল (উফশী) বিনা-৭ জাতের কৃষক পর্যায়ে ৪টি প্রদর্শনী প্লট দেয়া হয়েছিল। তা হচ্ছে- হ্নীলা লেচুয়াপ্রাং নুর আহমদ, টেকনাফ সদর গুদারবিলের জাহাঙ্গীর আলম, সাবরাং মন্ডলপাড়ার নুর আহমদ ও আলীরডেইলের নুর আহমদ। এসব প্রদর্শনী প্রত্যেকটা ১ একর করে। এদেরকে ৫কেজি করে বীজ দেয়া হয়েছিল। লক্ষ্য মাত্রা ছিল হেক্টর প্রতি ৪.২ মেট্রিক টন। এদিকে আমনের উচ্চ ফলনশীল(উফশী) ১২টি জাতের লক্ষ্যমাত্রা ছিল হেক্টর প্রতি ২.৭২ মেট্রিক টন এবং স্থানীয় ৪টি জাতের লক্ষ্যমাত্রা ছিল হেক্টর প্রতি ১.৫৯ মেট্রিক টন। বর্তমানে বোরো মৌসুমে ৯৬০ হেক্টর জমিতে চাষাবাদ হচ্ছে। এই বোরো মৌসুমেও উপজেলার ৪টি ইউনিয়নে কৃষক পর্যায়ে ৬টি প্রদর্শনী প্লট দেয়া হয়েছে। তম্মধ্যে বিনা-১০ এর একজন এবং ব্রীধান-৮ জাতের ৫ জন। এদিকে নেকম নামক একটি সংস্থা তাদের প্রকল্প এলাকায় ২২ জন কৃষককে লবণাক্ত সহিঞ্চু ব্রীধান-৩৮ ও ব্রীধান-৪৬ জাতের ১০ কেজি করে ধানের বীজ দিয়েছিল। এরা হচ্ছে- বড়ডেইল মাষ্টার হোছন আহমদ, শামলাপুর জাকের হোসেন, শীলখালীর মোঃ ছলিম, মুজিবুর রহমান, দক্ষিণ মহেষখালীয়াপাড়ার নুরুল বশর, পশ্চিম মহেষখালিয়াপাড়ার আলী হোসেন, বাহারছড়ার নুুরুল আলম, শাহপরীরদ্বীপ জালিয়াপাড়ার আব্দুল গণি, শাহপরীরদ্বীপ পশ্চিমপাড়ার হাফেজুল্লাহ, নুর আহমদ, হাদুছড়ার আব্দুল হাকিম, আবুল কালাম, খুরের মুখ ফজলুল করিম, ইছমাইল, মৌঃ ছৈয়দ আহমদ, হারিয়াখালীর নুরুল হক, শাহপরীরদ্বীপ মাঝেরপাড়ার কবির আহমদ। নেকমের কনজারভেশন বায়োলজিষ্ট কৃষিবিদ মোঃ কামরুল আহসান জানান- এতে আশাতীত ফলন হয়েছে।########

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT