টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :

টানাবর্ষণে পেঁয়াজ-মরিচের দর বাড়তি, মাছের বাজার নরম

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : সোমবার, ১ জুলাই, ২০১৩
  • ১৬৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

 

 

 

 

 

 

ডেস্ক নিউজ:-কয়েকদিনের টানা বর্ষণে ঢাকা মহানগরীর বাজারগুলোতে পেঁয়াজ, কাঁচা মরিচের দর বেড়েছে। তবে নরম সুরে মাছের দাম হাঁকাচ্ছেন বিক্রেতারা। তুলনামূলকভাবে স্থিতিশীল রয়েছে সবজিসহ অন্যান্য ভোগ্য পণ্যের দাম।   রোববার রাজধানীর শান্তিনগর কাচাঁবাজার, মোহম্মদপুর কৃষি মার্কেট, পুরান ঢাকার সূত্রাপুর ও রায় সাহেব বাজার ঘুরে এমন চিত্রই পাওয়া গেছে।

বাজার ঘুরে দেখা যায়, প্রতিকেজি দেশি পেঁয়াজ গত সপ্তাহের ৩৮ থেকে ৪০ টাকার পরিবর্তে বেড়ে ৪৫ থেকে ৪৮ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। একই সঙ্গে বড় পেঁয়াজ (আমদানি করা) আগের ৩০ থেকে ৩২ টাকার পরিবর্তে বেড়ে ৪২ থেকে ৪৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

আবার কয়েকদিনের বর্ষণের কারণে কাঁচা মরিচ ৩৫ থেকে ৪০ টাকার পরিবর্তে এ সপ্তাহে ৫৫ থেকে ৬০ টাকায় কেজি বিক্রি হচ্ছে।

আলু ছাড়া স্থিতিশীল আছে অন্যান্য সবজির দাম। বেশির ভাগ সবজিই আগের দামে বিক্রি হচ্ছে।

গত সপ্তাহে প্রতি কেজি আলুর দাম ছিল ১২ থেকে ১৫ টাকা, এখন তা কিনতে গেলে ক্রেতাকে ১৬ থেকে ২০ টাকা গুনতে হবে। তবে অন্যান্য সবজি বেগুন, শসা, টমেটো, পটল, পেঁপে, ঢেঁড়শ, বরবটি, ঝিঙে, করলা, কাকরোল আগের দামেই বিক্রি হচ্ছে।

প্রতিহালি কাগুজি লেবু ১০ থেকে ১২, কলম্বো লেবু ১৪ থেকে ১৬, এলাচি লেবু ২০ থেকে ২৪ টাকায় পাওয়া যাবে।

সবজি ব্যবসায়ী খলিলুর রহমান বাংলানিউজকে জানান, কয়েকদিনের টানা বর্ষণের পরেও কাঁচা মরিচ, পেঁয়াজ, আলু ছাড়া সবজির দাম বাড়েনি। এই অবস্থার পরিবর্তন না হলে সবজির দর বেড়ে যাবে।

এদিকে, বাজার ঘুরে দেখা যায়, রসুন দোকান ভেদে ৮৫ থেকে ১০০ টাকা, আদা ৮০ থেকে ১০০ টাকা, মুগ ডাল ১৩০ টাকা, দেশি মসুর ডাল ১১৫ থেকে ১২০ টাকা, মোটা মসুর ডাল ৯০ থেকে ৯৫ টাকা, অ্যাংকর ডাল ৬০ থেকে ৭০ টাকা, খেসারি ৬৫ থেকে ৭০ টাকা, ছোলা ৬৮ থেকে ৭২ টাকা, বুট ৭৫ থেকে ৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

সয়াবিন খোলা ১১৫ থেকে ১২০, বোতল ১৩২ টাকা লিটারে বিক্রি হচ্ছে; গত সপ্তাহেও একই দাম ছিল।

তবে টানা বৃষ্টির প্রভাবে ক্রেতাদের সঙ্গে নরম সুরে কথা বলছেন, মাছের বিক্রেতারা। বাজার ঘুরে দেখা যায়, বেশির ভাগ মাছই কেজিতে ৫০ থেকে ১০০ টাকা কমেছে।

এর ফলে প্রতি কেজি বড় রুই ২৫০ থেকে ৩০০ টাকা, ছোট রুই ১৯০ থেকে ২৩০ টাকা, দেশি শিং, মাগুর ৫০০ থেকে ৫৫০ টাকা, বড় চিংড়ি  ৫৫০ থেকে ৬শ টাকা, ছোট চিংড়ি ৩শ থেকে ৮শ টাকা, ছোট তেলাপিয়া ১৪০ থেকে ১৫০ টাকা এবং বড় তেলাপিয়া ১৬০ থেকে ১৮০ টাকা এবং ১৩০ থেকে ১৬০ টাকায় মিলছে ছোট বড় পাঙ্গাশ মাছ।

আবার গত সপ্তাহের ৬শ গ্রামের ইলিশ ৫শ টাকার বদলে অতি নরম সুরে বিক্রেতারা বলছেন- ৪শ টাকা দিয়েন ভাই।

তবে বিক্রম পুরের বড় শিং মাছ কিনতে গেলে ক্রেতাকে কেজিতে একেবারে এক হাজার পাঁচশ টাকা গুনতে হবে।

এছাড়া গরুর মাংস আগের মতোই ২৮০ থেকে ২৯০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে খাসির মাংসের দাম কেজি কত জিজ্ঞাসা করলে বিক্রেতা ঠিক সাড়ে ৪শ টাকা দর হাকালেও আপনি ৪শ টাকাতেই কিনতে পারবেন এক কেজি খাসির মাংস।

ব্রয়লার মুরগিও গত সপ্তাহের ১৬০ থেকে ১৬৫ টাকার দরেই বিক্রি হচ্ছে। তবে প্রতিটি ৫শ গ্রামের দেশি মুরগি একশ ৩০ টাকা, ৮শ থেকে ৯০০ গ্রাম ওজনের দেশি মুরগি গত সপ্তাহের  ২২০ থেকে ২৫০  টাকার স্থলে ২৭০ থেকে ৩০০ টাকায় মিলবে এ সপ্তাহের শুরুতে।

তবে বেশির ভাগ সবজি ও মাছ-মাংসে বাজার ভেদে ৫ থেকে ১০ টাকার ব্যবধান লক্ষ করা গেছে।

বাংলাদেশ ট্রেডিং কর্পোরেশন (টিসিবি) এর তথ্য থেকে জানা যায়, প্রতি কেজি খোলা সাদা আটা ৩০ থেকে ৩২ টাকা, প্যাকেট আটা ৩৫ থেকে ৩৭ টাকা আর ময়দা ৩৮ থেকে ৪৮ টাকা পর্যন্ত দামে বিক্রি হচ্ছে।

টিসিবি’র তথ্য মতে, তবে গত সপ্তাহে দাম বেড়ে কেজি প্রতি জিরা ৩৫০ থেকে ৪২০ টাকার স্থলে ৩৮০ থেকে ৪৫০ টাকা, দারুচিনি ২২০ থেকে ২৪০ টাকার স্থলে ২৩০ থেকে ২৫০ টাকা, আর এলাচি ১১০০ থেকে ১,২৫০ এর স্থলে ১,২০০-১,৫০০ টাকা হওয়ার পর এই সপ্তাহে নতুন করে আর দাম বাড়েনি।

এদিকে, চালের বাজারেও গত সপ্তাহের দাম বজায় আছে। প্রতিকেট মিনিকেট চাল ৪৪/৪৫ টাকা, পুরাতন মিনিকেট ৪৬/৪৭ টাকা, নাজির শাইল ৪৮ থেকে ৫০ টাকা, পুরাতন হাসকি নাজির ৩৮ ও নতুন হাসকি নাজির এবং মোটা চাল ৩৫ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

সূত্রাপুরের হাবিব রাইসের দোকানের মালিক মো. হাবিবুর রহমান বাংলানিউজকে বলেন, “রমজানের আগে চালের দর বাড়ার সম্ভাবনা না থাকলেও টানা বর্ষণ হলে এর ব্যতিক্রম হতে পারে।”

দোকান ভেদে গত সপ্তাহের মতো চিনি বিক্রি হচ্ছে ৪৮ থেকে ৫০ টাকায়।

তবে মহল্লার ছোট্ট কাঁচা বাজারের তুলনায় একটু দূরে বড় কোনো বাজারে গেলে হাজার টাকার বাজারে অনায়াসেই ক্রেতা এক থেকে দেড়শ টাকা সাশ্রয় করতে পারবেন। অবশ্য এজন্য তাকে রিকশা ভাড়া আর একটু বেশি সময় দিতে হবে।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT