টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা সবচেয়ে বড় ভুল : ডা. জাফরুল্লাহ মাদক কারবারি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত সাংবাদিক আব্দুর রহমানের উদ্দেশ্যে কিছু কথা! ভারী বৃষ্টির সতর্কতা, ভূমিধসের শঙ্কা মোট জনসংখ্যার চেয়েও ১ কোটি বেশি জন্ম নিবন্ধন! বাড়তি নিবন্ধনকারীরা কারা?  বাহারছড়া শামলাপুর নয়াপাড়া গ্রামের “হাইসাওয়া” প্রকল্পের মাধ্যমে সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ ও বার্তা প্রদান প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ঘর উদ্বোধন উপলক্ষে টেকনাফে ইউএনও’র প্রেস ব্রিফ্রিং টেকনাফের ফাহাদ অস্ট্রেলিয়ায় গ্র্যাজুয়েট ডিগ্রী সম্পন্ন করেছে নিখোঁজের ৮ দিন পর বাসায় ফিরলেন ত্ব-হা মিয়ানমারে পিডিএফ-সেনাবাহিনী ব্যাপক সংঘর্ষ ২শ’ বাড়ি সম্পূর্ণ ধ্বংস বিল গেটসের মেয়ের জামাই কে এই মুসলিম তরুণ নাসের

কক্সবাজার পৌরসভা নির্বাচন: ভোট ডাকাতির অভিযোগ এনে নির্বাচন প্রত্যাখ্যান চার মেয়র প্রার্থীর

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৫ জুলাই, ২০১৮
  • ১১৮৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

টেকনাফ নিউজ ডেস্ক::
কক্সবাজার পৌরসভা নির্বাচনে ভোট ডাকাতির অভিযোগ এনে একয়োগে নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করলেন প্রতিদ্বন্দ্বি চার মেয়র প্রার্থী। ভোট ডাকাতি, নীলনক্সার নির্বাচন বর্জন করে পুননির্বাচন দাবী করেছেন বিএনপি মনোনীত প্রার্থী রফিকুল ইসলাম।
তিনি বলেন, সকাল থেকেই আওয়ামী লীগের প্রার্থী মাস্তান সন্ত্রাসী দিয়ে নৌকার পক্ষে ভোট ডাকাতি শুরু করেছে। ৩৯ টি ভোট কেন্দ্রের সব কটিতেই আওয়ামী লীগের মাস্তান সন্ত্রাসীরা ত্রাস সৃষ্টি করে নির্বাচনের পরিবেশ নষ্ট করে। এতে সাধারণ ভোটাররা ভোট দিতে পারেনি। তারা নিজেরাই ভোট দিয়ে বাক্সভর্তি করে। বিকেল সাড়ে তিনটায় জেলা বিএনপি কার্যালয়ে আয়োজিত এক জরুরী সংবাদ সম্মলনে সভাপতিত্ব করেন জেলা বিএনপি সভপতি সাবেক এমপি শাহজাহান চৌধুরী।

বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় নেতা সাবেক এমপি লুৎফুর রহমান কাজল, মেয়র প্রার্থী রফিকুল ইসলাম, জেলা সম্পাদক এড শামীম আরা স্বপ্না ও ইউসুফ বদরী।

অন্যদিকে বিকেল তিনটায় টেকপাড়ায় নিজ বাসভবনে আয়োজিত পৃথক এক সংবাদ সম্মলনে একই অভিয়োগ এনে নির্বাচন প্রত্যাখ্যানের ঘোষণা দেন নাগরিক কমিটির প্রার্থী সাবেক মেয়র সরওয়ার কামাল।

তিনি বলেন, এমন কোন কেন্দ্র নেই যেখানে সরকার দলীয় প্রার্থীর পক্ষে অনিয়মের আশ্রয় নেয়া হয়নি। অনেক কেন্দ্রে ভোট দানের গোপন কক্ষ বলতে কিছু ছিল ‍না। প্রকাশ্যে সিল মারতে হয়েছে। যা নজিরবিহীন।
এই নির্জজ্জ নির্বাচন দেখে সাংবাদিক ও পর্যকবেক্ষকরা তাজ্জব হয়েছেন।সাধারণের ভোটাধিকার হরণ হয়েছে। গাজীপুর খূলনার মতো নির্বাচন হয়েছে। অন্যায়ভাবে নৌকা প্রতীক জিতিয়ে আনতে প্রশাসন যন্ত্র ব্যবহার করে করা হয়েছে। প্রশাসনও এই ‍অণিয়ম পত্রিকায় জড়িত। তাই ভোট ডাকাতির এই নির্বাচন বাতিল করে করে সুষ্টু নিরপেক্ষ আয়োজন করার জন্য নির্বাচন কমিশনের প্রতি জোর দাবি জানান। তিনি এই বৃষ্টির মাঝেও যারা ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে কেন্দ্রে গিয়েছেন। নেতাকর্মীরা যারা কষ্ট করেছেন তাদেরও ধন্যবাদ জানান।
একই অভিযোগে এবং একই সময়ে নির্বাচন প্রত্যাখ্যানের ঘোষণা দেন জাতীয় পার্টীর মেয়র প্রার্থী রুহুল আমিন সিকদার ও ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের প্রার্থী মাওলানা জাহেদুর রহমানও নির্বাচন প্রত্যাখ্যানের ঘোষণা দিয়েছেন। তারা নিজের ফেসবুক পেজসহ অন্যান্য মাধ্যমে নির্বাচন প্রত্যাখ্যানের ঘোষণা দেন।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT