টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

জেলা শিবিরের কর্মীশিক্ষাশিবিরে কেন্দ্রীয় নেতা বুলবুল

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : রবিবার, ৩০ জুন, ২০১৩
  • ১১১ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

 

 

 

 

 

শহিদুল ইসলাম জেলা প্রচার সেক্রেটারি: জ্ঞানর্জন ও চরিত্রগঠনের মাধ্যমে সকল জুলুম-নির্যাতনের জবাব দিতে হবে ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় বিতর্ক সম্পাদক ছাত্রনেতা মাসুদুল ইসলাম বুলবুল বলেছেন, বর্তমান সরকার ক্ষমতাসীন হওয়ার পর থেকে সারাদেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সমুহে বই খাতার পরিবর্তে অস্ত্রের কারখানা হিসেবে গড়ে তুলেছে ছাত্রলীগ। কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী শিক্ষার্থীদেরকে গ্রেফতার, খুন-গুম করে শিক্ষাঙ্গনে আতংক সৃষ্টি   করেছে আইন শৃংখলা রক্ষাবাহিনী। ছাত্রলীগের অব্যাহত সন্ত্রাস, টেন্ডারবাজি, ভর্তি বাণিজ্য লাগামহীনভাবে চালিয়ে যাচ্ছে। সরকার দেখেও না দেখান ভান করে আছে।  যার কারণে কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ালেখার পরিবেশ ঝিমিয়ে পড়েছে। দেশের মেধাবী শিক্ষার্থীরা বিদেশমুখী হয়ে পড়েছে। অথচ আ’লীগ তার ছাত্রসংগঠন ছাত্রলীগের লাগাম টেনে না ধরে বরং আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়ে ছাত্রলীগের সন্ত্রাস, ্েটণ্ডার ও ভর্তি বাণিজ্যে উৎসাহিত করেছে। তিনি বলেন, রাষ্ট্রীয় দমন-পীড়ন শিবিরের উপর যত চালাবে ছাত্রশিবির সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গঠনের কর্মসুচী ততই বেগবান করবে। যার প্রকৃষ্ট প্রমাণ সম্প্রতি সারাদেশে ছাত্রশিবির এসএসসি-দাখিল উত্তীর্ণ কৃতি শিক্ষার্থী সম্বর্ধনা ও সপ্তাহব্যাপী দেশময় বৃক্ষরোপন অভিযান। সরকারের সীমাহীন ব্যর্থতা, দুর্নীতি, লুটপাট ও সন্ত্রাস এবং অপশাসনের যাতাকলে জাতি আজ পিষ্ট হয়ে পড়েছে। দেশবাসী আ;লীগ থেকে মুক্তি চায়। দেশের জনগণের মুক্তির আন্দোলন আরো বেগবান করার জন্য ছাত্রজনতাকে অগ্রণী ভুমিকা পালন করার প্রস্ততি নিতে হবে। পাশাপাশি জ্ঞানর্জন ও চরিত্রগঠন মুলক কার্যক্রম কে আরো বেগবান করে আওয়ামী জুলুম নির্যাতনে দাতভাঙ্গা জবাব দেয়ার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। জেলা সভাপতি দিদারুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও অর্থ সম্পাদক সরওয়ার আলমের পরিচালনায় কর্মী শিক্ষাশিবিরে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কেন্দ্রƒীয় বির্তক সম্পাদক মাসুদুল ইসলাম বুলবুল উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কেন্দ্রীয় এইচআরডি সম্পাদক ছাত্রনেতা বদিউল আলম বলেন, কারো হুমকি-ধমকি এবং চোখ রাঙানিকে ছাত্রশিবির পরওয়া করেনা। শিবির একমাত্র এক আল্লাহকে পরওয়া করে চলে। জুলুম নির্যাতন চালিয়ে ছাত্রজনতার ন্যায্য আন্দোলনকে বন্ধ করা যাবেনা। তিনি আরো বলেন, শিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি কোন সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ বা মাস্তান নন। তিনি একজন আল্লাহভীরু ছাত্রনেতা এবং সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গঠনের এক সিপাহসালার। সরকার সম্পুর্ণ প্রতিহিংসার বশবর্তী হয়ে কেন্দ্রীয় সভাপতি উপর অমানুষিক নির্যাতন চালিয়ে জীবনকে হুমকির মুখোমুখি করে তুলেছে। তিনি অবিলম্বে শিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতির নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন অন্যথায় ছাত্রজনতা সবাতর্œক আন্দোলনের  মাধ্যমে সরকারকে নেতৃবৃন্দকে মুক্তি দিতে বাধ্য করবে। কর্মী শিক্ষাশিবিরের আরো বক্তব্য রাখেন পেকুয়া উপজেলা জামায়াত আমীর মাষ্টার আবুল কালাম আযাদ, কক্সবাজার শহর শিবিরের সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ ইলিয়াছ, পেকুয়া উপজেলা শিবির সভাপতি হাফেজ এজহারুল ইসলাম, জামায়াত নেতা মাওলানা ইমতিয়াজ, শিবিরনেতা মু. ইলিয়াছ প্রমুখ।

 

 

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT