টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

উচ্চ শিক্ষার মান যাচাইয়ে অ্যাক্রেডিটেশন কাউন্সিল আইনের অনুমোদন

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : সোমবার, ১০ অক্টোবর, ২০১৬
  • ১২২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

টেকনাফ নিউজ ডেস্ক **

দেশের সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে উচ্চশিক্ষার গুণগত মান নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ অ্যাক্রেডিটেশন কাউন্সিল আইন ২০১৬ খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভা। কাউন্সিল বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মান যাচাই করে সনদ প্রদান করবে।সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।সভা শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সংবাদ ব্রিফিংয়ে বলেন, এর আগে আইনটির নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছিল। আজ আইনটির চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়। আইনটি চূড়ান্ত হলে দেশের সব সরকারি ও বেসরকারি উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে এই কাউন্সিলের অনুমতি নিতে হবে। আইনের ৬ নম্বর ধারায় বলা হয়েছে, কাউন্সিল গঠন হবে ১৩ সদস্য নিয়ে। এর মধ্যে একজন চেয়ারম্যান থাকবেন। চারজন পূর্ণকালীন ও আটজন খণ্ডকালীন সদস্য থাকবেন।
শফিউল আলম সাংবাদিকদের জানান, যৌক্তিক কারণে এবং শুনানি সাপেক্ষে কাউন্সিল অ্যাক্রেডিটেশন বাতিল করতে পারবে। এই কাউন্সিলে চেয়ারম্যানসহ ১৩ জন সদস্য থাকবেন। এর মধ্যে একজন চেয়ারম্যান, চারজন অধ্যাপক এবং খণ্ডকলীন সদস্য সরকার নির্বাচিত। এছাড়া আরো বিভিন্ন সেক্টর থেকে সদস্য আসবে। বাংলাদেশ কৃষিবিশ্ববিদ্যালয়ের মঞ্জুরী কমিশন থেকে ১ জন , শিক্ষামন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব, অ্যাসোশিয়েশন ইউনিভার্সিসিটি অফ বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট অথবা তার মনোনিত সদস্য থাকবেন। বিদেশি সদস্য থাকতে পারবেন তবে তা কাউন্সিল কতৃক মনোনিত হতে হবে। পেশাজীবী মনোনীত প্রতিনিধি এবং এফবিসিসিআইয়ের প্রতিনিধি হিসেবে শিল্প উদ্যোক্তাদের প্রতিনিধি সদস্য থাকবেন। এসব মিলেই কাউন্সিল গঠিত হবে।
তিনি বলেন, অ্যাক্রেডিটেশন সনদ ছাড়া কোনো প্রতিষ্ঠান অ্যাক্রেডিটেশনপ্রাপ্ত বলে প্রচার করতে পারবে না। উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো ন্যাশনাল কোয়ালিফিকেশন ফ্রেমওয়ার্ক ছাড়া কোনো সার্টিফিকেট প্রদান করতে পারবে না। এই কাউন্সিল যৌক্তিক কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বা এর অধীন কোনো ডিগ্রি প্রোগ্রামের ‘অ্যাক্রেডিটেশন ও কনফিডেন্স’ সনদ বাতিলও করবে।
এর আগে গত ২৮ মার্চ আইনটির নীতিগত অনুমোদনের দিন মন্ত্রিপরষদ জানিয়েছিলেন,  বাংলাদেশর উচ্চ শিক্ষার প্রত্যাশিত মান নিশ্চিত করত তথা সরকারি-বেসরকারি উচ্চ শিক্ষার প্রতিষ্ঠানগুলোকে বিশ্বমানে উন্নতিকরার লক্ষ্যে আইনটি করা হচ্ছে। কোন বিশ্ববিদ্যালয়টি মান সম্মত আর কোন বিশ্ববিদ্যালয় মান সম্মত নয় সেই কর্তত্ব দেওয়ার জন্যই ‘অ্যাক্রেডিটেশন কাউন্সিল’ করার বিধান রাখা হয়েছে আইনের খসড়ায়।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT