টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

কক্সবাজারে ঝূর্ণিঝড় মোকাবেলায় প্রস্তুত ১১৩টি মেডিকেল টিম

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : সোমবার, ১৩ মে, ২০১৩
  • ২৩৭ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

Cyclone-sm20130511001824বঙ্গোপসাগরে ঝূর্ণিঝড় ‘মহাসেন’ মোকাবেলায় কক্সবাজারে ১১৩টি জরুরি মেডিকেল টিম প্রস্তুত রাখা হয়েছে। সাগরে অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ‘মহাসেন’ ক্রমাগত উপকূলের দিকে ধেয়ে আসছে। এ ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় কক্সবাজারের জেলা প্রশাসনের পক্ষে সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। বাতিল করা হয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগের সব কর্মকর্তাদের ছুটি। একই সঙ্গে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত কক্সবাজার জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলের মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলার নিয়ে উপকূলে আসছে।
কক্সবাজার আবহাওয়া আবহাওয়া অফিস বলছে, শনিবার একটি নিম্নচাপ ঘনীভূত হয়ে ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিয়ে উৎপত্তিস্থল থেকে তিনশ’ কিলোমিটারের বেশি অগ্রসর হয়েছে। যা আরও ঘনীভূত হয়ে উত্তর-উত্তরপশ্চিম দিকে অগ্রসর হতে পারে। ফলে সাগর উত্তাল থাকায় সমুদ্রবন্দরগুলোতে তিন নম্বর সতর্ক সংকেত বহাল রয়েছে। এটি রবিবার সকাল ৬টায় কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে এক হাজার ৪৩০ কিমি দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিম , চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে এক হাজার ৫২০ কিমি দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিম ও মংলা সমুদ্রবন্দর থেকে এক হাজার ৪৮৫ কিমি দক্ষিণে অবস্থান করছে। এ ঘূর্ণিঝড় ‘মহাসেন’ মোকাবেলা করতে কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত এক বৈঠক রবিবার বিকালে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়।
কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো রুহুল আমিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় জেলা প্রশাসক বলেন, “দুর্যোগ মোকাবেলায় আগাম প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। সরকারের বিভিন্ন দফতরের সমন্বয়ে কক্সবাজারের বিভিন্ন এলাকায় আবহাওয়ার পূর্বাভাস প্রচারণা (মাইকিং) পাশাপাশি সব প্রকার ট্রলার সাগরে না যাওয়ার জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।”
সভায় কক্সবাজার সিভিল সার্জন ডা. কাজল কান্তি পাল জানান, জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ ১১৩টি জরুরি মেডিকেল টিম প্রস্তুত রাখা হয়েছে।
সভায় জানানো হয়, রবিবার সন্ধ্যা থেকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে কন্ট্রোল রুম খোলার পাশাপাশি জেলা পর্যায়ের সব কর্মকর্তার ছুটি বাতিল করা হয়েছে। সভায় অন্যান্যদের মধ্যে কক্সবাজার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক নুরুল বাসির, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বাবুল আকতারসহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতারা উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে, দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত কক্সবাজার জেলার মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলার নিয়ে কূলে ফিরতে শুরু করেছে। রবিবার রাতের মধ্যেই সব ট্রলার কুলে ফিরে আসতে পারে বলে আশা করছেন বোট মালিকরা।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT