টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

আ’লীগে যোগ দিচ্ছেন মনজুর, ইঙ্গিত মহিউদ্দিনের

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শনিবার, ১ অক্টোবর, ২০১৬
  • ৩১১ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
টেকনাফ নিউজ ডেস্ক **

বিগত সিটি করপোরেশন নির্বাচন চলাকালে কেন্দ্র দখল ও ভোটদানে বাধার দেওয়ার অভিযোগে নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেন মনজুর আলম। একই সঙ্গে রাজনীতি থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন ২০১০ সালে বিএনপির মনোনয়ন নিয়ে মেয়র নির্বাচিত হওয়া এম মনজুর আলম।নির্বাচনের পর প্রায় এক বছর পারিবারিক ব্যবসা নিয়ে ব্যস্ত থাকলেও গত ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুর শোক দিবস পালন করেন। ওইদিন সাবেক এই মেয়রের এক নাতিকে আহ্বায়ক করে বঙ্গবন্ধুর ছোট ছেলে শেখ রাসেলের নামে একটি সংগঠন আত্মপ্রকাশ করে।মনোনয়ন নিয়ে মেয়র নির্বাচিত হওয়া মনজুর আলমকে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা করা হলেও সর্বশেষ নতুন কমিটিতে তাঁর স্থান হয়নি দলে। বঙ্গবন্ধুর শোক দিবস পালনের বিষয়ে জানতে চাইলে তখন মনজুর আলম বলেছিলেন, ফোর্থ জেনারেশন পর্যন্ত সবাই বঙ্গবন্ধুর রাজনীতি সঙ্গে সম্পৃক্ত এবং বঙ্গবন্ধুর আদর্শে বিশ্বাসী।এদিকে শনিবার সকালে বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশন আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে একমঞ্চে উপস্থিত হয়েছেন সাবেক মেয়র মনজুর আলম ও তাঁর রাজনৈতিক গুরু মহিউদ্দিন চৌধুরী। ৪৪ গুণিজনকে সংবর্ধনা উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।মোস্তফা হাকিম ফাউন্ডেশনের অর্থায়নে পরিচাালিত বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশনের সদস্য সচিব মো. মনজুর আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী। বিএনপির রাজনীতি ছেড়ে আসার পর ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও সমাজ সেবা নিয়েই ব্যস্ত থাকবেন এমনটাই জানিয়েছিলেন মনজুর আলম। তবে সাম্প্রতিক সময়ে আওয়ামী ঘরানার লোকজনের সঙ্গে ঘনিষ্টতা বাড়ে। ১৫ আগস্টের অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে প্রকাশ্যে জানান দিলেন আওয়ামী লীগের রাজনীতিই তাঁর আসল ঠিকানা। আওয়ামী লীগের রাজনীতি করে তিনবার কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছিলেন মনজুর আলম। তৎকালীন মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর বিশ্বস্থ হিসেবে বিভিন্ন সময়ে ১৮ বার ভারপ্রাপ্ত মেয়রের দায়িত্ব পালন করেছেন। শনিবারের অনুষ্ঠানে মনজুর আলম আওয়ামী লীগে ফিরছেন এমনটাই ইঙ্গিত দিলেন মহিউদ্দিন চৌধুরী। আনুষ্ঠানিকভাবে যোগদানের বিষয়ে কথা বলতে না চাইলেও আগামীতে আওয়ামী লীগে ফেরার ইচ্ছা রয়েছে মনজুর আলমের। এমন ইঙ্গিত দিয়ে তিনি বাংলানিউজকে বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শে আছি। আগামীতেও থাকবো। শনিবারের গুণিজন সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেন, কেউ দলের পতাকাতলে আসতে চাইলে বাধা দেবেন না। যারা আওয়ামী লীগের পতাকাতলে আসতে চায় তাঁদেরকে উৎসাহিত করবেন। উত্তরকাট্টলী মোস্তফা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত সংবর্ধনা সভায় ৪৪ গুণি ব্যক্তিকে সম্মাননা দেওয়া হয়। আওয়ামী রাজনীতি ও সমাজ সেবায় বিশেষ অবদানের জন্য প্রবীণ এসব সমাজ সেবক ও আওয়ামী লীগ নেতাদের এ সংবর্ধনা দেওয়া হয়। এছাড়া ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে আসন্ন শারদীয় উৎসব উপলক্ষে প্রায় ১ হাজার সনাতনি সম্প্রদায়ের লোকজনের মধ্যে বস্ত্র বিতরণ করা হয়। শেখ হাসিনা জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে আপোষহীন নেত্রী উল্লেখ করে মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেন, তাঁর দক্ষহাতে দেশে ইতোমধ্যে জঙ্গিবাদের পতন শুরু হয়েছে। বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশনের পক্ষে সাবেক মেয়র মনজুর আলম গুণিজনদের যে সংবর্ধনা দিয়েছেন তা আগামী প্রজম্মের জন্য মাইলফলক হয়ে থাকবে বলে মন্তব্য করেন তিনি। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে সীতাকুণ্ড পৌর মেয়র বদিউল আলম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন ছাবেরী, আকবর শাহ থানা আ’লীগ সভাপতি সোলতান আহমদ চেয়ারম্যান, সাধারণ সম্পাদক আলতাফ, সীতাকুন্ড থানা আ’লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. ইছহাক, মোস্তফা হাকিম ওয়েলফেয়ার ফাইন্ডেশনের পরিচালক নিজামুল আলম, আওয়ামী লীগ নেতা রেহান উদ্দিন, জুলফিকার আলী মাসুদ শামীম, ইঞ্জিনিয়ার মিজানুর রহমান, মোস্তফা হাকিম বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অধ্যক্ষ মো. আলমগীর, উপাধ্যক্ষ বাদশা আলম, মোস্তফা হাকিম গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক(এইচআর এন্ড লিগ্যাল) আলী আহম্মদ, প্রধান শিক্ষক আবদুচ ছাত্তার মজুমদার, মহিবুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT