টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :

ঈদগাঁওতে উত্তাপ:প্রেস কাবের র‌্যালী-সমাবেশ:কমিটি বৈধ নয়

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১২ জুলাই, ২০১৩
  • ১০১ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

মোঃ রেজাউল করিম, ঈদগাঁও:::সদ্য শুরু হওয়া পবিত্র রমজান মাসে কক্সবাজার সদরের ২য় বৃহত্তম বাণিজ্য কেন্দ্র ঈদগাঁও বাজারে নিত্য প্রয়োজনীয় তরিতরকারির দাম বেড়ে গেছে আশংকা জনক ভাবে। সরবরাহে কোন প্রকার ঘাটতি না থাকলেও রমজানে ক্রেতাদের চাহিদাকে পূঁজি করে অসাধু ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেট দাম বাড়িয়ে দিয়ে গলাকাটা ব্যবসা করে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন ক্রেতারা। মাত্র কয়েকদিন আগেও স্বাভাবিক মূল্যে বিক্রি হওয়া শাক-সবজি ও তরকারি গতকাল থেকে কেজি প্রতি ৫/১০/১৫ টাকা হারে বাড়িয়ে নেয়া হচ্ছে। সদরের ইসলামপুর, ঈদগাঁও, জালালাবাদ, পোকখালী, চৌফলদন্ডী, ইসলামাবাদ, ভারুয়াখালী ইউনিয়নসহ বৃহত্তর ঈদগাঁও’র ৬/৭টি ইউনিয়নের ক্রেতাসাধারণ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রী ক্রয়ের জন্য ঈদগাঁও বাজারের উপর নির্ভরশীল। এসব এলাকার অপরাপর মফস্বল বাজার সমূহের ব্যবসায়ীরা ঈদগাঁও বাজারে তরকারি পাইকারী আড়ত থেকে সরবরাহ নিয়ে থাকেন।  এমনকি রামু উপজেলার ঈদগড় ও পাবর্ত্য বাইশারী থেকেও ঈদগাঁওতে সওদাপাতি কিনতে আসেন ক্রেতারা। ক্রেতাদের এ বিপুল চাহিদা ও নির্ভরতাকে পূঁজি করে গলাকাটা ব্যবসায় নেমেছে বাজারের আড়তদার ও অপরাপর খুঁচরা ব্যবসায়ীরা। বৃহস্পতিবার ঈদগাঁও বাজারে তরকারি গলি, কাঁচা বাজার, বাস ষ্টেশন রোড ও শহীদ জয়নাল সড়কের তরকারীর দোকান গুলোতে ক্রেতাদের উপচেপড়া ভীড় দেখা গেছে। এসব দোকানে প্রতি কেজি বেগুন ৪০, তীতাকরলা ৪০, শিম বীচি ১০০, কইড়া ২০, ঝিঙ্গে ৪০, কঁচুমুখি ৩০, শসা ৫০, হাইব্রীড খিরা ৪০, ঢ়েডস ৪০, পেলন দানা ৭৫, পটল ৩৫, আলু ২০, আনাজ কলা প্রতিজোড়া ২০ ও কলার থোড় প্রতি পিচ ২০-২৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। বেশী মূল্যের উত্তাপ লেগেছে মুদির দোকানেও। রসুন ৮০, পিঁয়াজ ৪৫, আদা ১০০, হলুদ ৮০, ধন্যা ৭০ ও শুকনা মরিচ ১৮০-২০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে মূল্য বৃদ্ধিতে হাই জাম দিয়েছে বহুল আলোচিত কাঁচা মরিচ। কয়েকদিন আগের মাত্র ৬০ টাকা দরে বিক্রি হওয়া কাঁচা মরিচ এখন ক্রেতাদের চাহিদার সুযোগে প্রতি কেজি ২০০ টাকায় বিক্রি করা হচ্ছে। বাজার মনিটরিং ও মূল্য নিয়ন্ত্রণের কোন সরকারী পদপে না থাকায় অসাধু মুনাফালোভী ব্যবসায়ীরা ইচ্ছামত দাম আদায় করে নিচ্ছে। আর এর প্রভাব পড়ছে নিম্ন আয়ের নাগরিক সহ সর্বস্তরের ভোক্তাদের উপর। ইতোমধ্যে কক্সবাজার পৌরশহর, রামু ও টেকনাফসহ অপরাপর বাজারে জেলা প্রশানের উদ্যোগে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট দ্বারা ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হলে সদরের গুরুত্বপূর্ণ ও জনবহুল এলাকার বাণিজ্যিক কেন্দ্রবিন্দু ঈদগাঁও বাজারে কোন অভিযান পরিচালনা করা হয়নি। ফলে এসব মুনাফা লোভী ব্যবসায়ীরা সবসময়ই রয়েগেছে ধরাছোঁয়ার বাইরে। আর এদের লোভ ও অপকর্মের মাসুল দিতে হচ্ছে বৃহত্তর ঈদগাঁও’র ৭/৮টি প্রশাসনিক ইউনিয়নের জনসাধারণকে।

মাহে রমজানকে স্বাগত জানিয়ে ঈদগাঁও সাংগঠনিক উপজেলা প্রেস কাবের র‌্যালী-সমাবেশ

মোঃ রেজাউল করিম, ঈদগাঁও,কক্সবাজার। মোবাইল- ০১৫৫৮-৪৩৪২২৮, ০১৮৩৫-৪১০১২৫। ১১জুলাই বৃহস্পতিবার বাদে আছর মাহে রমজানকে স্বাগত জানিয়ে ও পবিত্রতা রক্ষার দাবীতে ঈদগাও সাংগঠনিক উপজেলা প্রেস কাবের উদ্যোগে এক র‌্যালী ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। মিছিলটি বাজারের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ থেকে বের হয়ে বাজার ও ষ্টেশনের গুরুত্বপূর্ণ অলিগলি প্রদক্ষিণ শেষে বাস ষ্টেশনে প্রেস কাব সভাপতি মোহাম্মদ মিজানুর রহমান আজাদের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর বাঙ্গালীর সঞ্চালনায় এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন, বৃহত্তর ঈদগাঁও’র সর্বজন শ্রদ্ধেয় আলেম ও ইসলামাবাদ বালিকা মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা সুপার মওলানা আবদুর রহমান আজাদ, বিএনপি নেতা শওকত আলম, চৌফলদন্ডী বিএনপি সভাপতি মাষ্টার মোস্তফা কামাল, ঈদগাঁও সাংগঠনিক উপজেলা  ছাত্রদল আহবায়ক আজমগীর, আওয়ামীলীগ নেতা আবদুর রহমান, অর্থ সম্পাদক আনোয়ার হোছাইন। উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা জানে আলম, ঈদগাও সাংগঠনিক উপজেলা যুবদল সাধারণ সম্পাদক আলমগীর তাজ জনি, সিনিয়র সহ সভাপতি মামুন সিরাজুল মজিদ, পোকখালী যুবদলী সভাপতি এএইচ সেলিম, ঈদগাও যুবদল সভাপতি শফিউল আলম আজাদ, ঈদগাও সাংগঠনি উপজেলা শ্রমিক দল আহবায়ক আবু তাহের মুন্না, শ্রমিক নেতা সেলিম আকবর, ঈদগাও সাংগঠনিক উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহাব উদ্দিন, ঈদগাও ছাত্রদল সভাপতি ফরিদুল আলম, ছাত্রনেতা মোজাম্মেল হক, মোহাম্মদ শাহাজাহান, স্বেচ্ছা সেবক দল নেতা ইব্রাহিম খলিল রাহাত, হকার সমিতির সভাতি নুরুল আমিন, সাংবাদিকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রেস কাবের সাবেক সভাপতি রেজাউল করিম,  সাবেক সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দিন, নুরুল আমিন হেলালী, সহ সাধারণ সম্পাদক শেফাইল উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, প্রকাশনা সম্পাদক মোহাম্মদ ইউনুছ, নির্বাহী সদস্য ফিরোজ আহমদ ও নাছির মিয়া প্রমুখ । =================================

ঈদগাঁও সাংগঠনিক উপজেলা প্রেস কাবের ঘোষিত কমিটি বৈধ নয়

মোঃ রেজাউল করিম, ঈদগাঁও,কক্সবাজার।

মোবাইল- ০১৫৫৮-৪৩৪২২৮, ০১৮৩৫-৪১০১২৫। ঈদগাঁও সাংগঠনিক উপজেলা প্রেস কাবের কার্যকরী কমিটিতে এসএম তারেককে সভাপতি ও সেলিম উদ্দিনকে সেক্রেটারী দেখিয়ে যে কমিটি প্রকাশ করা হয়েছে তা অনুমোদিত কমিটি নয়। প্রেস কাবের সাধারণ সভায় উপস্থিত ১১ সদস্য সর্বসম্মতিক্রমে উক্ত কমিটি অনুমোদন দেননি। যেহেতু প্রেস কাবের বর্তমান অন্তর্বর্তীকালীন কমিটি এখনো লিখিত ভাবে কাউকে দায়িত্ব হস্তান্তর করেন নি। সেহেতু কিভাবে উক্ত কার্যকরী কমিটি গঠিত হলো তা বোধগম্য নহে। কমিটি ঘোষণার দায়িত্ব কেবল অন্তর্বর্তীকালীন কর্মকর্তাদের। প্রেস কাবের বৃহত্তর ঐক্যের স্বার্থে ও সামগ্রিক কল্যাণে সকল সদস্যদের মতামতের আলোকে যখন অন্তর্বর্তীকালীন কমিটি কাজ করে যাচ্ছেন, তখন গুটি কয়েক পদ- মতালোভী এবং ঘাপটি মেরে থাকা বর্ণচোর নিজেদের স্বার্থ সিদ্ধির জন্য সিন্ডিকেট করে প্রেস কাবকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করতে উঠে পড়ে লেগেছে। রাতের আঁধারে তাদের ঘোষিত এ পকেট কমিটির ব্যাপারে আমরা কিছুই অবগত নই। সুন্দর এবং গ্রহণযোগ্য কমিটি উপহার দেয়াই আমাদের দায়িত্ব। বিবৃতিদাতারা হলেন অন্তর্বর্তীকালীন কমিটির পে গিয়াস উদ্দিন (দৈনিক কক্সবাজার), মোঃ শাহজাহান সিরাজ (দৈনিক আজকের দেশবিদেশ), এনামুল হক ইসলামাবাদী (দৈনিক কর্ণফুলী), মোঃ রেজাউল করিম (দৈনিক ইনানী), মেয়াদ উত্তীর্ণ কমিটির পে সাংগঠনিক সম্পাদক এইচ.এন. আলম (দৈনিক হিমছড়ি) এবং সদস্য মোঃ হামিদুল হক (দৈনিক সমুদ্রবার্তা) প্রমুখ।

 

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT