টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

উখিয়ার ক্ষতিগ্রস্থ মন্দিরে চেক বিতরণ.. বিএনপিও সরকারী তদন্ত দল মাঠে

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ৫ অক্টোবর, ২০১২
  • ১৫৭ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

আবদুর রহিম সেলিম,…উখিয়ার বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের মন্দির ও বসত ঘরে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনার রহস্য উদঘাটনে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে ৫ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত দল বর্তমানে উখিয়ায় অবস্থান করছে। আজ শনিবার সকাল থেকে ক্ষতিগ্রস্থ মন্দির ও বসত ঘর পরিদর্শন করবেন ওই তদন্ত দল। তদন্ত দলের প্রধান অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার নুরুল ইসলাম, বান্দরবান জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান, কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ আব্দুর রব, কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বাবুল আক্তার। এছাড়া গতকাল শুক্রবার দুপুর ২টায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিষ্টার মওদূদ আহমদের নেতৃত্বে ৮ সদস্যের একটি প্রতিনিধি সকালে রামু উপজেলায় ক্ষতিগ্রস্থ মন্দির ও বৌদ্ধ পল্লী পরিদর্শন শেষে দুপুর ২টায় উখিয়া উপজেলার ক্ষতিগ্রস্থ ৬টি বৌদ্ধ মন্দির পরিদর্শন করেছেন। এ সময় বিএনপির প্রতিনিধি দলের উপস্থিতি দেখে স্থানীয় বিএনপি সমর্থিত ভীড় করতে থাকলে পুলিশ খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক জনতার উপর লাঠিচার্জ করে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। বিএনপির প্রতিনিধি দলের সাথে ছিলেন ব্যারিষ্টার মওদূদ আহমদ, স্থায়ী কমিটির সদস্য ডঃ মঈন খান, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, চেয়ার পার্সনের উপদেষ্টা আমির খসরু মাহমুদ, যুগ্ন মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম আকবর খোন্দকার, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এডভোকেট গৌতম চক্রবর্তী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সুকোমল বড়–য়া, জেলা বিএনপির সভাপতি শাহ জাহান চৌধুরী প্রমূখ। এছাড়াও জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ মন্দির ও বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের লোকজনকে সরকারী ভাবে আর্থিক অনুদান দেওয়া হয়েছে। এ সময় উখিয়া-টেকনাফের সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদি সিআইপি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ জহিরুল ইসলাম ৮টি ক্ষতিগ্রস্থ মন্দির ও পরিবারের মাঝে নগদ ৭ লক্ষ টাকার চেক প্রদান করেন। এর মধ্যে রাজাপালং ইউনিয়নের জাদিমুরা বৌদ্ধ বিহারে ৬০ হাজার, রেজুরকুল সদ্ধম বিকাশ বৌদ্ধ বিহারে ৬০ হাজার, উত্তর বড়বিল বৌদ্ধ বিহারে ৬০ হাজার, পশ্চিম রতœা সুদর্শন বৌদ্ধ বিহারে ৬০ হাজার, খয়রাতী পাড়া নব-নির্মিত বৌদ্ধ বিহারে ১লক্ষ ২০ হাজার, পশ্চিম মরিচ্যা দীপাংকুর বৌদ্ধ বিহারে ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা ক্ষতিগ্রস্থ মন্দিরগুলোতে বিতরণ করেন। এছাড়াও পালংখালী ইউনিয়নের গয়ালমারা গ্রামের ধনরাম শীলকে ১লক্ষ ৬ হাজার টাকা এবং সতীশ শর্মাকে ৫৪ হাজার টাকা উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আর্থিক সাহায্য প্রদান করা হয়। এছাড়াও উপজেলার ৩২৮টি মসজিদে জুমার নামাজের খুতবায় শান্তি, সম্প্রীতি, সাম্য ও ভ্রাতৃত্ববোধ বজায় রাখার জন্য আলোচনা করেন।
##

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT