টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
ক্রিস্টাল আইস মেথসহ সোনাইমুড়ির ফাহিম শাহরিয়ার গ্রেপ্তার শেখ হাসিনার বিশেষ উপহার চাল বিতরণে ব্যস্ত জনতার বদি মসজিদে নামাজে অংশ নিতে পারবেন সর্বোচ্চ ২০ জন টেকনাফে ইয়াবা নিয়ে তিন রোহিঙ্গাসহ ৫ কারবারী গ্রেপ্তার লকডাউনে বন্ধ থাকবে ব্যাংক: এটিএম খোলা বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আবারও অগ্নিকাণ্ড ভারতে পবিত্র কোরআন শরিফের ২৬ আয়াত অপসারণের রিট বাতিল: আবেদনকারীর জরিমানা সাংবাদিক ফরিদ বাবুলের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ  জাতীয় গণমাধ্যম সপ্তাহকে রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতির দাবীতে, প্রধানমন্ত্রী বরাবর টেকনাফ বিএমএসএফের স্মারকলিপি প্রদান মক্কা-মদিনায় তারাবি ১০ রাকাত পড়ার নির্দেশ

কক্সবাজারে বিজিবির মাদক ধ্বংস…অনুষ্ঠানে কানাঘুষা

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০১২
  • ১১৫ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

ফরিদুল মোস্তফা খান, কক্সবাজার থেকে, ১৮.১২.১২
কক্সবাজারস্থ ১৭ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন বাংলাদেশের উদ্যোগে ধ্বংস করা হয়েছে বিপুল পরিমাণ মাদকদ্রব্য। এ উপলক্ষ্যে আয়োজিত এক সুধী সমাবেশে মাদকের বিরুদ্ধে সকলকে সোচ্চার হওয়ার আহবান জানান বক্তারা। মঙ্গলবার সকালে কক্সবাজার শহরস্থ ব্যাটালিয়ন প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয় মাদকদ্রব্য ধ্বংসকরণ অনুষ্ঠান।
তবে বিজিবি কর্তৃক আগে থেকেই ঢাক-ঢোল পিটিয়ে অনুষ্ঠিত উক্ত মাদক ধ্বংসকরণ অনুষ্ঠানটি ছিল অগোছালো। আয়োজকরা স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও গণমাধ্যমকর্মীসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গদের আমন্ত্রণ জানিয়ে অনুষ্ঠানস্থলে নিয়ে গেলেও দেখা গেছে, সাড়ে ১০টার অনুষ্ঠান শুরু হয় ১২টার দিকে। মঞ্চে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানকেও রাখা হয় পিছনের সারিতে। শুধু তাই নয়, অনুষ্ঠানের দায়িত্বশীল জনৈক কর্তার কাণ্ডজ্ঞানের অভাবে আমন্ত্রিত অতিথিদের অনেককে দাঁড়িয়ে খাবার দেয়া হয়। এছাড়া ৪/৫ মাস ধরে বিভিন্ন স্থান থেকে অভিযান চালিয়ে জব্দকৃত যে পরিমাণ মাদক প্রকাশ্যে ধ্বংসের জন্য উপস্থাপন করা হয়, তা দেখেও কেউ কেউ হতবাক হয়েছেন। তারা কানাঘুষা করে বলছেন, ১৭ বিজিবি প্রতিদিনই মাদক ধরেন। তা প্রচারের জন্য প্রেসবিজ্ঞপ্তি আকারে গণমাধ্যমে পাঠান। পেশাগত কারণে তা আমরা প্রচার করি। কিন্তু ৩/৪ মাসের মাদকতো আরো বেশি হওয়ার কথা ছিল।
বিজিবি সূত্র জানায়, ধ্বংস করা মাদকদ্রব্যর মধ্যে রয়েছে বিদেশী মদ ১৫০৫ বোতল, গাঁজা ৩ কেজি, ইয়াবা ৮৭৪৭ পিচ, বাংলা মদ ৬২.৭৫ লিটার, বিয়ার ক্যান ৫৫ বোতল, সিগারেট ৩৮৫ প্যাকেট ও ফেন্সিডিল ১ বোতল।
১৭ বিজিবির অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোহাম্মদ খালেকুজ্জামান পিএসসি’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত মাদক ধ্বংসকরণ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ রুহুল আমিন। এতে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বাবুল আক্তার, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী উপ-পরিচালক আবুল হোসেন, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জামায়াত নেতা এডভোকেট সলিমুল্লাহ বাহাদুর, কক্সবাজার পৌর আওয়ামীলীগ সভাপতি মুজিবুর রহমান।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT