টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

ছয় জঙ্গি সংগঠনের বিষয়ে আরও কঠোর সরকার

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৩ অক্টোবর, ২০১৫
  • ১৩৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

url1ডেস্ক রিপোর্ট : বাংলাদেশে নিষিদ্ধ ৬ জঙ্গি সংগঠনের বিষয়ে আরও কঠোর অবস্থান নিয়েছে সরকার। সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদবিরোধী চলমান অভিযান আরও জোরদার করার পাশাপাশি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বেশকিছু প্রশাসনিক পদক্ষেপও গ্রহণ করেছে। এরই অংশ হিসেবে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন আনসারুল্লাহ বাংলা টিম, জেএমবি, জেএমজেবি, শাহাদাত-ই-আল হিকমা, হরকাতুল জিহাদ আল ইসলাম বাংলাদেশ এবং হিযবুত তাহ্রীরের বিষয়ে প্রতিবেশী দেশ ভারত ও মিয়ানমারকে চিঠি দিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এসব সংগঠনের কোনো সদস্যকে ওই দেশ দুটি যেন আশ্রয় না দেয়Ñ সে অনুরোধ করা হয়েছে চিঠিতে। এ সংক্রান্ত চিঠি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো হয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে। এখন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় চিঠি দিয়ে জানিয়ে দেবে দেশ দুটিকে।

ওই চিঠিতে প্রতিবেশী দেশ থেকে এসব জঙ্গি সংগঠনের কোনো সদস্য যেন সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে ঢুকে বিশৃক্সখলা সৃষ্টি করতে না পারে তাও উল্লেখ করা হয়েছে। এসব নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠনের ব্যাংক হিসাব বা সম্পত্তি থাকলে তা বাজেয়াপ্ত করতে বাংলাদেশ ব্যাংকের ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট ও পুলিশের মহাপরিদর্শককে (আইজিপি) অনুরোধ করে পৃথক চিঠি দেওয়া হয়েছে।

৬ নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠনের মধ্যে গত ২৯ সেপ্টেম্বর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় প্রথম আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের বিষয়ে চিঠি দেয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে। গতকাল চিঠি দেওয়া হয়েছে অপর ৫ জঙ্গি সংগঠনের বিষয়ে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, সরকার সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে রয়েছে। এরই অংশ হিসেবে ৬ নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠনের বিষয়ে প্রশাসনিক নানা পদক্ষেপ চলমান রয়েছে।

সন্ত্রাসবিরোধী আইনের ১৮ ধারা অনুযায়ী কোনো সংগঠন নিষিদ্ধ হলে সরকার সেই সংগঠনের কার্যালয় বন্ধ করতে এবং ব্যাংক হিসাব জব্দ করতে পারবে। নিষিদ্ধ সংগঠনের পক্ষে বা সমর্থনে কোনো ধরনের বিবৃতি, প্রচার, প্রকাশনা বা বক্তৃতা দেওয়া যাবে না।

সন্ত্রাসবিরোধী আইনের বিধিমালা ২০১৩-এর ৩ ধারা অনুযায়ী নিষিদ্ধ সংগঠনের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার বিধান রয়েছে। কিন্তু এ পর্যন্ত ছয়টি সংগঠনকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হলেও শুধু হিযবুত তাহ্রীর ছাড়া বাকি সংগঠনগুলোর ব্যাংক হিসাব ও সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বলা হয়নি। প্রতিবেশী দেশগুলোকেও চিঠি দিয়ে অবহিত করা হয়নি।
একের পর এক ব্লগার হত্যা এবং সংগঠনটির নামে দেশের বিশিষ্ট ১০ ব্যক্তিকে হত্যার হুমকি দেওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৫ মে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক আদেশ জারির মাধ্যমে বাংলাদেশে আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সব ধরনের কার্যক্রম নিষিদ্ধ ঘোষণা করে। এর আগে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আরও ৫টি জঙ্গি সংগঠনকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করে। সংগঠনগুলো হলো হরকাতুল জিহাদ, জাগ্রত মুসলিম জনতা বাংলাদেশ (জেএমজেবি), জামা’আতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশ (জেএমবি), শাহাদাত আল হিকমা এবং হিযবুত তাহ্রীর।
গত ২৫ মে সংগঠনটিকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করার পর সন্ত্রাসবিরোধী আইন ২০০৯ অনুযায়ী পরবর্তী আর কোনো কার্যক্রম গ্রহণ করেনি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। ৪ মাস পর ব্যাংক হিসাব জব্দ, সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত এবং প্রতিবেশী দেশগুলোকে অবহিত করার পদক্ষেপ গ্রহণ করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

৬ জঙ্গি সংগঠনের মধ্যে ২০০৩ সালের ৯ ফ্রেব্র“য়ারি শাহাদাত-ই-আল হিকমা, ২০০৫ সালের ২৩ ফেব্র“য়ারি জামা’আতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশ (জেএমবি) ও জাগ্রত মুসলিম জনতা বাংলাদেশ (জেএমজেবি) এবং ২০০৫ সালের ১৭ অক্টোবর হরকাতুল জিহাদ আল ইসলামী বাংলাদেশকে (হুজি-বি) নিষিদ্ধ ঘোষণা করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। ২০০৯ সালের ২২ অক্টোবর হিযবুত তাহ্রীরকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।

সন্ত্রাসবিরোধী আইন অনুযায়ী বাংলাদেশ ব্যাংক গত বছর আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের প্রধান মুফতি জসিমউদ্দিন রাহমানীর ২টি ব্যাংক হিসাব জব্দ করে। যে হিসাবগুলোয় কয়েক কোটি টাকা রয়েছে। জসিমউদ্দিন রাহমানী ছাড়া সংগঠনটির আর কোনো সদস্যের ব্যাংক হিসাব জব্দ করা হয়নি। দৈনিক আমাদের সময়

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT