টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

টেকনাফের হ্নীলায় এলাকাবাসীর উদ্যোগে নির্মিত হচ্ছে ব্রীজ

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : রবিবার, ১৬ জুন, ২০১৩
  • ১৬৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

Teknaf pic-16-06-2013জসিম উদ্দিন টিপু, টেকনাফ।        =
টেকনাফের হ্নীলা জাদীমুরায় এলাকাবাসীর উদ্যোগে নির্মিত হচ্ছে সুদীর্ঘ একটি ব্রীজ। সরকারী-বেসরকারীভাবে নির্মাণ পৃষ্টপোষকতায় কেউ এগিয়ে না আসায় অবশেষে এলাকাবাসীর উদ্যোগে নির্মিত হচ্ছে । জানাগেছে, ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের জাদীমুরা পশ্চিম নয়াপাড়া এলাকায় জাদীর খালের উপর ব্রীজ না থাকায় দীর্ঘ ২ যুগ ধরে এলাকাবাসীকে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। পানি চলাচলের গভীর এ খালের উপর ব্রীজ না থাকায় ছাত্র-ছাত্রীদের পড়াÑলেখার মারাত্মক ব্যাঘাত সৃষ্টি হচ্ছে বলে স্কুল পড়–য়া শিক্ষার্থীরা তাদের মনের কথা দু:খের সাথে এ প্রতিবেদককে জানান। গ্রীষ্ম-বর্ষা সব ঋতুতে খালটিতে নিয়মিত পানি থাকায় শিক্ষার্থী, বৃদ্ধ, শিশু, মহিলা, রোগীদের দু:খের সীমা ছাড়িয়ে যাচ্ছে। জাদীমুরা পশ্চিম নয়াপাড়া এলাকায় প্রায় ১ হাজার পরিবার তথা ৫ হাজার লোকের বসতি। সরকারের পরিবর্তন হয় পরিবর্তন হয় না কেবল এখানকার মানুষের নিয়তি। গত মাসের শুরুর দিকে সুদীর্ঘ ব্রীজটি নির্মাণের জন্য এলাকাবাসী হয়ে উঠেন উদ্যোগী। মহতি এ উদ্যোগে নিজেরাই নিজেদের মত করে ব্রীজ নির্মাণে ব্যয় ধরেছেন ৩ লক্ষ টাকা। ৭০ ফুট দৈর্ষ্য ৮ ফুট প্রস্থ সরু ব্রীজটি তৈরী করতে এলাকার সর্ব সাধারণের কাছ থেকে সাধ্য মত সহযোগীতা নেওয়া হচ্ছে। ৫০-১শ টাকা থেকে শুরু করে সাধ্যমত সবাই এগিয়ে আসছে ব্রীজ নির্মাণে। ফান্ডের অভাবে বর্তমানে ব্রীজ নির্মাণের কাজ আটকে গেছে। সরেজমিনে দেখা গেছে, গ্রেড বীম ও প্রিলার নির্মাণের কাজ শেষ হওয়ার পর ফান্ড শূন্যতায় ৭০ ফুট সরু বিশাল ব্রীজটির ছাদের কাজ করা সম্ভব হচ্ছে না। ফলে ঘোর বর্ষায় এখানকার স্কুল পড়–য়া শিক্ষার্থীদের হয়ত ঠিকমত বিদ্যালয়ে যাওয়া হবেনা। নয়াপাড়া এলাকার যুবনেতা মুহাম্মদ জোহার জানান, এই এলাকার মানুষের জীবন যাত্রার উন্নয়নে ব্রীজটি নির্মাণ সহায়তায় এগিয়ে আসার জন্য আমরা উপজেলা চেয়ারম্যান, ইউপি চেয়ারম্যান, মেম্বার থেকে শুরু করে প্রায় সব খানে ধরণা দিয়েছি । কিন্তু কেউ ব্রীজ নির্মাণে এগিয়ে না আসায় অনেকট নিরুপায় হয়ে এলাকার প্রতিটি মানুষ জীবন বাজী রেখে ব্রীজ নির্মাণের সহযোগীতায় এগিয়ে আসে। অসাধ্যকে সাধ্য করা সম্ভব হলেও খেটে খাওয়া এসব মানুষের কাছে বাস্তবে তা অসম্ভব। বর্তমানে ফান্ড সমস্যায় ব্রীজের বাকী অর্ধেক কাজ আটকে আছে। এলাকাবাসীর আশা এই সময়ে হলেও সরকারী বা বেসরকারীভাবে কেউ না কেউ নিদারুণ কষ্ট থাকা এলাকাবাসীর দু:খ লাগবে এগিয়ে আসবে। এ ব্যাপারে হ্নীলা ইউপির চেয়ারম্যান মাষ্টার মীর কাশেম জানান, আমরা গত বাজেটে পিআইও অফিসের নির্দেশনা অনুযায়ী মানুষের সীমাহীন দু:খের কথা ভেবে নয়াপাড়া এলাকার উক্ত ব্রীজ নির্মাণের চাহিদা পাঠিয়েছিলাম। কিন্তু বিশেষ কি কারণে হল না। সেটি আমি বলতে পারব না। তবে তিনি আগামী বাজেটেও ব্রীজটি নির্মাণের চাহিদা পাঠানোর কথা জানান। স্থানীয় অসহায় এলাকাবাসীরা জরুরী ভিত্তিতে ব্রীজ নির্মাণ সহায়তায় এগিয়ে আসার জন্য সরকারী ও বেসরকারী সকলের সহযোগীতা কামনা করেছেন। ################

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT