টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা সবচেয়ে বড় ভুল : ডা. জাফরুল্লাহ মাদক কারবারি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত সাংবাদিক আব্দুর রহমানের উদ্দেশ্যে কিছু কথা! ভারী বৃষ্টির সতর্কতা, ভূমিধসের শঙ্কা মোট জনসংখ্যার চেয়েও ১ কোটি বেশি জন্ম নিবন্ধন! বাড়তি নিবন্ধনকারীরা কারা?  বাহারছড়া শামলাপুর নয়াপাড়া গ্রামের “হাইসাওয়া” প্রকল্পের মাধ্যমে সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ ও বার্তা প্রদান প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ঘর উদ্বোধন উপলক্ষে টেকনাফে ইউএনও’র প্রেস ব্রিফ্রিং টেকনাফের ফাহাদ অস্ট্রেলিয়ায় গ্র্যাজুয়েট ডিগ্রী সম্পন্ন করেছে নিখোঁজের ৮ দিন পর বাসায় ফিরলেন ত্ব-হা মিয়ানমারে পিডিএফ-সেনাবাহিনী ব্যাপক সংঘর্ষ ২শ’ বাড়ি সম্পূর্ণ ধ্বংস বিল গেটসের মেয়ের জামাই কে এই মুসলিম তরুণ নাসের

কানাডায় খ্রিষ্টান গির্জা পরিচালিত স্কুলে সাংস্কৃতিক গণহত্যা: মৃত্যু ৪ হাজার ১শ শিক্ষার্থী: ২১৫ শিশুর দেহাবশেষ উদ্ধার

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : রবিবার, ৩০ মে, ২০২১
  • ৩২৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

টেকনাফ নিউজ ডেস্ক :: কানাডার একটি আবাসিক স্কুল থেকে ২১৫ শিশুর দেহাবশেষ উদ্ধার করা হয়েছে। ব্রিটিশ কলম্বিয়ায় ক্যামপলুপস ইন্ডিয়ান রেসিডেন্সিয়াল স্কুলটি ছিল আদিবাসী শিশুদের জন্য। এটি ১৯৭৮ সালে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। শিশুরা ওই স্কুলেরই শিক্ষার্থী ছিল। বৃহস্পতিবার স্থানীয় একটি আদিবাসী সংগঠন বিষয়টি জানিয়েছে। এ ঘটনাকে হৃদয়বিদারক বলে মন্তব্য করেছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। খবর বিবিসি, এএফপি ও রয়টার্সের।

টিকেমপুলস টি সিকওয়েপেমস নামের আদিবাসী সংগঠনটি এক বিবৃতিতে জানায়, স্কুলে এক জরিপ চলাকালে রাডারের মাধ্যমে ‘গণকবরে’ শিক্ষার্থীদের দেহাবশেষ থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়। সংগঠনের প্রধান রোজান ক্যাসিমির বলেন, ‘প্রাথমিক অনুসন্ধানে অভাবনীয় ক্ষতির বিষয়টি জানা গেছে। মৃতদের মধ্যে কয়েকজনের বয়স ৩ বছরের মতো। স্কুল কর্তৃপক্ষের নথিতে শিক্ষার্থীদের মৃত্যুর বিষয়টি উল্লেখ নেই। জাদুঘর বিশেষজ্ঞ ও শব পরীক্ষকদের নিয়ে শিশুদের মৃত্যুর কারণ ও সময় খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

ঘটনাকে হৃদয়বিদারক আখ্যা দিয়ে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো টুইটবার্তায় বলেন, ‘এ ঘটনা আমাদের দেশের ইতিহাসের লজ্জাজনক ও অন্ধকারময় অধ্যায়কে স্মরণ করিয়ে দেয়।’

কানাডার আবাসিক স্কুল ব্যবস্থায় আদিবাসী শিক্ষার্থীদের জবরদস্তিমূলক পরিবারবিচ্ছিন্ন রাখায় এই ‘সাংস্কৃতিক গণহত্যা’ সংঘটিত হয়েছে। বিলুপ্ত এই শিক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে ছয় বছর ধরে একটি তদন্ত হয়েছে। তদন্তে শিশুদের ওপর বর্বর শারীরিক নির্যাতন, ধর্ষণ, অপুষ্টি ও নৃশংসতার তথ্য উঠে এসেছে। স্কুলটির প্রায় দেড় লাখ শিক্ষার্থী এ বর্বরতার শিকার হয়েছে। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে চার হাজার ১০০ শিক্ষার্থীর। তবে নতুন পাওয়া ২১৫ দেহাবশেষ এই মৃত্যুসংখ্যায় যোগ করা হয়নি। অটোয়ার পক্ষ থেকে খ্রিষ্টান গির্জা স্কুলটি পরিচালিত হতো।

এ ছাড়াও আয়ারল্যান্ডে গির্জা পরিচালিত মা ও শিশু আশ্রয়কেন্দ্রগুলোতে শুধু গত শতব্দীতেই নয় হাজার শিশু মারা যায় ৷ আইরিশ ইতিহাসের এমনই এক কলঙ্কের অধ্যায় উঠে এসেছে সাম্প্রতিক এক গবেষণায়৷

বিংশ শতাব্দিতে আয়ারল্যান্ডে চার্চ পরিচালিত অবিবাহিত নারী ও শিশুদের আশ্রয়কেন্দ্রগুলোতে হাজার হাজার শিশু মারা গেছে৷ গোপন থাকা এই তথ্য ইনডিপেনডেন্ট কমিশন মঙ্গলবার  এক প্রতিবেদনে প্রকাশ করেছে ৷ এতে জানানো হয় তদন্ত কমিশন নয় হাজার শিশু মারা যাওয়ার  প্রমাণ পেয়েছে৷  ১৯৯৮ সাল পর্যন্ত মা ও শিশুদের আশ্রয়কেন্দ্রগুলো ধর্মীয় সংস্থা বিশেষ করে ক্যাথলিকদের দ্বারা পরিচালিত হতো৷ আশ্রয়কেন্দ্রের শিশুদের শ্বাসজনিত এবং পেটের নানা সমস্যাই মৃত্যুর প্রধান কারণ৷

এ বিষয়ে আয়ারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী মাইকেল মার্টিন বলেন, ” অনুসন্ধানমূলক এই প্রতিবেদন আইরিশ ইতিহাসের লজ্জা ও অন্ধকার দিক প্রকাশ পেয়েছে৷ আমাদের অতীতের বিকৃত ধর্মীয় নৈতিকতার জন্য তরুণ মা ও শিশুরা যে মূল্য দিয়েছে, আমাদের সে সত্যের মুখোমুখি হতে হবে ৷” প্রধানমন্ত্রী এই ঘটনার জন্য বুধবার আনুষ্ঠানিকভাবে সংসদে ক্ষমা চেয়েছেন৷

আইরিশ ক্যাথলিক চার্চের প্রধান আর্চবিশপ ইমন মার্টিনও মঙ্গলবার ক্ষমা চেয়েছেন চার্চ পরিচালিত দীর্ঘদিনের মানসিক যন্ত্রণা নিয়ে বেঁচে থাকা সদস্যদের কাছে৷

তদন্ত কমিশন ১৯২২ থেকে ১৯৯৯ সালের মধ্যে গির্জা পরিচালিত ১৮টি আশ্রয়কেন্দ্রে অবিবাহিত মায়েদের সন্তানদের মত্যুর কারণ খতিয়ে দেখেছে৷ সেখানে তরুণ মায়েদের অনেকেই ধর্ষণের কারণে গর্ভবতী হয়৷

এনএস/কেএম (ডিপিএ, এএফপি, রয়টার্স, এপি)

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT