টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

ঈদগাঁওতে পঁচে নষ্ট হচ্ছে মৌসুমী ফল, ব্যবসায়ীদের মাথায় হাত

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, ৩ জুলাই, ২০১৩
  • ১০১ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

 

Image-Eidgah-Aমোঃ রেজাউল করিম, ঈদগাঁও:টানা বর্ষণে সৃষ্ট ঈদগাঁও নদীর ভয়াবহ বন্যায় ঈদগাঁও বাজারের অলি-গলি ও দোকানপাট প্লাবিত হওয়ায় চরম লোকসানে পড়েছেন বাজারের মৌসুমী ফল ব্যবসায়ীরা। স্বুসাদু বিভিন্ন মৌসুমী  ফল মজুদ করে ক্রেতার অভাবে বিক্রি করতে না পারায় এসব ফল এখন পঁচে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। এতে মাথায় হাত দেওয়ার উপক্রম হয়েছে ব্যবসায়ীদের। জেলা সদরের ব্যস্ততম বাণিজ্য কেন্দ্র ঈদগাঁও বাজারে বিক্রির জন্য রামুর ঈদগড়, গর্জনিয়া, পার্বত্য বাইশারী, নাই্যংছড়ি, আলী কদম, বান্দরবান ও লামাসহ বিভিন্ন উৎপাদন এলাকা থেকে রকমারী প্রজাতির মৌসুমী ফল সংগ্রহ করে মজুদ করেন ব্যবসায়ীরা। আম, কাঁঠাল, জাম, আনারস, লেচু, তাল, লেবুসহ অপরাপর আরো বিভিন্ন রকম ফলের বিকিকিনি বাজারের বিভিন্ন পয়েন্টে ভালোই চলছিল। চৌফলদন্ডী,পোকখালী, ইসলামপুর ও ভারুয়াখালীর অন্যান্য মফস্বল বাজার এমনকি দ্বীপ উপজেলা মহেষখালী ও কুতুবদিয়াতেও পাইকারী সরবরাহ করা হচ্ছিল ঈদগাঁও বাজার থেকে। কিন্তু গত ৭/৮ দিন যাবৎ প্রচুর বৃষ্টি ও সামুদ্রিক জোয়ারের ফলে জেলাব্যাপী প্রকৃতিক বিপর্যয় সৃষ্টি হলে খুচরা ও পাইকারী ক্রেতারা ঈদগাঁও বাজার থেকে মৌসুমী ফল সরবরাহ নেন নি। এর উপর গত শনিবার সপ্তাহিক হাটের দিনে বন্যার পানিতে বাজারের প্রধান সড়ক সহ অলিগলি প্লাবিত হলে আড়ত ও দোকানে পানি ঢুকে পঁচনের মুখে পড়ে নষ্ট হওয়ার উপক্রম হয়েছে ল ল টাকার ফল। এসব পাকা ফল ক্রেতার অভাবে বিক্রি ও সরবরাহ করতে না পারায় ব্যবসায়ীদের চোখের সামনে পঁচে যাচ্ছে। মঙ্গলবার বিকালে নিউ মার্কেটের সামনে গিয়ে দেখা যায় রাস্তা সংলগ্ন ফুটপাতে স্তুপ করে রাখা হাজার হাজার কঁচি তাল পঁচে যাচ্ছে। তালের শাঁস বিক্রির জন্য পটিয়া ও চন্দনাইশ থেকে এসব তাল এনেছিলেন বলে জানান ব্যবসায়ীরা। চরম অসুবিধার মুখে পড়েছেন কাঁঠাল ব্যবসায়ীরা। অনুকুল মৌসুমের ফলে ঈদগাঁওতে এ বছর কাঁঠালের বাম্পার ফলন হয়েছে। বড় সাইজের এসব কাঁঠাল বিক্রির জন্য বাজারে তুলে এখন বিপাকে পড়েছেন ব্যবসায়ীরা। ইসলামাবাদ সিকদার পাড়ার কাঁঠাল ব্যবসায়ী হামিদ সিকদার বলেন, বৃহত্তর ঈদগাঁও’র বিভিন্ন গ্রাম মহল্লা থেকে প্রচুর পাকা কাঁঠাল বিক্রির জন্য দোকানে তুলে ক্রেতার অভাবে বিক্রি করতে না পারায় এখন অনেক কাঠাল পঁচে যাচ্ছে। পঁচে যাওয়া শত শত কাঁঠাল থেকে কোন রকমে বিচি গুলো সংগ্রহ করে রেখেছি। এসব কাঁঠালবিচি তরকারী হিসেবে বিক্রি করে লোকসান কিছুটা পুষিয়ে নেয়া যাবে।

মোবাইল- ০১৫৫৮-৪৩৪২২৮, ০১৮৩৫-৪১০১২৫।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT