টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

ইয়াবার ছোঁবল থেকে জাতিকে বাঁচাবে কে ?

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৫
  • ১৭৭ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

সাদ্দাম হোসাইন,হ্নীলা…
ইয়াবা নামক মাদকের জীবন ঘাতির ছোঁবল থেকে জাতিকে বাচাবে কে? এই প্রশ্ন এখন সর্বত্রই। ইয়াবা একটি ভয়ানক অভিশাপ হিসেবে জাতির উপর ছওয়ার হয়েছে। কারণ বৃদ্ধ-বণিতা, ছাত্র-শিক্ষক, যুবক-চিকিৎসক, সরকারী-বেসরকারী চাকুরীজীবি, সংবাদকর্মীসহ বিভিন্ন শ্রেণীর পেশাজীবি মানুষ কেউ রেহাই নেই এই মরণ নেশা ইয়াবা নামক মাদকের ভয়াবহতা থেকে।
সামাজিক শৃঙ্খলাকে ডাস্টবিনে নিক্ষিপ্ত করে জাতিকে পঙ্গু ও আগামী প্রজন্মকে অনিশ্চিত ভবিষ্যতের দিকে ঠেলে চারিত্রিক অবক্ষয়ের দিকে ধাবিত করছে এই ইয়াবা। এই সর্বনাশা ইয়াবার রঙ্গিন নেশায় মত্ত হয়ে সেবনকারীরা স্ত্রী-সন্তান, মা-বাবা, ভাই-বোন, আত্বীয়-স্বজনকে মূল্যায়ন তো দুরের কথা তাদের মনোবাসনা (ইয়াবার সেবনের টাকা) পূরনে র্ব্যথ হলে আক্রান্ত করতে দি¦ধাবোধ করেনা। তাদের মনোভাব এতই ভয়ানক হয় যে, তার জলন্ত উদাহারণ ঢাকায় পুলিশ অফিসার দম্পতির একমাত্র আদরের মেয়ে ঐশি। ইয়াবা সেবন করে নৃশংস ভাবে খুন করে পিতা-মাতাকে। এ ভাবে সমাজে প্রতিদিন ইয়াবা সেবন কারিদের হাতে কোথাও না কোথাও অপ্রিতিকর ঘটনা ঘটছে।
সর্বগ্রাসী এই ইয়াবা নামক মরণ নেশার ছোবল থেকে দেশের ভবিষ্যত প্রজন্মকে কিভাবে রক্ষা করা যায় তা নিয়ে কালক্ষেপন না করে সমাজের সুষ্ঠু মস্তিস্ক সম্পন্নদের নিয়ে বিহীত ব্যবস্থা নেয়া সময়ের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হয়ে দাড়িঁয়েছে। তা না হলে একদিন এ জাতি অথৈ গহ্বরে তলিয়ে যাবে। এতে কোন সন্দেহ নেই।
এদিকে তথ্যানুসন্ধানে জানা যায়, ইয়াবা সেবীরা টাকা জোগাড় করতে গিয়ে সমাজের নানান অপরাধ মূলক কর্মকান্ডে জড়িয়ে পড়ছে। মরণ নেশার প্রভাবে সামাজিক শান্তি-শৃংখলা বিনষ্ট হচ্ছে। রাষ্ট্রীয় আইন-শৃংখলার উপর চরম বিরূপ প্রভাব পড়ছে। ফলে আইন-শৃংখলা বাহিনী পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নিয়মিত বাধার সম্মুখীন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ইতিমধ্যে আইন শৃংখলা বাহিনীর সাথে ইয়াবা ব্যবসায়ীর বন্দুক যুদ্ধে ৬ ইয়াবা ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আইন শৃংখলাবাহিনীর সদস্য।
কতিপয় বিপদগামী এক শ্রেণীর অতিলোভী মানুষ স্বল্প সময়ের কোটিপতি হওয়ার আশায় জাতিকে ইয়াবা মাদকে আসক্ত করে নিজেদের স্বার্থের জন্য ইয়াবা নামক মরণ ঘাতী পাচারে নিয়োজিত। এরা সমাজের নিম্ম শ্রেনীর দিন মজুর শ্রমিকদের পাচার কাজে ব্যবহার করে অঢেল সম্পত্তির মালিক বনে গেছে। এরা ইয়াবা পাচার করে দেশ জাতিকে নিশ্চিত অন্ধকারে ঠেলে দিয়ে জাতিকে মেধা শূন্য করে কোটিপতি থেকে শত কোটি টাকার মালিক বনে যাচ্ছে। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বছর তি’নেক আগে এসব নব্য কোটিপতিরা বেশির ভাগই দিন মজুর, খেটে খাওয়া সাধারন মানুষ ছিল। এমনকি তাদের অবস্থা ছিল “পান্তা আন্তে নুন ফুঁরায়’- এসব মানুষদের এখন আলিশান একাধিক বাড়ি, বিলাস বহুল গাড়ী, দামী দামী প্লট, অত্যাধুনিক শপিং কমপ্লেক্সে ব্যবসা প্রতিষ্টান।
অনুসন্ধানে জানা যায়, এসব দেশদ্রোহী ইয়াবা গডফাদাররা আলাদীনের চেরাক পাওয়ার মত স্বল্প সময়ের মধ্যে জিরো থেকে হিরো বনে গেছেন। এসব রাঘল- বোয়ালরা দেশের গুরুত্বর্পূণ শহর কক্সবাজার, চট্টগ্রাম, ঢাকায় নিজস্ব ফ্ল্যাট বাড়ি, প্লট, গাড়ি, ব্যবসা প্রতিষ্টান গড়ে তুলেছেন। আবার অনেকে এসব শহরে বৈধ ব্যবসার সাইনর্বোড ব্যবহার করে, আড়ালে জমজমাট ইয়াবার ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে নিরাপদে।
এসব দেশদ্রোহী রাঘব-বোয়াল ইয়াবা গডফাদার ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রানালয়ের তালিকা ভুক্ত ও তালিকার বাহিরে নিরবে এই অবৈধ ব্যবসার সাথে সম্পৃক্তদের গোয়েন্দা নজরদারী বৃদ্ধির মাধ্যমে চিহ্নিত করে এদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় আইনের মাধ্যমে যথাযথ ব্যবস্থা না নিলে, দেশের ভবিষত প্রজন্ম এবং দেশকে এর ভয়াবহতার মাসুল গুনতে হবে।
এদিকে ইয়াবা ব্যবসায়ী হিসেবে চিহ্নীত করে বিভিন্ন সংস্থার তালিকা প্রণয়ের কথা বলে একাধিক তালিকা বিভিন্ন প্রিন্ট, ইলেক্ট্রনিক ও অনলাইন পোর্টালে প্রকাশ করেছে। এতে দেখা যায় অনেক ব্যবসায়ীর নাম যেমন তালিকায় নেই তেমনি যারা ইয়াবা ব্যবসায় জড়িত নই তাদের নামও তালিকায় স্থান করে নিয়েছে। এতে প্রকৃত ইয়াবা ব্যবসায়ীরা আড়াল ও ধরা ছোঁয়ার বাইরে রয়ে যাবে বলে মনে করেন সচেতন মহল।
এব্যাপারে টেকনাফ ৪২ বিজিবি অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল আবুজার আল জাহিদ জানান, প্রকৃত ইয়াবা ব্যবসায়ী যতই শক্তিশালী বা নিম্মশ্রেণীর হোকনা কেন তাদের অবশ্যই আইনের আওতায় আনা হবে। ইয়াবা মাদকের বিরুদ্ধে চলমান অভিযান অব্যাহত থাকবে, পাশাপাশি ইয়াবা মাদকের ক্ষতিক্ষর দিক তুলে ধরে সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধির কথাও জানান তিঁনি।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT